স্টোকস-সিবলির সেঞ্চুরির পর চাপে উইন্ডিজ

  • স্পোর্টস ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-07-18 00:29:48 BdST

উইকেটে বোলারদের জন্য বেশ সহায়তা আছে, কন্ডিশনও সহায়ক। ইংলিশ ব্যাটসম্যানদের দারুণ পরীক্ষা নিলেন ক্যারিবিয়ান পেসাররা। মাটি কামড়ে কঠিন সময় পার করে দেওয়া বেন স্টোকস, ডম সিবলি পেলেন সেঞ্চুরির দেখা। তাদের আড়াইশ ছাড়ানো জুটিতে দ্বিতীয় টেস্টের প্রথম ইনিংসে বড় সংগ্রহ গড়েছে ইংল্যান্ড। জবাবে ইনিংসের শুরুটা ভালো হয়নি ওয়েস্ট ইন্ডিজের; দিনের শেষ বেলায় হারিয়েছে উইকেট।

ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে শুক্রবার ৩ উইকেটে ২০৭ রান নিয়ে দিন শুরু করা ইংল্যান্ড ৯ উইকেটে ৪৬৯ রানে প্রথম ইনিংস ঘোষণা করে। জবাবে ইনিংসের শুরুতেই ধাক্কা খাওয়া ওয়েস্ট ইন্ডিজের দ্বিতীয় দিন শেষে সংগ্রহ ১ উইকেটে ৩২ রান। ক্রেইগ ব্র্যাথওয়েট ৬ ও নাইটওয়াচম্যান আলজারি জোসেফ ১৪ রানে ব্যাট করছেন।

নিয়ম ভেঙে এই ম্যাচে নেই জফ্রা আর্চার। বিশ্রাম দেওয়া হয়েছে জেমস অ্যান্ডারসন ও মার্ক উডকে। নতুন চেহারার বোলিং আক্রমণ শুরুতেই ভেঙে দেয় ওয়েস্ট ইন্ডিজের উদ্বোধনী জুটি।

বোলিংয়ে এসে নিজের প্রথম ওভারে জন ক্যাম্পবেলকে এলবিডব্লিউ করেন স্যাম কারান। জো রুটের সফল রিভিউয়ে ১২ রানে থামেন ক্যারিবিয়ান ওপেনার।   

দিনের শুরু থেকে আকাশ ছিল মেঘে ঢাকা। সুইং বোলিংয়ের আদর্শ কন্ডিশন কাজে লাগিয়ে আগের দিনের দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যানকে চেপে ধরে ক্যারিবিয়ানরা। সিবলি ও স্টোকস যেন ছিলেন ধৈর্যের প্রতিমূর্তি।

চোয়ালবদ্ধ দৃঢ়তায় দুই ব্যাটসম্যান কাটিয়ে দেন কঠিন সময়। প্রথম সেশনে যোগ করেন কেবল ৫৭ রান। লাঞ্চের আগে ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় সেঞ্চুরি তুলে নেন ওপেনার সিবলি। ৯৯ রানে থেকে বিরতিতে যান অলরাউন্ডার স্টোকস।

মাটি কামড়ে ক্রিজে পড়ে থাকা দুই ব্যাটসম্যানকে বিচ্ছিন্ন করতে বেশ ভুগতে হয়েছে ক্যারিবিয়ানদের। রানের গতি বাড়ানোর চেষ্টায় রোস্টন চেইসের বলে সিবলির বিদায়ে ভাঙে ২৬০ রানের জুটি। ইংলিশ ওপেনারের ৩৭২ বলে খেলা ১২০ রানের দায়িত্বশীল ইনিংস গড়া পাঁচ চারে।

দ্বিতীয় সেশনে শট খেলতে শুরু করেন স্টোকস। রিভার্স সুইপ করে বাউন্ডারি হাঁকিয়ে পৌঁছান সেঞ্চুরিতে, ক্যারিয়ারের দশম সেঞ্চুরি। পরে ছক্কায় ওড়ান জোসেফকে। তাকে খুব একটা সঙ্গ দিতে পারেননি অলি পোপ। এলবিডব্লিউ হয়ে যান অফ স্পিনার চেইসের বলে।

বাটলারকে নিয়ে দলকে বড় সংগ্রহের পথে রাখেন স্টোকস। তাকে ফিরিয়েই চার ইনিংস পর উইকেটের স্বাদ পান কেমার রোচ। এই পেসারকে সুইচ হিট করতে গিয়ে শেন ডাওরিচকে ক্যাচ দিয়ে থামেন ইংলিশ অলরাউন্ডার। ৩৫৬ বলে খেলা তার ১৭৬ রানের দারুণ ইনিংস গড়া ১৭ চার ও দুই ছক্কায়।

পরের বলেই ক্রিস ওকসকে ফিরিয়ে দেন রোচ। তার হ্যাটট্রিক ঠেকিয়ে দেন দলে ফেরা কারান। প্রথম টেস্টে দুই ইনিংসেই শেষ দিকে দ্রুত উইকেট হারিয়েছিল ইংল্যান্ড। পরের ব্যাটসম্যানদের দৃঢ়তায় এবার অবশ্য তেমনটা হয়নি।

শেষের দিকে ওয়ানডে ঘরানার ব্যাটিংয়ে দ্রুত রান তোলার চেষ্টায় ছিল ইংল্যান্ড। সেই চেষ্টায় ফিরেন জস বাটলার, কারান। দশম উইকেটে মূল্যবান ৪২ রান যোগ করেন ডম বেস ও স্টুয়ার্ট ব্রড। ২৬ বলে এক ছক্কা ও তিন চারে ৩১ রানে অপরাজিত ছিলেন বেস।

আগের দিন দুই উইকেট পাওয়া চেইস পেয়েছেন আরও তিনটি। ৪৪ ওভারে এই অফ স্পিনার পাঁচ উইকেট নিতে দিয়েছেন ১৭২ রান। রোচ ২ উইকেট পেয়েছেন ৫৮ রানে। 

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

ইংল্যান্ড ১ম ইনিংস: (আগের দিন ২০৭/৩) ১৬২ ওভারে ৪৬৯/৯ ইনিংস ঘোষণা (সিবলি ১২০, স্টোকস ১৭৬, পোপ ৭, বাটলার ৪০, ওকস ০, কারান ১৭, বেস ৩১*, ব্রড ১১*; রোচ ৩৩-৯-৫৮-২, গ্যাব্রিয়েল ২৬-২-৭৯-০, জোসেফ ২৩.১-৫-৭০-১, হোল্ডার ৩২-১০-৭০-১, চেইস ৪৪-৩-১৭২-৫, ব্র্যাথওয়েট ৩.৫-০-৯-০)

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ১ম ইনিংস: ১৪ ওভারে ৩২/১ (ব্র্যাথওয়েট ৬*, ক্যাম্পবেল ১২, জোসেফ ১৪*; ব্রড ৫-১-১৪-০, ওকস ৪-৩-২-০, কারান ৩-১-৮-১, বেস ২-০-৮-০)


ট্যাগ:  ইংল্যান্ড  ম্যাচ রিপোর্ট  ওয়েস্ট ইন্ডিজ  স্টোকস  চেইস  টেস্ট