পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

ধোনির উপলব্ধি, তার কারণে হারতে পারত দল

  • স্পোর্টস ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-04-20 11:49:10 BdST

bdnews24

টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে শেষ ৫-৬ ওভারে উইকেটে গিয়ে যদি থিতু হতে সময় লাগে, দলের জন্য তাহলে বিপদ। মহেন্দ্র সিং ধোনির সেটি না বোঝার কারণ নেই। চেন্নাই সুপার কিংস অধিনায়ক নিজেই বলছেন, তার কারণে ভুগতে পারত দল।

একসময় ধোনি মানেই ছিল রানের জোয়ার। চার-ছক্কার নিয়মিত প্রদর্শনী তো থাকতই, এক-দুই নেওয়াতেও তার জুড়ি মেলা ছিল ভার। সময়ের থাবায় সেই ধোনি এখন অনেকটাই অচেনা।

আইপিএলে সোমবার রাজস্থান রয়্যালসের বিপক্ষে ম্যাচে সাত নম্বরে ব্যাটিংয়ে নামেন ধোনি। ম্যাচের তখন ১৪তম ওভার। প্রথম পাঁচ বলে তিনি কোনো রানই নিতে পারেননি। ষষ্ঠ বলে প্রথম রানের দেখা পান সিঙ্গেল নিয়ে।

এরপরও ছন্দ খুঁজে পাননি। ১১ বলে তার রান ছিল ৬। পরে অবশ্য দুটি বাউন্ডারিতে কিছুটা পুষিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেন। শেষ পর্যন্ত আউট হন ১৭ বলে ১৮ রান করে। তবে সতীর্থদের সম্মিলিত অবদান চেন্নাইকে এনে দেয় ১৮৮ রানের পুঁজি। টার্নিং উইকেটে যে রানের কাছাকাছিও যেতে পারেনি রাজস্থান। চেন্নাই ম্যাচ জেতে ৪৫ রানে।

ম্যাচের পর ধোনি বললেন, তার কারণেই আরও বড় হয়নি দলের রান।

“ আমি খুশি যে আমরা ১৯০ করতে পেরেছি (১৮৮)। তবে আরেকটু বেশি রান করা উচিত ছিল। আজকে প্রথম ছয় বলে আমি যা খেলেছি, অন্য কোনো দিন এরকম হলে হয়তো ম্যাচ হাতছাড়া হতে পারে। এই ব্যাপারগুলি মাথায় রাখতে হবে আমাদের, যত বেশি সম্ভব রান করতে হবে।”

ধোনির ব্যাটিংয়ের এই দুর্দশা বেশ কিছুদিন ধরেই। এবার প্রথম ম্যাচে তিনি আউট হন শূন্য রানে। গত আইপিএলেও ছিলেন নিজের ছায়া হয়ে।

তবে গত আইপিএল থেকে এবার একটি চোখে পড়ার মতো পার্থক্য, এখন বেশ ফিট ও চনমনে মনে হচ্ছে তাকে। ৩৯ বছর বয়সী এই কিপার-ব্যাটসম্যান বললেন, তরুণদের সঙ্গে লড়াইয়ে টিকে থাকার চেষ্টা করছেন তিনি।

“ যখন খেলছি, তখন অবশ্যই চাইব না যে কেউ বলুক আমি আনফিট। পারফরম্যান্সের নিশ্চয়তা দেওয়া যায় না। ২৪ বছর বয়সেও সেটির নিশ্চয়তা নেই, ৪০ বছর বয়সেও নেই। তবে অন্তত লোকে যেন ফিটনেস নিয়ে আঙুল তুলতে না পারে।”

“ তরুণদের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলতে হবে আমাকে। তারা অনেক দৌড়ায়, অনেক দ্রুতগতির। তাদেরকে চ্যালেঞ্জ জানাতে পারা দারুণ।”