তিনশ করার সুযোগ তো দিল না: মুশফিক

  • ক্রীড়া প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-02-24 19:17:16 BdST

bdnews24

ডাবল সেঞ্চুরি যখন নাগালে, মুশফিকুর রহিম তখন ভাবছিলেন ট্রিপল সেঞ্চুরি নিয়ে। ভাবছিলেন, তৃতীয় দিন অপরাজিত থেকে চতুর্থ দিনে ছুটবেন তিনশর পথে। কিন্তু হুট করে বার্তা পেলেন, আজই ইনিংস ছাড়বে দল। তাতে বেশ অবাক মুশফিক। ডাবল সেঞ্চুরিতে থামতে হওয়ায় একটু হতাশও। তবে এটিও জানিয়ে দিয়েছেন, দলের চাওয়াই তার কাছে সবকিছুর ওপরে।

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে মিরপুর টেস্টের তৃতীয় দিন শেষ সেশনে ডাবল সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন মুশফিক। তার একটু পরই ইনিংস ঘোষণা করে বাংলাদেশ। তৃতীয় ডাবল সেঞ্চুরিতে মুশফিক তখন অপরাজিত ২০৩ রানে।

দিনের খেলা শেষে সংবাদ সম্মেলনে জানালেন, তিনশতে চোখ ছিল তার।

“আমার একটা পরিকল্পনা ছিল। সত্যি বলতে কী, আমি ভাবিনি এই সময়ে ইনিংস ঘোষণা করে দেবে। এখনও দুই দিন সময় আছে। তার চেয়েও বড় কথা, আমরা যত ব্যাটিং করব, উইকেট তত ভাঙতেও পারত। চা-বিরতির সময় আমাদের এমন কোনো আলোচনা হয়নি। আধ ঘণ্টার একটু আগে জানতে পারি, আজ ওদের ৬ থেকে ৮ ওভারের মতো দেব আমরা। এরপর আমরা একটু রানের গতি বাড়ানোর চেষ্টা করেছি।”

“আগে পরিকল্পনা ছিল, একপাশে যদি লিটন থাকে, আমার জন্য সুবিধা হয়। আমার ভাবনা ছিল, ও যদি একশ করে, তাহলে আমারও হয়তো রান তিনশর কাছে চলে যাবে। আজকে হতো না, কাল প্রথম সেশনে হয়ে যেতে পারত। আবার একই সঙ্গে বলতে হবে, দলই সবসময় আগে আসবে। এখন পর্যন্ত যেটা হয়েছে, দলীয়ভাবে আমরা খুব ভালো একটা অবস্থানে আছি।”

বড় ইনিংস খেলার চাওয়া ঠিকই পূরণ হয়েছে মুশফিকের। তবে সেখানেও ফুটে উঠল, তিনশর পথে ছুটতে না পারার হতাশা।

“৪০-৫০-৬০ কিংবা ১০০-১২০ ভালো স্কোর, কিন্তু ম্যাচ ঘুরিয়ে দেওয়ার মতো কিছু না। আমার মনে হয়, এমন উইকেট পেলে অন্তত দেড়শ হলো ম্যাচ জেতানো ইনিংস। আমরা এই পরিকল্পনা করেছি। একটা লক্ষ্য স্থির করতে পেরেছি। আর তিনশ করার তো সুযোগ দিল না। সুযোগ দিলে হয়তো বা চেষ্টা করতাম!”

বাংলাদেশের ইনিংস ঘোষণার সিদ্ধান্তে ভূমিকা থাকতে পারে আবহাওয়ার পূর্বাভাসেরও। মঙ্গলবার বৃষ্টির শঙ্কা আছে ঢাকায়। মুশফিক অবশ্য সিদ্ধান্তের পেছনের কারণ নিয়ে ঠিক নিশ্চিত নন।

“হতে পারে আবহাওয়ার জন্য। আমি এখনও জিজ্ঞেস করিনি। আমাদের একটা মানসম্পন্ন একটা বোলিং আক্রমণ আছে। আশা করছি, জেতার জন্য আমাদের এই ইনিংসটাই যথেষ্ট হবে।”

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে আগের টেস্টেই ২১৯ রানের ইনিংস খেলেছিলেন মুশফিক। টেস্টে যা বাংলাদেশের সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত ইনিংসের রেকর্ড। ট্রিপল সেঞ্চুরি কি সম্ভব কারও পক্ষে? মুশফিকের পাল্টা প্রশ্ন, কেন নয়!

“গতবার যখন জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ডাবল সেঞ্চুরি করেছিলাম, তখনও কিন্তু এই প্রশ্ন আমাকে করা হয়েছিল। তখনও আমি বলেছিলাম, অবশ্যই সম্ভব। শুধু আমার নয়, টপ অর্ডারে যারাই ব্যাট করে, তাদের সবার জন্যই সম্ভব। শান্ত যদি কাল পুরোটা সময় খেলে আজ চা-বিরতি পর্যন্ত থাকত ওরও হয়ে যেতে পারত বা আড়াইশর কাছে যেত। কারণ, ও ঘরোয়া ক্রিকেটেও করেছে। যদি ভবিষ্যতে সুযোগ আসে তাহলে কেন নয়?”

“আপনি যদি বিশ্ব ক্রিকেটের দিকে তাকান অনেকেরই দুইটা-তিনটা করে ট্রিপল সেঞ্চুরি আছে। তারা যদি করতে পারে আমাদের ক্রিকেটাররা কেন পারবে না?”


ট্যাগ:  বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে  বাংলাদেশ  মুশফিক