‘৫০০ ম্যাচ খেলেছি, যাকে ইচ্ছা সাহায্য করতে পারি’

  • স্পোর্টস ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-09-29 10:42:25 BdST

bdnews24

এখন সৌরভ গাঙ্গুলির পরিচয় ভারতের ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান, তবে জীবনের সবচেয়ে বড় পরিচয় তার ক্রিকেটার সত্ত্বা। সেটিই মনে করিয়ে দিলেন ভারতের সাবেক অধিনায়ক। স্বার্থের সংঘাত নিয়ে সমালোচনার প্রশ্নে সৌরভের অকপট উত্তর, যে কোনো ক্রিকেটারকে সহায়তা করার অধিকার তার আছে।

বিতর্কের সূত্রপাত শ্রেয়াস আইয়ারের একটি মন্তব্যের পর থেকে। আইপিএলে দিল্লি ক্যাপিটালসকে নেতৃত্বে দিচ্ছেন তরুণ এই ব্যাটসম্যান। নিজের এগিয়ে চলার পথে সহায়তার জন্য তিনি দলের প্রধান কোচ রিকি পন্টিংয়ের পাশাপাশি কৃতিত্ব দেন সৌরভের অবদানকে।

শ্রেয়াসের মন্তব্যের পর থেকেই প্রশ্ন উঠতে থাকে, একজন বোর্ড প্রধান হয়ে বোর্ডের আয়োজিত টুর্নামেন্টে কোনো অধিনায়ককে তিনি সাহায্য করতে পারেন কিনা। অনেকেই এখানে খুঁজে পাচ্ছেন স্বার্থের সংঘাত।

প্রচারণামূলক একটি অনুষ্ঠানে এই বিতর্কের জবাব দিলেন সৌরভ।

“ আমি ওকে সহায়তা করেছি গত বছর। হতে পারি আমি বোর্ড সভাপতি, তবে এটাও ভুলে যাবেন না, ভারতের হয়ে আমি ৫০০ ম্যাচ খেলেছি (আসলে ৪২১ টি)। তরুণ কোনো ক্রিকেটার বা যে কাউকে আমি সাহায্য করতেই পারি। সেটা শ্রেয়াস আইয়ার হোক বা বিরাট কোহলি, সাহায্য কেউ চাইলে আমি করতেই পারি।”

২০১৯ আইপিএলে দিল্লির মেন্টর ছিলেন সৌরভ, তখনও তিনি বোর্ড প্রধান নন। বিতর্ক শুরু হওয়ার পর শ্রেয়াসও টুইটারে নিজের মন্তব্যের ব্যাখ্যা করেন আবার।

“ তরুণ অধিনায়ক হিসেবে, গত মৌসুমে আমার পথচলায় সহায়তার জন্য রিকি (পন্টিং) ও দাদার (সৌরভ) কাছে আমি কৃতজ্ঞ। অধিনায়ক হিসেবে আমার এগিয়ে চলায় তাদের অবদানের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানানোর জন্যই ছিল আমার ওই মন্তব্য।”


ট্যাগ:  শ্রেয়াস  ভারত  সৌরভ