১৯ নভেম্বর ২০১৯, ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

ম্যাচেই ঘুরে দাঁড়ানোর পথ খুঁজছিলেন ৩ পেসার

  • রাজকোট থেকে ক্রীড়া প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2019-11-08 16:03:23 BdST

bdnews24

কি করা যায়?-এক পেসার জিজ্ঞেস করছিলেন আরেক জনকে। প্রায় প্রতি ওভার শেষে নিজেদের মধ্যে কথা বলতে দেখা যাচ্ছিল আল আমিন হোসেন, মুস্তাফিজুর রহমান ও শফিউল ইসলামকে। ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের ঝড় থামিয়ে ঘুরে দাঁড়ানোর পথ খুঁজছিলেন তিন পেসার।

রাজকোটে বৃহস্পতিবার পেসারদের ওপর চড়াও হয়ে ডানা মেলেন রোহিত শর্মা। তাকে যতক্ষণে থামান লেগ স্পিনার আমিনুল ইসলাম ততক্ষণে ম্যাচ ঢুকে গেছে ভারতের মুঠোয়। বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে শফিউল জানান, ওভারের ফাঁকে ফাঁকে কথা বলে নতুন পরিকল্পনা সাজিয়ে নিচ্ছিলেন তারা।

“আমি আল আমিন আর মুস্তাফিজ বলছিলাম যে, যেটা হওয়ার হয়ে গেছে আমাদের দৃঢ়ভাবে ঘুরে দাঁড়াতে হবে। ঠিক লাইন-লেংথ পরিবর্তন করা নিয়ে কথা বলছিলাম না, আলোচনা করছিলাম কিভাবে ব্যাটসম্যানদের বেঁধে রাখা যায়, তা নিয়ে। ম্যাচ কতটা ক্লোজ করা যায়। এই ম্যাচেই কিভাবে ঘুরে দাঁড়ানো যায় সেটা নিয়ে কথা বলছিলাম।”

“আসলে, এই উইকেট খুব ভালো ছিল ব্যাটিংয়ের জন্য। রোহিত শর্মা খুব সুন্দর ব্যাটিং করেছে। ওর ভালো দিন গিয়েছে কাল। যা চেষ্টা করেছে, সেটাই পেরেছে। আমরাও ছোট ছোট ভুল করেছি। প্রথম ম্যাচে সেসব ভুল ছিল না। পরের ম্যাচে যেন ভুল না করি সেটা নিয়ে আমরা কাজ করছি।”

পেসারদের ওপর দায়িত্ব একটু বেশি। পাওয়ার প্লেতে বোলিং করতে হবে, আবার শেষ চার-পাঁচ ওভারও সামলাতে হবে তাদের। দলকে জেতাতে তাই নিজেদের কাঁধে অনেক দায়িত্ব দেখছেন শফিউল।

“আমরা যে তিন জন পেস বোলার আছি, আমরা সাধারণত মূল ওভারগুলোতে, পাওয়ার প্লেতে কিংবা শেষের চার-পাঁচ ওভারে বেশি বল করি। পেস বোলাররা যদি ভালো করতে পারি, যেটা প্রথম ম্যাচে করতে পেরেছি, ভালো একটা শুরু এনে দিতে পারি, ভালোভাবে শেষ করতে পারি, ওদের আটকে দিতে পারি, তবে ব্যাটসম্যানদের জন্য সুবিধা হবে। জেতার সুযোগ থাকবে।”


ট্যাগ:  বাংলাদেশ  শফিউল  বাংলাদেশ-ভারত সিরিজ  মুস্তাফিজ  আল আমিন