বাজে বোলিং, ফিল্ডিংকে দুষলেন সাকিব

  • ক্রীড়া প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2019-09-15 23:11:39 BdST

bdnews24
ছবি: আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ড

আফগানিস্তান ম্যাচে একের পর এক ভুল করে গেছে বাংলাদেশ। তাইজুল ইসলামের ‘নো’ বলের জন্য গুরুত্বপূর্ণ সময়ে পড়েনি উইকেট। অতিরিক্ত থেকে এসেছে ১৮ রান। শেষ ১০ ওভারে বাজে বোলিংয়ে হজম করতে হয়েছে ১০৪ রান। এই বিষয়গুলো পার্থক্য গড়ে দিয়েছে বলে মনে করেন সাকিব আল হাসান।

ত্রিদেশীয় সিরিজে রোববার নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে ২৫ রানে হেরেছে বাংলাদেশ। ম্যাচ শেষে সাকিব জানান, গুরুত্বপূর্ণ সময়ে ভুল করায় মাশুল দিতে হয়েছে তাদের।

“আমরা যেভাবে শুরু করেছিলাম, সেখান থেকে ওরা শেষ ১০ ওভারে করেছে ১০৪ রান। এটা আমাদের জন্য খুব হতাশাজনক ব্যাপার ছিল। সে সময়ে আমরা সেভাবে উইকেট নিতে পারিনি। ওদের রান করতে দিয়েছি।”

“শেষ ১০ ওভারে ওরা ১০এর বেশি করে রান করেছে। যেখানে ওরা ৪০ রানে ৪ উইকেট ছিল। ওরা যেভাবেই সামাল দিক, ওদেরও কৃতিত্ব দিতেই হয়। আমাদেরও দোষ আছে অবশ্যই।”

সাকিবের প্রথম দুই ওভারে বাই হয় দুটি বাউন্ডারি। অতিরিক্ত থেকে পরেও রান দিয়ে গেছে বাংলাদেশ। তবে সাকিব মনে করেন, সবচেয়ে বেশি ভুগিয়েছে তাইজুলের ‘নো’ বল।

“আমার মনে হয় ‘নো’ বলটা আমাদের অনেক ভুগিয়েছে। অতিরিক্ত রানও আমাদের অনেক ভুগিয়েছে। আমাদের মনে হয় ১৮ রান অতিরিক্ত গেছে। সেখানে আমরা অনেক পেছনে পড়ে গেছি।”

“তাইজুলের যে ওভারে রান বেরিয়ে গেল সেই ওভারে নো বলটা না হলে ৫/৬ রান দিত, উইকেট একটা যেত। মোমেন্টাম আমাদের দিকে থাকতো। ওই ওভারে ১৬ রান আসে। টি-টোয়েন্টিতে নো বল একটা অপরাধ। এই অপরাধের মাশুল আমাদের দিতে হয়েছে।”

অনেক ভুল করার পরও খুব বড় ব্যবধানে না হারায় আশার আলো দেখছেন সাকিব। অধিনায়ক মনে করেন, আফগানিস্তানের বিপক্ষে জয় থেকে বেশি দূরে ছিল না তার দল।

“এতো কিছুর পরও আমরা মাত্র ২৫ রানে হেরেছি। যদিও টি-টোয়েন্টিতে ২৫ রান অনেক বড় ব্যবধান। ১০ ওভারে ওরা যে অবস্থায় ছিল তাতে মনে হয়নি ওরা খুব ভালো ব্যাটিং করলেও ১৩৫ রানের বেশি করতে পারবে। কারণ, ওদের এরপর খুব বেশি ব্যাটসম্যান ছিল না। আমরা সে সময় উইকেট নিতে ব্যর্থ হয়েছি। ওদেরকে ম্যাচে ফেরার সুযোগটা করে দিয়েছি।” 


ট্যাগ:  বাংলাদেশ  ত্রিদেশীয় সিরিজ  সাকিব