পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

শুভাগতর ব্যাটে ঢাকার লড়াই

  • ক্রীড়া প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-03-30 18:23:23 BdST

bdnews24
অপরাজিত ৮৯ রানের ইনিংস এসেছে শুভাগত হোমের ব্যাট থেকে।

বল হাতে আলো ছড়ানোর পর ব্যাট হাতেও দলকে টানছেন শুভাগত হোম চৌধুরি। জাতীয় ক্রিকেট লিগে এই অলরাউন্ডারের অপরাজিত ফিফটিতে সিলেট বিভাগের বিপক্ষে লড়ছে ঢাকা বিভাগ।

প্রথম স্তরের ম্যাচে মঙ্গলবার ঢাকার সংগ্রহ ৬ উইকেটে ২৩৯ রান। দ্বিতীয় দিন শেষে এখনও তারা ১৩১ রানে পিছিয়ে। প্রথম ইনিংসে সিলেট করে ৩৭০।

৮৯ রানে ব্যাট করছেন শুভাগত, ৩৪ রানে আরাফাত সানি জুনিয়র। ওয়ানডে মেজাজের ব্যাটিংয়ে অবিচ্ছিন্ন সপ্তম উইকেট জুটিতে তারা যোগ করেছেন ৬৯ বলে ৬৯ রান।

রাহাতুল ফেরদৌস ৬৫ রানে নিয়েছেন ৩ উইকেট। চোট কাটিয়ে ফেরার ম্যাচে এখন পর্যন্ত ২ উইকেট নিয়েছেন তানজিম হাসান। গত বছরের ৯ ফেব্রুয়ারি হওয়া যুব বিশ্বকাপের ফাইনালের পর এই প্রথম খেলতে নামলেন তিনি।

কক্সবাজারের শেখ কামাল ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট স্টেডিয়াম একাডেমি গ্রাউন্ডে ৬ উইকেটে ২৮২ রান নিয়ে দিন শুরু করে সিলেট। লোয়ার অর্ডার ব্যাটসম্যানদের নিয়ে দলকে চারশ রানের কাছে নিয়ে যান আসাদউল্লাহ।

সিলেটের রান তিনশ ছাড়ানোর পর এনামুল হক জুনিয়রকে বিদায় করেন নাজমুল ইসলাম। ফিরতি ক্যাচ নিয়ে অভিষিক্ত তানজিমকে বিদায় করেন শুভাগত।

তাইবুর রহমানের বলে স্টাম্পড হন আবু জায়েদ। শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে ফেরার আগে আসাউল্লাহ করেন ক্যারিয়ার সেরা ৬৭ রান। তার ১৪০ বলের ইনিংসে চারটি চারের পাশে ছক্কা দুটি। তার আগের সেরা ৫৯।

বল হাতে সিলেটের শুরুটা ছিল দারুণ। ঢাকার ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারেই আঘাত হানেন তরুণ বাঁহাতি পেসার রুয়েল মিয়া। প্রথম স্লিপে রাহাতুলের হাতে ধরা পড়েন আব্দুল মজিদ।

প্রথম রাউন্ডে রংপুরকে হারানো ঢাকা শুরুর ধাক্কা সামাল দেয় আরেক ওপেনার জয়রাজ শেখ ও তিনে নামা সাইফ হাসানের ব্যাটে। ১৫৮ বলে দুজনে গড়েন ৮২ রানের জুটি। তবে দুজনের কেউই ইনিংস বড় করতে পারেননি।

রাহাতুলের স্পিনে লং অনে ক্যাচ দেন ৭৬ বলে পাঁচ চার ও এক ছক্কায় ৪২ রান করা সাইফ।

দুই ওভার পর জোড়া আঘাত হানেন তানজিম। মাহিদুল ইসলাম অঙ্কনের পর জয়রাজকেও কট বিহাইন্ড করেন এই তরুণ পেসার। দেড় বছর পর মাঠে নামা জয়রাজ ৯৪ বলে পাঁচ চারে করেন ৪১ রান।

তাইবুরকে বেশিক্ষণ টিকতে দেননি রাহাতুল।

ছয় রানের মধ্যে ৪ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়া ঢাকা প্রতিরোধ গড়ে শুভাগত ও নাদিফ চৌধুরির ব্যাটে। থিতু হওয়া নাদিফকে ফিরিয়ে ১২২ বল স্থায়ী ৭৭ রানের জুটি ভাঙেন রাহাতুল।

এরপর আর কোনো ক্ষতি হতে দেননি শুভাগত ও সানি জুনিয়র। ৯৫ বলে অপরাজিত ৮৯ রানের ইনিংসে ১১টি চারের পাশাপাশি একটি ছক্কা হাঁকিয়েছেন শুভাগত। ৩৬ বলে সানি জনিয়ারের অপরাজিত ৩৪ রানের ইনিংসে চার পাঁচটি, একটি ছক্কা।

১৩ ওভারে ৪১ রান দিয়ে উইকেটশূন্য জাতীয় দলের পেসার আবু জায়েদ।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

সিলেট ১ম ইনিংস: (আগের দিন ২৮২/৬) ১১৪.৪ ওভারে ৩৭০ (আসাদুল্লাহ ৬৭, এনামুল জুনিয়র ১৪, তানজিম ১১, আবু জায়েদ ১৯, রুয়েল ১*; সুমন ১৭-২-৫৫-২, শাকিল ১৬-২-৫৬-১, অপু ৩৫-৩-১২২-১, শুভাগত ২৯-৪-৮৬-৪, সানি জুনিয়র ১-০-৬-০, তাইবুর ১৪.৪-০-৩১-২, সাইফ ৫-১-১৩-০)।

ঢাকা প্রথম ইনিংস: ৬৩ ওভারে ২৩৯/৬ (জয়রাজ ৪১, মজিদ ০, সাইফ ৪২, মাহিদুল ২, তাইবুর ৩, শুভাগত ৮৯*, নাদিফ ১৬, সানি জুনিয়র ৩৪*; আবু জায়েদ ১৩-১-৪১-০, রুয়েল ১৫-২-৪৪-১, তানজিম ১২-১-৪২-২, রাহাতুল ১৪-১-৬৫-৩, এনামুল জুনিয়র ৯-২-৪৫-০)