কর্নওয়ালের ৭ উইকেটে ঘায়েল আফগান ব্যাটিং

  • ক্রীড়া প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2019-11-27 19:32:04 BdST

‘আমাদের আছে বিশ্ব সেরা স্পিনারদের তিনজন’-ম্যাচের আগে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে একরকম হুমকি দিয়ে রেখেছিলেন আফগানিস্তান কোচ ল্যান্স ক্লুজনার। কিন্তু ম্যাচের প্রথম দিনে দেখা গেল উল্টো চিত্র। ক্যারিবিয়ান স্পিনেই বিধ্বস্ত আফগান ব্যাটিং। মাত্র দ্বিতীয় টেস্ট খেলতে নামা অফ স্পিনার রাকিম কর্নওয়াল একাই নিলেন ৭ উইকেট।

লক্ষ্ণৌতে আফগানিস্তান-ওয়েস্ট ইন্ডিজের একমাত্র টেস্টের প্রথম দিনে ছিল স্পিনারদের দাপট। কর্নওয়ালের স্পিনে আফগানিস্তান গুটিয়ে গেছে ১৮৭ রানেই। আফগান স্পিনাররা এরপর শুরুতেই নিয়ে নেয় ওয়েস্ট ইন্ডিজের ২ উইকেট। পরে অবশ্য আর উইকেট না হারিয়ে ক্যারিবিয়ানরা দিন শেষ করেছে ৬৮ রানে।

টস জিতে ক্যারিবিয়ান অধিনায়ক জেসন হোল্ডার বোলিং নিয়েছিলেন উইকেটের শুরুর আর্দ্রতা কাজে লাগাতে। তবে সময় যত গড়াল, দেখা গেল প্রথম দিনেই স্পিনারদের জন্য সহায়তা অনেক। তাতেই জ্বলে উঠেছেন কর্নওয়াল।

আফগানদের শুরুটা যদিও খারাপ ছিল না। দুই ওপেনার ইব্রাহিম জাদরান ও জাভেদ আহমাদি নির্বিঘ্নে কাটিয়ে দেন প্রথম ১২ ওভার। এই জুটি ভেঙেই কর্নওয়ালের শিকার শুরু। ফিরিয়ে দেন ১৭ রান করা ইব্রাহিমকে।

সেই ধাক্কা সামলে দ্বিতীয় উইকেটে দলকে এগিয়ে নেন আহমাদি ও ইহসানউল্লাহ। ৫৬ রানের এই জুটি ভাঙেন জোমেল ওয়ারিক্যান। এক বছর পর টেস্ট খেলতে নামা বাঁহাতি স্পিনার ফিরিয়ে দেন আহমাদিকে। ৮১ বলে ৩৯ রান করা আহমাদি আউট হন লাঞ্চের একটু আগে অযথাই উড়িয়ে মারতে গিয়ে।

ছবি: আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ড

ছবি: আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ড

সেই উইকেটেই আফগানদের ধসের শুরু। কর্নওয়ালের দুর্দান্ত বোলিংয়ে লাঞ্চের আগে-পরে তারা হারাতে থাকে একের পর এক উইকেট। ১ উইকেটে ৮৪ থেকে তাদের রান হয়ে যায় ৭ উইকেটে ১১১!

লাঞ্চের আগে-পরে টানা ২১ ওভারের ম্যারাথন স্পেলে টেস্ট ক্যারিয়ারে প্রথম পাঁচ উইকেটের স্বাদ পান কর্নওয়াল।

অষ্টম উইকেটে অভিষিক্ত আমির হামজাকে নিয়ে ৫৪ রানের জুটিতে আফগানদের কিছুটা উদ্ধার করেন কিপার ব্যাটসম্যান আফসার জাজাই। চা বিরতির আগে শেষ ওভারে কর্নওয়ালের বলে ৩২ রানে আউট হয়ে থামে আফসার লড়াই।

৩৪ রানে হামজাকে ফেরান হোল্ডার। শেষ দিকে ৩ চার ও ১ ছক্কায় ইয়ামিন আহমাদজাই করেন ১৮। তাকেও থামিয়ে আফগান ইনিংস শেষ করে দেন কর্নওয়াল।

৭৫ রানে ৭ উইকেট নেন কর্নওয়াল। ম্যাচের প্রথম ইনিংসে কোনো ক্যারিবিয়ান স্পিনার ৭ উইকেট পেলেন ৬২ বছর পর। সবশেষ ১৯৫৭ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে বার্মিংহামে পেয়েছিলেন অফ স্পিনার সনি রামাধিন।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ব্যাটিংয়ে নেমে ২ উইকেট হারায় ৩৪ রানের মধ্যে। অভিষিক্ত বাঁহাতি স্পিনার হামজার বলে এলবিডব্লিউ হয়ে যান ক্রেইগ ব্র্যাথওয়েট। ফর্মে থাকা শেই হোপকে দারুণ ডেলিভারিতে ফেরান রশিদ খান। বাকি সময়টায় আর কোনো উইকেট পড়তে দেননি জন ক্যাম্পবেল ও শামার ব্রুকস।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

আফগানিস্তান ১ম ইনিংস: ৬৮.৩ ওভারে ১৮৭ (ইব্রাহিম ১৭, আহমাদি ৩৯, ইহসানউল্লাহ ২৪, রহমত ৪, আসগর ৪, নাসির ২, আফসার ৩২, রশিদ ১, হামজা ৩৪, ইয়ামিন ১৮, জহির ০*; রোচ ৮-১-৩৩-০, হোল্ডার ১৭-১০-২২-২, কর্নওয়াল ২৫.৩-৫-৭৫-৭, ওয়ারিক্যান ১৩-১-৩৫-১, চেইস ৫-০-১০-০)

ওয়েস্ট ইন্ডিজ: ২২ ওভারে ৬৮/২ (ব্রাথওয়েট ১১, ক্যাম্পবেল ৩০*, হোপ ৭, ব্রুকস ১৯*; ইয়ামিন ৪-১-৯-০, হামজা ৮-১-২৫-১, রশিদ ৮-২-২৪-১, জহির ২-০-১০-০)


ট্যাগ:  ম্যাচ রিপোর্ট  কর্নওয়াল  ওয়েস্ট ইন্ডিজ  আফগানিস্তান