টেইলরদের হতাশা ও কষ্ট বাড়ানো বিরতি

  • স্পোর্টস ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-04-12 17:55:28 BdST

আইসিসির পূর্ণ সদস্য হলেও অন্য দেশগুলোর মতো নিয়মিত খেলার সুযোগ পায় না জিম্বাবুয়ে। তবে এবারের প্রেক্ষাপট ছিল ভিন্ন; বছর জুড়ে তাদের ছিল ব্যস্ত সূচি। কিন্তু করোনাভাইরাসের ছোবলে থমকে গেছে ক্রিকেট। জিম্বাবুয়ের জন্য যা ভীষণ হতাশার বলে মনে করেন দেশটির অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান ব্রেন্ডন টেইলর।

জিম্বাবুয়ে ক্রিকেটে এমনিতেই আছে নানা সমস্যা। মাঝে বোর্ড পরিচালনায় সরকারি হস্তক্ষেপে নিষিদ্ধও হতে হয়েছিল তাদের। এই বছর যদিও পাল্টাতে শুরু করেছিল চিত্র।

জিম্বাবুয়ে ২০২০ সাল শুরু করেছিল দেশের মাটিতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ দিয়ে। এরপর তারা বাংলাদেশ সফরে খেলে পূর্ণাঙ্গ সিরিজ। এ মাসে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে খেলার কথা ছিল ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজ, করোনাভাইরাসের প্রভাবে স্থগিত হয়ে গেছে সেটি। সামনে আফগানিস্তান, অস্ট্রেলিয়া, ভারত ও নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে সিরিজ নিয়েও রয়েছে অনিশ্চয়তা।

কোভিড-১৯ এর প্রভাব পড়েছে পুরো বিশ্বের প্রায় সব ধরনের খেলার ওপরই। তবে জিম্বাবুয়ে ক্রিকেটের ক্ষতি তুলনামূলক অনেক বেশি, দেশটির সাপ্তাহিক ‘দা স্ট্যান্ডার্ড’-কে এমনটাই বলেছেন টেইলর।

“ব্যক্তিগতভাবে আমি মনে করি, এই বিরতি আমাদের কোনো উপকারে আসছে না। আমরা এমন একটি দল, যাদের এখন নিয়মিত ক্রিকেট খেলা উচিত। আমরা কখনোই যথেষ্ট ক্রিকেট খেলতে পারি না। এই বছর আমাদের আন্তর্জাতিক সূচি ছিল ঠাসা, কিন্তু এখন এই মহামারীতে সব ভেস্তে যেতে বসেছে। সময়টা তাই আমাদের জন্য ভীষণ হতাশার ও কষ্টের।”

“তবে প্রাণঘাতী এই ভাইরাসে মানুষ প্রাণ হারাচ্ছে, তাদের প্রিয়জনকে হারাচ্ছে। দিন শেষে ক্রিকেট তো জীবনের চেয়ে গুরুত্বপূর্ণ নয়। তাই নয় কি?”

সঙ্কটকালীন এই সময়ে অসহায় মানুষদের সহায়তায় সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বানও জানান টেইলর। এক্ষেত্রে খেলোয়াড়রা কার্যকর ভূমিকা রাখতে পারেন বলে মনে করেন তিনি।


ট্যাগ:  জিম্বাবুয়ে  টেইলর