আর্চারের বোলিং তোপে ইংল্যান্ডের লিড

  • স্পোর্টস ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2019-09-14 01:17:59 BdST

স্টিভেন স্মিথের ব্যাটে রানের জোয়ার চলছেই। তবে ব্যর্থ তার সতীর্থরা। জফরা আর্চারের দুর্দান্ত বোলিংয়ের সামনে ধসে পড়ল অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটিং। স্মিথকে থামিয়ে ইংল্যান্ড পেল গুরুত্বপূর্ণ লিড।

অ্যাশেজের ওভাল টেস্টের প্রথম ইনিংসে ইংল্যান্ডের ২৯৪ রানের জবাবে অস্ট্রেলিয়া অলআউট হয়েছে ২২৫ রানে। ইংল্যান্ড দ্বিতীয় দিন শেষ করেছে দ্বিতীয় ইনিংসে বিনা উইকেটে ৯ রান নিয়ে। দুই ইনিংস মিলিয়ে স্বাগতিকরা এগিয়ে ৭৮ রানে।

অস্ট্রেলিয়া ইনিংসের সর্বোচ্চ রান যথারীতি এসেছে স্টিভেন স্মিথের ব্যাট থেকে। তবে সেই সর্বোচ্চ সিরিজে স্মিথের নিজের সর্বনিম্ন। ফিরেছেন ৮০ রানে!

এবারের সিরিজে স্মিথের যে অবিশ্বাস্য ফর্ম, তাতে তাকে ৮০ রানে ফেরানোও ইংল্যান্ডের জন্য কম পাওয়া নয়।

স্মিথের উইকেট নিতে পারেননি আর্চার। তবে বাকিদের গুঁড়িয়ে দিয়েছেন। ৬২ রানে নিয়েছেন ৬ উইকেট।

ইংল্যান্ডের প্রথম ইনিংসের শেষভাগ দিয়ে ছিল দ্বিতীয় দিনের শুরু। শুক্রবার ৮ উইকেটে ২৭১ রান নিয়ে শুরু করা ইংলিশরা আর যোগ করতে পারে ২৩ রান।

আগের দিন ৬৪ রানে অপরাজিত থাকা জস বাটলার ফেরেন ৭০ রানে। শেষ উইকেট নিয়ে মিচেল মার্শ পূরণ করেন ক্যারিয়ারের প্রথম ৫ উইকেট।

অস্ট্রেলিয়া ব্যাট করতে নেমে বিপদে পড়ে শুরুতেই। দুঃস্বপ্নের মতো কাটানো সিরিজে ডেভিড ওয়ার্নার ব্যর্থ আবার। এবার যদিও স্টুয়ার্ট ব্রডের বলে আউট হননি। তবে ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারেই ফিরেছেন আর্চারের বলে। আরেক ওপেনার হ্যারিসকেও ফেরান আর্চার।

তৃতীয় উইকেটে মার্নাস লাবুশেন ও স্মিথ গড়েন ৬৯ রানের জুটি। ৪৮ রানে লাবুশেনকে ফিরিয়ে এই জুটিও ভাঙেন আর্চার।

এরপর এক পাশে রান করে গেছেন স্মিথ। আরেক পাশে উইকেট পড়েছে নিয়মিত বিরতিতে। কেউই লম্বা সময় সঙ্গ দিতে পারেননি স্মিথকে। আর্চারের পাশে জ্বলে ওঠেন এই ম্যাচের একাদশে ফেরা স্যাম কারানও।

তবে এ দিন খুব ভালো বোলিং করতে না পারলেও ইংল্যান্ডকে সবচেয়ে কাঙ্ক্ষিত উইকেট এনে দেন ক্রিস ওকস। তার একটি সোজা বলে লাইন মিস করে বসেন স্মিথ। এলবিডব্লিউ হয়ে যান ৮০ রানে। সিরিজের ৬ ইনিংসে তার রান এখন ৭৫১।

শেষ দিকে ন্যাথান লায়ন ও পিটার সিডলের ৩৭ রানের জুটি কিছুটা কমায় ব্যবধান। তারপরও ইংল্যান্ড পায় উল্লেখযোগ্য লিড।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

ইংল্যান্ড ১ম ইনিংস:  ২৯৪

অস্ট্রেলিয়া ১ম ইনিংস: ৬৮.৫ ওভারে ২২৫ (ওয়ার্নার ৫, হ্যারিস ৩, লাবুশেন ৪৮, স্মিথ ৮০, ওয়েড ১৯, মার্শ ১৭, পেইন ১, কামিন্স ০, সিডল ১৮, লায়ন ২৫, হেইজেলউড ১*; ব্রড ১২-৩-৪৫-০, আর্চার ২৩.৫-৯-৬২-৬,  কারান ১৭-৬-৪৬-৩, ওকস ১০-২-৫১-১, লিচ ৬-১-১৮-০)।

ইংল্যান্ড ২য় ইনিংস: ৪ ওভারে ৯/০(বার্নস ৪*, ডেনলি ১*; কামিন্স ২-২-০-০, হেইজেলউড ২-১-৫-০)


ট্যাগ:  ইংল্যান্ড  ম্যাচ রিপোর্ট  আর্চার  অস্ট্রেলিয়া  টেস্ট