পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

চারজনের পাওনার সমস্যাকে বিসিবি বলছে ‘বিচ্ছিন্ন ঘটনা’

  • ক্রীড়া প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-08-04 19:05:07 BdST

bdnews24

ক্রিকেটারদের আন্তর্জাতিক সংগঠন ফিকার যে জরিপে ক্রিকেটারদের পারিশ্রমিক সংক্রান্ত ঝামেলায় বিপিএলের নাম উঠে এসেছে, সেই প্রতিবেদনের কিছু বিষয়কে ‘বিভ্রান্তিকর ও ত্রুটিপূর্ণ’ (মিসলিডিং অ্যান্ড মিসইনফর্মড) বলে দাবি করেছে বিসিবি। তিনজন ক্রিকেটার ও একজন কোচের পাওনা নিয়ে ঝামেলার কথা অবশ্য স্বীকার করছে বোর্ড। তবে তাদের মতে, বড় আয়োজনের লিগে এটি একটি ‘বিচ্ছিন্ন ঘটনা।’

ফিকার বার্ষিক প্রতিবেদনে পুরুষ ক্রিকেটারদের ‘গ্লোবাল এমপ্লয়মেন্ট রিপোর্ট ২০২০’-এ বলা হয়েছে, ৬টি ঘরোয়া লিগে ক্রিকেটারদের পারিশ্রমিক দেরিতে দেওয়া হয় বা একদমই দেওয়া হয় না। এই তালিকায় আইসিসি পূর্ণ সদস্য দেশগুলোর একমাত্র টুর্নামেন্ট হিসেবে আছে বিপিএলের নাম।

ফিকার সেই প্রতিবেনের প্রেক্ষিতেই মঙ্গলবার বিবৃতি দিয়েছে বিসিবি। ‘মাত্র’ চারজনের পারিশ্রমিক নিয়ে ঝামেলা হওয়াকে বিবৃতিতে বলা হয়েছে বিচ্ছিন্ন ঘটনা।

“বিসিবি স্পষ্টভাবে বলতে চায় যে, বিপিএলে পাওনা সংক্রান্ত একমাত্র অমিমাসিংত/বিতর্কিত সমস্যা হলো ২০১৮ সালে অনুষ্ঠিত বিপিএলের ষষ্ঠ আসরে অংশ নেওয়া একটি নির্দিষ্ট দলের তিনজন বিদেশি ক্রিকেটার ও একজন বিদেশি কোচের পাওনা। ১৭০ জনের বেশি দেশি-বিদেশি ক্রিকেটার ও সাপোর্ট স্টাফ যে টুর্নামেন্টে চুক্তিবদ্ধ ছিল, সেখানে এটি একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা।”

ফিকার প্রতিবেদন আলোচনায় আসার পর বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের সদস্য সচিব ইসমাইল হায়দার মল্লিক বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেছিলেন, নিলামের বাইরে চুক্তিবদ্ধ ক্রিকেটারদের ক্ষেত্রে এই সমস্যা হতে পারে। বিসিবির বিবৃতিতেও সেরকম ইঙ্গিত দিয়ে জানানো হলো, আইনি প্রক্রিয়াও শুরু করা হয়েছে।

“এই বছরের জানুয়ারি থেকে এপ্রিলের মধ্যে ক্রিকেটার ও কোচদের প্রতিনিধিদের কাছ থেকে বিসিবি এই অভিযোগ পায় যে, এই ফ্র্যাঞ্চাইজি তাদের চুক্তির বাধ্যবাধকতা মানেনি এবং পারিশ্রমিক দেয়নি। ফ্র্যাঞ্চাইজির চুক্তি অনুযায়ী, চুক্তিবদ্ধ ক্রিকেটার ও সাপোর্ট স্টাফদের পাওনা পুরোপুরি পরিশোধ করা ফ্র্যাঞ্চাইজিরই দায়িত্ব।”

“তার পরও, নিয়ন্ত্রক সংস্থা হিসেবে বিসিবি এটির যথাযথ তদন্ত করেছে এবং পাওনা পরিশোধে ও সমস্যা সমাধানের জন্য সংশ্লিষ্ট ফ্র্যাঞ্চাইজির বিরুদ্ধে আইনি প্রক্রিয়া শুরু করেছে। এটাও জানানো হচ্ছে যে, সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি ও তাদের প্রতিনিধিরা বিসিবির পদক্ষেপ সম্পর্কে অবগত আছেন।”