২৪ আগস্ট ২০১৯, ৯ ভাদ্র ১৪২৬

আবার ৯০০ ছুঁলেন স্মিথ

  • স্পোর্টস ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2019-08-07 19:08:28 BdST

bdnews24

একটা সময় পৌঁছে গিয়েছিলেন সাড়ে নয়শ রেটিং পয়েন্টের খুব কাছে। মাঠের বাইরে থাকার সময়টায় রেটিং পয়েন্ট ক্রমে কমে চলে এসেছিল সাড়ে আটশর কাছে। তবে ফেরার পর প্রথম টেস্টেই অসাধারণ পারফরম্যান্স দেখিয়ে আইসিসি র‌্যাঙ্কিংয়ে আবার ৯০০ রেটিং পয়েন্ট ছুঁয়ে ফেললেন স্টিভেন স্মিথ।

অ্যাশেজের প্রথম টেস্টেই এবার এজবাস্টনে ১৪৪ ও ১৪২ রানের দুর্দান্ত দুটি ইনিংস খেলে স্মিথ অবদান রেখেছেন অস্ট্রেলিয়ার বড় জয়ে। এক টেস্ট থেকেই পেয়েছেন ৪৬ রেটিং পয়েন্ট। ৮৫৭ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে শুরু করেছিলেন টেস্ট। এখন তার রেটিং পয়েন্ট ৯০৩।

রেটিং পয়েন্ট বাড়ার পাশাপাশি টেস্ট ব্যাটসম্যানদের র‌্যাঙ্কিংয়েও উন্নতি হয়েছে স্মিথের। এক ধাপ এগিয়ে সাবেক এক নম্বর ব্যাটসম্যান এবার চার থেকে উঠেছেন তিন নম্বরে।

ব্যাট হাতে দুর্দান্ত ধারাবাহিকতায় ২০১৭ সালের ডিসেম্বরে স্মিথের রেটিং পয়েন্ট ছিল ৯৪৭। টেস্ট ব্যাটসম্যানদের ইতিহাসে তা ছিল দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রেটিং। ডন ব্র্যাডম্যানের ৯৬১ রেটিং পয়েন্টের রেকর্ড ছিল নাগালেই। কিন্তু বল টেম্পারিং বিতর্কে নিষিদ্ধ হওয়ার পর সেই রেকর্ড থেকেও দূরে সরতে থাকেন স্মিথ। ফেরার পর আবার শুরু হলো ব্র্যাডম্যানের রেকর্ডের পানে ছোটা।

টেস্ট ব্যাটসম্যানদের শীর্ষ দুইয়ে আগের মতোই আছেন বিরাট কোহলি ও কেন উইলিয়ামসন। এজবাস্টন টেস্টের প্রথম ইনিংসে ফিফটি করে সাত থেকে ছয়ে উঠেছেন ইংলিশ অধিনায়ক জো রুট।

এজবাস্টনে অস্ট্রেলিয়ার জয়ের আরেক নায়ক ন্যাথান লায়ন বোলারদের র‌্যাঙ্কিংয়ে এগিয়েছেন ৬ ধাপ। ম্যাচে ৯ উইকেট নিয়ে এই অফ স্পিনার উঠে এসেছেন ১৩ নম্বরে।

আগে থেকেই বোলারদের র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে থাকা প্যাট কামিন্স আরও সংহত করেছেন নিজের অবস্থান। এই টেস্টেই ৭ উইকেট নেওয়ার পর এই ফাস্ট বোলারের রেটিং পয়েন্ট দাঁড়িয়েছে ৮৯৮, গত ৫০ বছরে যা অস্ট্রেলিয়ান বোলারদের মধ্যে তৃতীয় সর্বোচ্চ।


ট্যাগ:  স্মিথ  অস্ট্রেলিয়া