‘উইকেট আনপ্লেয়েবল ছিল না’

  • ইন্দোর থেকে ক্রীড়া প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2019-11-14 20:15:13 BdST

bdnews24
ছবি: বিসিসিআই

বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের আসা-যাওয়ার মাঝে উইকেট পুরোপুরি ‘বোলিং সহায়ক’ বলে মনে হচ্ছিল। ব্যাটসম্যানরা যেন আউট হতে পারেন যে কোনো বলে। এতোটা আনপ্লেয়েবল কি ছিল ইন্দোরের উইকেট? জবাবে মুমিনুল হক জানালেন, উইকেট অতটা কঠিন ছিল না। তবে বিশ্বের সেরা বোলিং আক্রমণের বিপক্ষে ব্যাটিংয়ে কিছু ভুল সিদ্ধান্তেই অল্পতে গুটিয়ে গেছে দল। 

ভারতের বিপক্ষে প্রথম টেস্টের প্রথম দিন ১৫০ রানে গুটিয়ে গেছে বাংলাদেশ। অর্ধশত রানের জুটি কেবল একটি। কেউ যেতে পারেননি পঞ্চাশ পর্যন্ত। প্রতিপক্ষের ফিল্ডাররা পাঁচটি ক্যাচ ছাড়লেও এর সুবিধা নিতে পারেননি কোনো ব্যাটসম্যান।

ভারত দিন শেষ করেছে ১ উইকেটে ৮৬ রান নিয়ে। বাংলাদেশের বেশিরভাগ ব্যাটসম্যান যেখানে দাঁড়াতেই পারেননি, সেখানে বেশ সাবলীল ছিলেন মায়াঙ্ক আগারওয়াল ও চেতেশ্বর পুজারা।

দিনের খেলা শেষে বাংলাদেশের প্রতিনিধি হিসেবে সংবাদ সম্মেলনে আসা মুমিনুল মনে করেন, ক্রিজে আরও বেশি মনোযোগী হলে, ভালো সিদ্ধান্ত নিতে পারলে চিত্রটা ভিন্ন হতে পারতো।

“উইকেট আনপ্লেয়েবল ছিল না, উইকেট কোনোভাবেই আনপ্লেয়েবল ছিল না। আমার মনে হয়, ওদের বোলিং এই মুহূর্তে বিশ্বের সেরা। তাদের বিপক্ষে খেলতে হলে আমাদের অনেক বেশি চৌকস হতে হবে।”

“উইকেট আনপ্লেয়েবল হলে কেউ কেউ চোট পেত, তেমন কিছু হয়নি। আনপ্লেয়েবল হলে আমি কিছু রান করতে পারতাম না, মুশফিক ভাইও কিছু রান করতে পারত না। উইকেট খেলার মতোই ছিল, কিন্তু সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষেত্রে আমরা মনোযোগী হতে পারিনি।”


ট্যাগ:  বাংলাদেশ  মুমিনুল  বাংলাদেশ-ভারত সিরিজ