সুড়ঙ্গের শেষে আলো দেখছেন মুমিনুল

  • কলকাতা থেকে ক্রীড়া প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2019-11-24 17:49:22 BdST

bdnews24

দেশের বাইরে শেষ ১১ ইনিংসে স্রেফ ৭৬ রানের বাজে রেকর্ড নিয়ে ভারত সফর শুরু করা মুমিনুল হক আবারও ব্যর্থ। ক্যারিয়ারে প্রথমবারের মতো গড় নেমে এসেছে ৪০-এর নিচে। বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যানের আশা, শিগগির কাটবে দুঃসময়, আবার হাসবে তার ব্যাট।

ইন্দোরে ফিরতে পারতেন ৩ রানে। রবিচন্দ্রন অশ্বিনের বলে রাহানে স্লিপে ক্যাচ ছাড়ায় বেঁচে যাওয়া মুমিনুল শেষ পর্যন্ত করেন ৩৭ রান। পরের ইনিংসে ফিরেন ৭ রান করে। কলকাতায় দুই ইনিংসেই ফিরেন শূন্য রানে। সিরিজে ৪ ইনিংসে অধিনায়কের রান কেবল ৪৪।

বাংলাদেশ দুই টেস্টই হেরেছে তিন দিনে এবং ইনিংস ব্যবধানে। দল ভালো করছে না, নিজের ব্যাটেও রান নেই। নিজের চেয়ে দল নিয়েই ভাবনা বেশি মুমিনুলের।

“আমি গড় নিয়ে বেশি ভাবছি না। দলের ফল নিয়ে একটু হতাশ। সেটা স্বাভাবিকও। যখন এমন ফল হয় তখন খারাপ লাগা স্বাভাবিক।”

ভারত সিরিজ শেষে মুমিনুলের গড় ৩৯.৬৫। সফরে আসা বাংলাদেশের দলের ক্রিকেটারদের মধ্যে সবচেয়ে ভালো প্রস্তুতি ছিল বাঁহাতি এই টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানের। খেলেছিলেন ভারতে একটি টুর্নামেন্টে। বাংলাদেশ এ দলের হয়ে সফর করেছিলেন শ্রীলঙ্কা, জাতীয় লিগেও খেলেন তিন ম্যাচ।

এরপরও রান না পাওয়ায় বেশ হতাশ মুমিনুল। তবে সুড়ঙ্গের শেষে আলো দেখছেন তিনি।

“আমি এখন সংগ্রাম করছি। লড়াই করেই মানুষ ভালো কিছু পায়, হয়তো আমিও পাবো।”

অধিনায়ক হিসেবে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিতে পারেননি। এটাও পোড়াচ্ছে তাকে।

“আমার ব্যক্তিগতভাবে সুযোগ ছিল অধিনায়ক হিসেবে। এই জায়গায় কাজে লাগাতে পারিনি। অধিনায়ক হিসেবে সবার পুরোপুরি সমর্থন পেয়েছি। মুশফিক ভাই, (মাহমুদউল্লাহ) রিয়াদ ভাই থেকে শুরু করে সবার সমর্থন পেয়েছি। ম্যানেজমেন্ট থেকে অবশ্যই সমর্থন পেয়েছি।”


ট্যাগ:  বাংলাদেশ  মুমিনুল  বাংলাদেশ-ভারত সিরিজ