পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

রিজওয়ান ও বোলারদের নৈপুণ্যে জিতল পাকিস্তান

  • স্পোর্টস ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-04-21 18:58:40 BdST

bdnews24
৮২ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলেছেন পাকিস্তান কিপার-ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ রিজওয়ান। ছবি: পিসিবি।

বাকি ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতার দিনে একাই লড়াই করলেন মোহাম্মদ রিজওয়ান। দারুণ এক ফিফটিতে এই ওপেনার পাকিস্তানকে এনে দিলেন লড়াই করার পুঁজি। পরে বোলারদের মিলিত চেষ্টায় প্রথম টি-টোয়েন্টিতে দারুণ এক জয় পেয়েছে বাবর আজমের দল।

হারারে স্পোর্টস ক্লাবে বুধবার জিম্বাবুয়েকে ১১ রানে হারিয়ে তিন ম্যাচের সিরিজে এগিয়ে গেছে পাকিস্তান। ১৫০ রানের লক্ষ্য তাড়ায় স্বাগতিকরা থেমে গেছে ১৩৮ রানে।

পাকিস্তানকে দেড়শ রানের পুঁজি এনে দেওয়া রিজওয়ান খেলেন ৮২ রানের দুর্দান্ত এক ইনিংস। বোলিংয়ে উজ্জ্বল উসমান কাদির। এই লেগ স্পিনার নেন ৩ উইকেট। তরুণ পেসার মোহাম্মদ হাসনাইনের প্রাপ্তি দুটি।

এদিন টস হেরে ব্যাটিংয়ে নামা পাকিস্তান ধাক্কা খায় শুরুতেই। দ্বিতীয় ওভারেই হারায় ছন্দে থাকা অধিনায়ক বাবরকে। জীবন পেয়েও ইনিংস বড় করতে পারেননি ফখর জামান। বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যানকে বোল্ড করে দেন ওয়েসলি মাধেভেরে। এই অফ স্পিনারের পরের ওভারে শিকার অভিজ্ঞ মোহাম্মদ হাফিজ।

এক প্রান্ত আগলে রেখে একাই লড়াই করে যান রিজওয়ান। ৪৮ বলে তুলে নেন ফিফটি। তাকে সঙ্গ দিতে পারেননি দানিশ আজিজ ও হায়দার আলিও। দুই জনকেই ফেরান পেসার লুক জংউই।

বাজে ফিল্ডিংয়ে জিম্বাবুয়ে বেশ কয়েকটি ক্যাচ ফেললেও সুবিধে করতে পারেননি পাকিস্তানের ব্যাটসম্যানরা। নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারানো দলটির রান তিন অঙ্কে যায় ষোড়শ ওভারে। ইনিংসে নেই কোনো পঞ্চাশ রানের জুটি।

শেষ ওভারে রিচার্ড এনগারাভাকে ৩ চার ও এক ছক্কায় উড়িয়ে ২০ রান নেন রিজওয়ান। এতে দেড়শর কাছে পৌঁছে পাকিস্তানের রান। রিজওয়ান অপরাজিত থাকেন ৮২ রান নিয়ে। তার ৬১ বলের ইনিংসে ১০ চারের পাশে একটি ছক্কা।

জবাব দিতে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি জিম্বাবুয়ের। পরপর দুই বলে ওয়েসলি মাধেভেরে ও অভিষিক্ত টাডিওয়ানাশে মারুমানিকে ফিরিয়ে দেন হাসনাইন।

২১ রানে দুই উইকেট হারানো দলের হাল ধরেন টিনাশে কামুনহুকামউই ও ক্রেইগ আরভিন। তাদের ব্যাটে লক্ষ্যের দিকে ভালোভাবেই এগিয়ে যাচ্ছিল স্বাগতিকরা। কামুনহুকামউইকে ফিরিয়ে পাকিস্তান শিবিরে স্বস্তি এনে দেন হাফিজ। ২৯ রান করে স্টাম্পড হন জিম্বাবুয়ে ওপেনার, ভাঙে ৫৬ রানের জুটি।

আরেক থিতু ব্যাটসম্যান আরভিনকে (৩৪) ফেরান উসমান। পরে চার বলের মধ্যে এই লেগ স্পিনার বিদায় করেন শন উইলিয়ামস ও রেজিস চাকাভাকে।

পাঁচ বছর পর দলে ফেরা জংউই ২৩ বলে ৩ চার ও এক ছক্কায় ৩০ রান করে অপরাজিত ছিলেন। কিন্তু দলতে জেতাতে তার চেষ্টা যথেষ্ট ছিল না।

আগামী শুক্রবার সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে মুখোমুখি হবে দুই দল।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

পাকিস্তান: ২০ ওভারে ১৪৯/৭ (রিজওয়ান ৮২*, বাবর ২, ফখর ১৩, হাফিজ ৫, আজিজ ১৫, হায়দার ৫, ফাহিম ১, নওয়াজ ৯, উসমান ২*; মাসাকাদজা ৩-০-২০-০, মুজারাবানি ৪-০-২২-১, এনগারাভা ৪-০-৪৮-২, জংউই ৩-০-২৪-২, মাধেভেরে ২-০-১১-২, বার্ল ৩-০-১৫-০, উইলিয়ামস ১-০-৭-০)।

জিম্বাবুয়ে: ২০ ওভারে ১৩৮/৭ (কামুনহুকামউই ২৯, মাধেভেরে ১৪, মারুমানি ০, আরভিন ৩৪, বার্ল ১৪, উইলিয়ামস ৯, চাকাভা ৩, জংউই ৩০*, মাসাকাদজা ২*; হাসনাইন ৪-০-২৭-২, ফাহিম ২-০-১৬-০, নওয়াজ ২-০-১৫-০, রউফ ৪-০-২৯-১, উসমান ৪-০-২৯-৩, হাফিজ ৪-০-২১-১)।

ফল: পাকিস্তান ১১ রানে জয়ী।

সিরিজ: ৩ ম্যাচের সিরিজে পাকিস্তান এগিয়ে ১-০ ব্যবধানে।

ম্যান অব দা ম্যাচ: মোহাম্মদ রিজওয়ান।