পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

ধাওয়ান-রোহিত জুটির শক্তি ‘বন্ধুত্ব ও বিশ্বাস’

  • স্পোর্টস ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-06-11 11:49:25 BdST

bdnews24

২২ গজে দুজনের বন্ধন মজবুত। সেখানে চিড় ধরানো সব প্রতিপক্ষের জন্যই কঠিন। তবে অটুট সেই বাঁধন গড়ে উঠেছে মাঠের বাইরে! শিখর ধাওয়ান জানালেন, রোহিত শর্মার সঙ্গে মাঠের বাইরের সম্পর্কের গভীরতা থেকেই দুজনের জুটি এতটা সফল।

২০১৩ চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে প্রথমবার একসঙ্গে ওয়ানডেতে ওপেন করেছিলেন রোহিত ও ধাওয়ান। প্রথম ম্যাচেই দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে দুজনে গড়েছিলেন ১২৭ রানের জুটি। পরের ম্যাচে ছিল আরেকটি শতরানের জুটি, পরের দুই ম্যাচে জুটি অর্ধশত রানের।

সেই ধারাবাহিকতায় গত সাত বছরের সবচেয়ে সফল ওয়ানডে উদ্বোধনী জুটি তারা, নিজেদের তুলে নিয়েছেন সর্বকালের সেরা জুটিগুলির উচ্চতায়। ইনিংসের শুরুতে ওয়ানডে ইতিহাসে তাদের চেয়ে বেশি রান আছে আর কেবল তিনটি জুটির, তাদের চেয়ে বেশি সেঞ্চুরি মাত্র এক জুটির।

জুটির এই সাফল্যের পেছনে গল্প শোনা গেল আইপিএল দল দিল্লি ক্যাপিটালসের আয়োজনে ধাওয়ানের ইনস্টাগ্রাম সাক্ষাৎকারে।

“অনূর্ধ্ব-১৯ পর্যায়ের দিনগুলি থেকেই ওকে চিনি আমি। আমার চেয়ে দু-এক বছরের ছোট ছিল, একসঙ্গে ক্যাম্প করেছিলাম আমরা। আমরা পরস্পরকে বিশ্বাস করি, আমাদের বন্ধুত্ব দারুণ। এটিই আমাদের পক্ষে কাজ করে।”

“আমরা দুজনই পরস্পরের ধরণ ও মানসিকতা জানি। রোহিত কেমন, আমি পুরোপুরি জানি। ভারতের হয়ে আমরা এত ভালো করেছি, এই অনুভূতি দারুণ গর্বের।”

ধাওয়ান জানালেন, পরস্পরকে খুব গভীরভাবে জানেন বলে ব্যাটিংয়েও সেটির ইতিবাচক প্রভাব পড়ে।

“দুজনের সবকিছু যখন মিলে যায়, তা দারুণ প্রাণশক্তি ও ইতিবাচক আবহ বয়ে আনে। ব্যাটিংয়ে কখনও কোনো সমস্যা অনুভব করলেই আমি ওকে জিজ্ঞেস করি। মাঠে আমাদের যোগাযোগ দারুণ। আর আমরা তো বছরের ২৩০ দিন একসঙ্গে থাকি, ভ্রমণ করি। এজন্যই পুরো ভারতীয় দল একটা বড় পরিবার।”