আফগানিস্তানের নেতৃত্বের বদলে ক্ষুব্ধ নবি-রশিদ

  • স্পোর্টস ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2019-04-06 00:29:34 BdST

bdnews24

আসগর আফগানকে আচমকাই আফগানিস্তানের নেতৃত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত জন্ম দিয়েছে বড় বিস্ময়ের। প্রক্রিয়াটা যে স্বাভাবিক ছিল না, সেটি আরও স্পষ্ট হলো মোহাম্মদ নবি ও রশিদ খানের প্রতিক্রিয়ায়। দলটির সবচেয়ে বড় দুই তারকা কড়া সমালোচনা করেছেন এই সিদ্ধান্তের।

নেতৃত্ব কাঠামোয় হুট করেই আমূল পরিবর্তন এনে আফগানিস্তান সরিয়ে দিয়েছে তাদের সফলতম অধিনায়ক আসগরকে। তিন সংস্করণে অধিনায়ক করা হয়েছে তিন জনকে। টেস্টের নেতৃত্ব পেয়েছেন রহমত শাহ, ওয়ানডে অধিনায়ক গুলবদিন নাইব, টি-টোয়েন্টিতে রশিদ।

সফল ও পরীক্ষিত অধিনায়ককে বিশ্বকাপের আগে সরিয়ে দেওয়া জন্ম দিয়েছে অনেক প্রশ্নের। সেই প্রশ্নই তুলেছেন নবি ও রশিদ। এমনিতে আধুনিক ক্রিকেটে আচরণবিধির শৃঙ্খলে বন্দি থাকতে হয় ক্রিকেটারদের। তবে এই দুজন সেটির পরোয়া করেননি। আইপিএল খেলতে দুজন এখন ভারতে। সেখান থেকেই টুইটারে জানিয়েছেন প্রতিক্রিয়া।

চার বছর আগে যার জায়গায় নেতৃত্বে আনা হয়েছিল আসগরকে, সেই নবিই জানান প্রথম প্রকাশ্য প্রতিক্রিয়া।

“দলের একজন সিনিয়র সদস্য হিসেবে এবং আফগান ক্রিকেটের উত্থানের একজন স্বাক্ষী হিসেবে আমি মনে করি না, বিশ্বকাপের আগে অধিনায়ক বদলের সঠিক সময় এটি। আসগরের নেতৃত্বে দল দারুণ জমে গিয়েছে এবং ব্যক্তিগতভাবে আমি মনে করি, আমাদের নেতৃত্ব দেওয়ার জন্য সে-ই উপযুক্ত।”

প্রতিক্রিয়ায় রশিদ ছিলেন আরও খোলামেলা ও আক্রমণাত্মক। শুরুতে নবির টুইটকে রিটুইট করেছেন এই লেগ স্পিনার। পরে দুটি টুইটে জানিয়েছেন নিজের ভাবনা।

“নির্বাচকদের প্রতি শ্রদ্ধা রেখেই বলছি, আমি তাদের সিদ্ধান্তের তীব্র বিরোধিতা করছি, কারণ এটি দায়িত্বজ্ঞানহীন ও পক্ষপাতদুষ্ট সিদ্ধান্ত। বিশ্বকাপ যেহেতু খুব কাছেই, আসগর আফগানই আমাদের নেতৃত্বে থাকা উচিত। দলের সাফল্যে তার নেতৃত্বের অবদান অনেক বেশি। বিশ্বকাপের মতো বড় আসরের মাত্র মাস দুয়েক আগে নেতৃত্বের বদল দলে অনিশ্চয়তা সৃষ্টি করবে ও দলের মনোবলে প্রভাব ফেলবে।”

দুই ক্রিকেটারই তাদের টুইটে ট্যাগ করেছেন আফগানিস্তানের প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনি, দেশটির প্রধান নির্বাহী আব্দুল্লাহ আব্দুল্লাহ ও জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা হামদুল্লাহ মহিবকে। পরিস্থিতির গুরুত্ব ফুটে উঠছে এতেই। তারা কামনা করেছেন রাষ্ট্রের শীর্ষ ব্যক্তিদের হস্তক্ষেপ।

আসগরের নেতৃত্বে কিছুদিন আগে নিজেদের মাত্র দ্বিতীয় টেস্টেই ঐতিহাসিক জয় পেয়েছে আফগানিস্তান। এছাড়াও এই ব্যাটসম্যানের নেতৃত্বে ৫৬ ওয়ানডেতে জিতেছে ৩১টি, ৪৬ টি-টোয়েন্টিতে জিতেছে ৩৭টিতেই।

অধিনায়কত্বের এই বদল এসেছে আফগান ক্রিকেটের গত কয়েক মাসের নানা পরিবর্তনের ধারাবাহিকতায়। কয়েক মাস আগে আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের চেয়ারম্যান আতিফ মার্শাল ও প্রধান নির্বাহী শফিকউল্লাহ স্টানিকজাইসহ সরিয়ে দেওয়া হয় শীর্ষ কর্তাদের। বিশেষ করে স্টানিকজাইকে সরিয়ে দেওয়ায় চমকে গিয়েছিলেন অনেকেই। গত কয়েক বছরে আফগান ক্রিকেট দারুণভাবে এগিয়ে চলা এবং টেস্ট মর্যাদা পাওয়ার পেছনে তার ব্যবস্থাপনা ও নানা উদ্যোগের বড় অবদান আছে বলে মনে করা হয়।


ট্যাগ:  নবি  আফগানিস্তান  রশিদ