২৪ মার্চ ২০১৯, ১০ চৈত্র ১৪২৫

আরও উজ্জ্বল রাজ্জাক

  • ক্রীড়া প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2017-04-30 20:04:28 BdST

bdnews24

প্রিমিয়ার লিগ শুরু করেছিলেন চার উইকেট নিয়ে। পরের তিন ম্যচে নিয়েছেন আরও সাত উইকেট। এবার আব্দুর রাজ্জাকের শিকার পাঁচ উইকেট। বোলিংয়ের দাপট অবশ্য ছিল না শেখ জামালের ব্যাটিংয়ে। তবে শেষ পর্যন্ত জিতেছে রাজ্জাকের দল।

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে রোববার পারটেক্স স্পোর্টিং ক্লাবকে ৩ উইকেটে হারিয়েছে শেখ জামাল ধানমণ্ডি ক্লাব। ফতুল্লায় রাজ্জাক ৫ উইকেট নিয়ে পারটেক্সকে বেঁধে ফেলেন ২০১ রানে। শেখ জামাল জিতেছে ২৮ বল বাকি রেখে।

পাঁচ ম্যাচে শেখ জামালের এটি চতুর্থ জয়। পারটেক্স হারল সবকটিই।

৫ ম্যাচে ১৬ উইকেট নিয়ে এখনও পর্যন্ত লিগের সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি রাজ্জাক। এর আগে বিসিএলেও ৬ ম্যাচে ২৪ উইকেট নিয়েছিলেন জাতীয় দলে দীর্ঘদিন ধরে উপেক্ষিত এই বাঁহাতি স্পিনার।

রাজ্জাক ছাড়াও শেখ জামালের জয়ে বড় অবদান জাতীয় দল থেকে বাদ পড়া আরেকজনের। ২ উইকেট নেওয়ার পর শেষের দিকে অপরাজিত ৩৪ রানের গুরুত্বপূর্ণ ইনিংসে দলকে জিতিয়েছেন তানবীর হায়দার।

পারটেক্সের দুরবস্থা অনুমান করা যায়নি শুরুতে। ওপেনিংয়ে দারুণ খেলছিলেন জনি তালুকদার। তিনে নেমে ইরফান শুক্কুর সঙ্গ দিয়েছেন খানিকটা। চারে নেমে ভারতীয় পরস ডোগরাও জুটি গড়েছিলেন জনির সঙ্গে।

৬৫ রান করা জনিকে ফেরান তানবীর। এরপর থেকেই হঠাৎ দিশেহারা দলের ইনিংস। ৪০ রানে শেষ ৬ উইকেট হারায় পারটেক্স।

লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে বাংলাদেশের বোলারদের মধ্যে সবচেয়ে বেশিবার ৫ উইকেট নেওয়ার রেকর্ড আগে থেকেই রাজ্জাকের। সেটি সমৃদ্ধ করেছেন আরেকটু, ৮ বার!

শেখ জামালের রান তাড়ার শুরু ছিল ঝড়ো। ২৭ বলে ৪২ রান করেন মাহবুবুল করিম। উদ্বোধনী জুটিতে আসে ৪৬ বলে ৬৩ রান।

এরপর সেভাবে বড় ইনিংস খেলতে পারেননি রাজিন সালেহ ও ভারতীয় প্রশান্ত চোপড়া। তবে সোহাগ গাজী, তানবীর ও ইলিয়াস সানির ছোট তিনটি ইনিংসে জিতে যায় শেখ জামাল।

পাঁচে নেমে গাজী করেন ৩১। দুই ছক্কায় সানি ২৩। আর এক প্রান্ত আগলে রেখে দলকে জয়ের ঠিকানায় নিয়ে যান তানবীর।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

পারটেক্স: ৪৬.৩ ওভারে ২০১ (জনি ৬৫, সাজ্জাদ ২৬, শুক্কুর ১৯, ডোগরা ৩০, জুবাইর ১৩, সাজ্জাদুল ৫, জাকারিয়া ০, রাজিবুল ১৫, মাসুম ৬, মামুন ৫*, ইমরান ৪*; শাহাদাত ১/২৪, নাজমুল ০/২৫, গাজি ১/৪১, জিয়াউর ০/১৫, রাজ্জাক ৫/২২, তানবীর ২/৪৭, ইলিয়াস সানি ০/২২)।

শেখ জামাল: ৪৫.২ ওভারে ২০২/৭ (ফজলে রাব্বি ২৬, মাহবুবুল ৪২, প্রশান্ত ১৬, রাজিন ১১, গাজি ৩১, তানবির ৩৪*, জিয়াউর ১, সানি ২৩, রাজ্জাক ৪*; মামুন ৩/৩৭, মাসুম ২/৪৩, ইমরান ০/৪৫, রাজিবুল ১/৩৪, জাকারিয়া ০/২৬, ডোগরা ০/৯, জুবাইর ০/৪)।

ফল: শেখ জামাল ধানমণ্ডি ক্লাব ৩ উইকেটে জয়ী

ম্যান অব দা ম্যাচ: আব্দুর রাজ্জাক


ট্যাগ:  বাংলাদেশ  রাজ্জাক  ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ