ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ৪ দিনে টেস্ট জেতার পরামর্শ লারার!

  • স্পোর্টস ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-07-07 18:12:49 BdST

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্টে পাঁচ দিন টিকতে পারবে না ওয়েস্ট ইন্ডিজ, মনে করেন ব্রায়ান লারা। তাই উত্তরসূরিদের চার দিনের মধ্যে জেতার চেষ্টার পরামর্শ দিলেন ক্যারিবিয়ান কিংবদন্তি এই ব্যাটসম্যান।

ইংল্যান্ড-ওয়েস্ট ইন্ডিজ তিন টেস্টের সিরিজ শুরু হবে বুধবার সাউথ্যাম্পটনে, বাংলাদেশ সময় বিকেল ৪টায়।

সফরকারী দলের বোলিং লাইন-আপ বেশ শক্তিশালী। তবে ব্যাটিং নিয়ে রয়েছে দুঃশ্চিন্তা। সবশেষ ২০১৭ সালের ইংল্যান্ড সফরের পর থেকে ১৯ টেস্টে দলটির ব্যাটসম্যানরা রান করেছেন মাত্র ২৩.৫৯ গড়ে।

লারা জানেন, ঘরের মাঠে ইংলিশদের হারানো কতটা কঠিন। বিবিসিকে মঙ্গলবার দেওয়া সাক্ষাৎকারে স্বদেশি খেলোয়াড়দের জন্য কিছু পরামর্শ দিয়েছেন ৫১ বছর বয়সী এই ক্যারিবিয়ান।

“তাদের দ্রুত আঘাত করার সমর্থ্য থাকতে হবে। ইংল্যান্ডকে তাদের মাঠে খুব সহজে হারানো যায় না, সেখানে তারা দারুণ ফেভারিট।”

ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে ১৩১ টেস্টে ১১ হাজার ৯৫৩ রান করা সাবেক এই তারকা মনে করেন, সিরিজ নির্ভর করছে ক্যারিবিয়ানরা কত দ্রুত ইংলিশ কন্ডিশনে খাপ খাইয়ে নিতে পারে তার ওপর।

“আমি মনে করি না, ওয়েস্ট ইন্ডিজ পাঁচ দিন টিকবে। তাই ম্যাচগুলো তাদের চার দিনের হিসেবে নেওয়া উচিত। শুরুতেই তাদের আধিপত্য প্রতিষ্ঠা করতে হবে এবং তা বজায় রাখতে হবে।”

সিরিজের পরের দুই টেস্ট হবে ম্যানচেস্টারের ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে। সবগুলো ম্যাচই হবে ‘জীবাণুমুক্ত পরিবেশে’ ও দর্শকশূন্য স্টেডিয়ামে।

সিরিজের প্রস্তুতির জন্য গত ৯ জুন থেকে ইংল্যান্ডে আছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ দল। উইজডেন ট্রফির বর্তমান চ্যাম্পিয়ন তারাই; গত বছর ঘরের মাঠে তারা ইংলিশদের হারিয়েছিল ২-১ ব্যবধানে। তবে ১৯৮৮ সালের পর থেকে ইংল্যান্ডে সিরিজ জিততে পারেনি দলটি।

করোনাভাইরাসের কারণে তৈরি হওয়া লম্বা বিরতির পর এই সিরিজ দিয়েই মাঠে ফিরতে যাচ্ছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট। আলোচনার কেন্দ্রে থাকা সিরিজটিতে দারুণ লড়াই আশা করছেন টেস্টে ৩৪ সেঞ্চুরির মালিক লারা।

“এটা এমন একটা সিরিজ হতে যাচ্ছে যার দিকে সারা বিশ্বের নজর থাকবে এবং সবাই প্রতিযোগিতামূলক একটা সিরিজ দেখার অপেক্ষায় আছে। তাই ওয়েস্ট ইন্ডিজ জিততে পারলে ক্যারিবিয়ানদের জন্য তা বিশেষ কিছু।”

“সিরিজের প্রথম দিনে যদি তারা ভালো খেলে, ইংল্যান্ডের বিপক্ষে পারফরম করার দৃঢ়তা যদি দেখাতে পারে, তাহলে সেটাই হবে ওয়েস্ট ইন্ডিজের সাফল্যের চাবিকাঠি।”


ট্যাগ:  ইংল্যান্ড  ওয়েস্ট ইন্ডিজ  লারা  টেস্ট