ENG
২১ নভেম্বর ২০১৭, ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৪

অভিজ্ঞতার বিবেচনায় টিকে গেলেন ইমরুল

  • ক্রীড়া প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2017-09-11 19:11:00 BdST

bdnews24

ব্যাটে নেই রান, শরীরী ভাষায় নেই ইতিবাচকতার ছাপ। সদ্য সমাপ্ত অস্ট্রেলিয়া সিরিজে একদমই ম্রিয়মান ছিলেন ইমরুল কায়েস। রান ছিল না এই সিরিজের আগেও। তবু দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের দলের টিকে গেছেন বাঁহাতি ব্যাটসম্যান। তার জায়গায় নতুন কাউকে নিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকার চ্যালেঞ্জে ঠেলে দিতে চাননি নির্বাচকরা।

অস্ট্রেলিয়া সিরিজের চার ইনিংসে ইমরুলের রান ০, ২, ৪ ও ১৫। সব মিলিয়ে গত ১৫ ইনিংসে অর্ধশতক মাত্র একটি। এমন পারফরম্যান্সের পরও দলে টিকে যাওয়া বিস্ময়কর। কিন্তু দক্ষিণ আফ্রিকা সফর উপমহাদেশের দেশগুলোর জন্য সবসময়ই ভীষণ কঠিন। নতুন কারও জন্য হতে পারে আরও চ্যালেঞ্জিং।

পাশাপাশি নির্বাচকরা বিবেচনায় নিয়েছেন বাউন্সি উইকেটে ইমরুলের সামর্থ্য। সব মিলিয়েই ইমরুলকে আরও দেখতে চান প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন।

“কারণ দক্ষিণ আফ্রিকা সফর খুব চ্যালেঞ্জিং। অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে দেশের মাটির সিরিজের সঙ্গে ওখানে বিস্তর পার্থক্য আছে। আমরা এমন কোনো নতুন ক্রিকেটারকে দক্ষিণ আফ্রিকায় নিতে চাইনি যেটা তার ক্যারিয়ারের জন্য হুমকি হয়ে যায়। এজন্য অভিজ্ঞতাকে প্রাধান্য দিয়েছি।

“এই সিরিজে আমরা ওকে (ইমরুল) দেখব। যেহেতু ও যথেষ্ট অভিজ্ঞ। বাউন্সি উইকেটে স্কয়ার অব দা উইকেটে যথেষ্ট ভালো ব্যাট করে। এজন্য আমরা আত্মবিশ্বাসী যে ও ফিরে আসবে।”

৩০ টেস্ট খেলেছেন ইমরুল, একজন ব্যাটসম্যানকে দেখার জন্য যথেষ্টই তা। আরও দেখানোর সুযোগ পেয়ে তাই নিজেকে ভাগ্যবান ভাবতে পারেন বাঁহাতি ব্যাটসম্যান। তবে এবারও না পারলে হয়তো সুযোগ পাবেন না আর।


ট্যাগ:  বাংলাদেশ  ইমরুল