পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

ধোনির চিৎকারে ওয়াইড দিলেন না আম্পায়ার!

  • স্পোর্টস ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-10-14 12:53:05 BdST

অফ স্টাম্পের অনেকটা বাইরের বল। দুই হাত তুলে ওয়াইডের সঙ্কেত দিতে উদ্যত আম্পায়ার। উইকেটের পেছন থেকে চিৎকার  করে ও শরীরী ভাষায় আপত্তি জানালেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। আম্পায়ার পল রাইফেলও হাত নামিয়ে ফেললেন। ওয়াইড নয়! আইপিএলের ম্যাচে এই কাণ্ড নিয়ে বিতর্ক চলছে তুমুল।

দুবাইয়ে মঙ্গলবার চেন্নাই সুপার কিংস ও সানরাইজার্স হায়দরাবাদের ম্যাচের শেষ দিকের ঘটনা সেটি। শেষ দুই ওভারে হায়দরাবাদের প্রয়োজন ছিল ২৭ রান। ১৯তম ওভার বোলিং করছিলেন শার্দুল ঠাকুর।

ওভারের প্রথম বলে দুই রান নেন ব্যাটসম্যান রশিদ খান। পরের বলটি শার্দুল করেন অফ স্টাম্পের বাইরে, ওয়াইড দেন আম্পায়ার। পরের বলটি আবারও ছিল অফ স্টাম্পের অনেক বাইরে। রশিদ ব্যাট চালালেও বলে স্পর্শ কতে পারেননি। আম্পায়ার রাইফেল দুই হাত অনেকটাই তুলে ফেলেছিলেন ওয়াইডের সঙ্কেত দেওয়ার জন্য। কিন্তু উইকেটের পেছন থেকে ধোনির প্রতিবাদ, সঙ্গে বোলার শার্দুলও আপত্তি করলে চট করে হাত নামিয়ে ফেলেন রাইফেল।

টিভি রিপ্লেতে দেখা যায়, বল ছিল ওয়াইডের দাগের বাইরে। আম্পায়ারের কাণ্ডে ডাগ আউট থেকে উঠে দাঁড়িয়ে শরীরী ভাষায় বিস্ময় প্রকাশ করেন হায়দরাবাদের অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নার।

বিস্ময়ের ছড়াছড়ি তখন ধারাভাষ্যকক্ষেও। তারা বুঝেই উঠতে পারছিলেন না শুরুতে। মাইকেল স্ল্যাটার বলছিলেন, “ মনে হচ্ছে তিনি (আম্পায়ার) তৃতীয় আম্পায়ারের সঙ্গে পরীক্ষা করে দেখছেন… তবে জানি না, পরীক্ষার কী আছে… মনে হচ্ছিল, আম্পায়ারের দুই হাত উঠতে যাচ্ছে… খুবই কৌতূহলোদ্দীপক… আমি বুঝতে পারছি না।”

পাশ থেকে সুনীল গাভাস্কার বলছিলেন, “ তারা হয়তো দেখছেন যে বলে ব্যাট ছুঁয়েছে কিনা… কিন্তু ব্যাটে যদি বল লাগে তাহলে তো ক্যাচ আউট হবে, বল সোজা ধোনির হাতে গিয়েছে।”

আম্পায়ারের কাণ্ডে ওয়ার্নারের বিস্ময়

আম্পায়ারের কাণ্ডে ওয়ার্নারের বিস্ময়

পাশ থেকেই কেভিন পিটারসেন যোগ করেন, “ আমি একদম পুরোপুরি নিশ্চিত যে তার (আম্পায়ারের) হাত উঠতে দেখেছি এবং এরপর তার দিকে প্রচুর চিৎকার-চেঁচামেচি হয়েছে। তার পর যেন তিনি সিদ্ধান্ত বাদ দিলেন…।”

এরপর টিভি রিপ্লেতে স্পষ্টই দেখা যায়, হাত অনেকটুকু তুলেও পরে নামিয়ে ফেলেন রাইফেল। রিপ্লে দেখে পিটারসেন আবার বলেন, “ দেখুন, সে ঠিকই সঙ্কেত দিতে যাচ্ছিল, তার পর তার দিকে চিৎকার করা হয়।”

ওই ওভারের শেষ বলে আউট হয়ে যান রশিদ। ম্যাচটি শেষ পর্যন্ত ২০ রানে জিতেছে ধোনির দল।

আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত বদল নিয়ে ধোনির বিতর্কে জড়ানো এবারই প্রথম নয়। গত আসরে রাজস্থান রয়্যালসের বিপক্ষে চেন্নাইয়ের পক্ষে একটি নো-বল দেওয়ার পর লেগ আম্পায়ারের সঙ্গে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত বদলে ফেলেছিলেন মূল আম্পায়ার। এরপর ডাগ আউট থেকে মাঠে ছুটে গিয়ে ধোনি তর্ক করেন আম্পায়ারদের সঙ্গে। ওই ঘটনায় ম্যাচ ফির ৫০ শতাংশ জরিমানা হয়েছিল তার।