একাদশে না থেকেও ভারতকে জেতালেন চেহেল

  • স্পোর্টস ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-12-04 18:41:48 BdST

bdnews24
ছবি: বিসিসিআই

একাদশে জায়গা পাননি যুজবেন্দ্র চেহেল। ম্যাচের অর্ধেক পর্যন্তও তিনি ছিলেন বাইরের একজন। কিন্তু ব্যাটিংয়ের সময় রবীন্দ্র জাদেজার হেলমেটে বল লাগায় আচমকাই সুযোগ এলো চেহেলের সামনে। কনকাশন বদলি হিসেবে মাঠে নেমে এই লেগ স্পিনার হয়ে গেলেন ভারতের জয়ের নায়ক!

দারুণ বোলিংয়ে এই চেহেলের শিকার গুরুত্বপূর্ণ তিন উইকেট। তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ভারতের জয় ১১ রানে।

যার বদলি হিসেবে নামেন তিনি, সেই জাদেজা বড় অবদান রাখেন ম্যাচের প্রথম ভাগে। ওপেনিংয়ে লোকেশ রাহুলের ফিফটি ও শেষ দিকে জাদেজার ঝড়ো ব্যাটিংয়ে ২০ ওভারে ভারত তোলে ১৬১ রান। অস্ট্রেলিয়া থমকে যায় ১৫০ রানে।

একাদশে না থাকা চেহেল ২৫ রানে ৩ উইকেট নিয়ে ম্যান অব দা ম্যাচ। অভিষিক্ত বাঁহাতি পেসার থাঙ্গারাসু নাটরাজন ৩ উইকেট নেন ৩০ রানে।

তিন বছর পর অস্ট্রেলিয়ার হয়ে টি-টোয়েন্টি খেলতে নেমে দারুণ বোলিংয়ে ৩ উইকেট নেওয়ার পর ব্যাট হাতে ২০ বলে ৩০ করেন মোইজেস হেনরিকস। কিন্তু তা যথেষ্ট হয়নি দলের জয়ের জন্য।

টস জিতে বোলিংয়ে নামা অস্ট্রেলিয়াকে শুরুতে উইকেট এনে দেন মিচেল স্টার্ক। দারুণ এক সুইঙ্গিং ডেলিভারিতে তিনি উপড়ে দেন শিখর ধাওয়ানের স্টাম্প। তিনে নেমে অধিনায়ক বিরাট কোহলি ৯ রান করে ফিরতি ক্যাচ দেন লেগ স্পিনার মিচেল সোয়েপসনকে।

রান বাড়ানোর কাজটি করেছেন তখন মূলত রাহুল। সাঞ্জু স্যামসন নামার পর দুই দিক থেকেই আসতে থাকে রান। রাশ টেনে ধরেন তখন হেনরিকস। এই দুজনকেই থামান তিনি। ১৫ বলে ২৩ করে ফেরেন স্যামসন, ৪০ বলে ৫১ রান করেন রাহুল।

হেনরিকস পরে ফেরান হার্দিক পান্ডিয়াকেও। দেড়শ তখন ভারতের জন্য অনেক দূরের পথ। পাল্টা আক্রমণে চিত্র পাল্টে দেন জাদেজা। ২৩ বলে ৪৪ রানের দারুণ ইনিংস খেলেন তিনি। শেষ ৪ ওভারে ভারত তোলে ৫৭ রান।

ওই ইনিংসের সময় স্টার্কের একটি বল লাগে জাদেজার হেলমেটে। তখন কোনো অস্বস্তি দেখা যায়নি তাকে দেখে। ব্যাটিং চালিয়ে গেছেন, দারুণ সব শটও খেলেছেন। তবে বল হেলমেটে লাগার কারণেই মাঝবিরতিতে তার কনকাশন বদলি হিসেবে চেহেলকে নেয় ভারত। এটা নিয়ে ম্যাচ রেফারি ডেভিড বুনের সঙ্গে কথা বলতে দেখা যায় অস্ট্রেলিয়া কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গারকে। তার অভিব্যক্তিতে বিরক্তি ছিল স্পষ্ট।

সেই চেহেলই সর্বনাশ করে ছাড়েন ল্যাঙ্গারদের। অস্ট্রেলিয়াকে ভালো শুরু এনে দিয়েছিলেন অ্যারন ফিঞ্চ ও ডার্সি শর্ট। চেহেল আক্রমণে এসে প্রথম ওভারেই ফেরান ফিঞ্চকে (২৬ বলে ৩৫)। পরের ওভারে তার শিকার দুর্দান্ত ফর্মে থাকা স্টিভেন স্মিথ।

দীর্ঘক্ষণ উইকেটে থাকা শর্ট (৩৮ বলে ৩৪) ও বিপজ্জনক গ্লেন ম্যাক্সওয়েলকে ফিরিয়ে ম্যাচ ভারতের নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসেন নাটরাজন। নিজের শেষ ওভারে চেহেল ফেরান ম্যাথু ওয়েডকে।

হেনরিকস আশা জাগিয়েও পারেননি বড় কিছু করতে। পরে লোয়ার অর্ডারদের সৌজন্যে ব্যবধান কিছুটা কমাতে পারে অস্ট্রেলিয়া।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

ভারত: ২০ ওভারে ১৬১/৭ (রাহুল ৫১, ধাওয়ান ১, কোহলি ৯, স্যামসন ২৩, মনিশ ২, পান্ডিয়া ১৬, জাদেজা ৪৪*, সুন্দর ৭, চাহার ০*; স্টার্ক ৪-০-৩৪-২, হেইজেলউড ৪-০-৩৯-০, জ্যাম্পা ৪-০-২০-১, অ্যাবট ২-০-২৩-০, সোয়েপসন ২-০-২১-১, হেনরিকেস ৪-০-২২-৩)।

অস্ট্রেলিয়া:  ২০ ওভারে ১৫০/৭ (শর্ট ৩৪, ফিঞ্চ ৩৫, স্মিথ ১২, ম্যাক্সওয়েল ২, হেনরিকেস ৩০, ওয়েড ৭, অ্যাবট ১২*, স্টার্ক ০, সোয়েপসন ১২*; চাহার ৪-০-২৯-১, সুন্দর ৪-০-১৬-০, শামি ৪-০-৪৬-০, নাটরাজন ৪-০-৩০-৩, চেহেল ৪-০-২৫-৩)।

ফল: ভারত ১১ রানে জয়ী।

সিরিজ: ৩ ম্যাচ সিরিজে ভারত ১-০তে এগিয়ে।

ম্যান অব দা ম্যাচ: যুজবেন্দ্র চেহেল।


ট্যাগ:  অস্ট্রেলিয়া  ভারত