বাংলাদেশে আসছেন না কামিন্স-ওয়ার্নার-ম্যাক্সওয়েলরা

  • স্পোর্টস ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-06-16 11:46:01 BdST

bdnews24

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রস্তুতি সিরিজ, কিন্তু খেলবেন না বিশ্বকাপের সম্ভাব্য দলে প্রায় অর্ধেকই! সামনের ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও বাংলাদেশ সফর থেকে নিজেদের সরিয়ে নিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার শীর্ষ ক্রিকেটারদের ছয় জন। চোটের কারণে এই দুই সফরে থাকছেন না স্টিভেন স্মিথও।

নাম প্রত্যাহার করে নেওয়া ছয় ক্রিকেটার ডেভিড ওয়ার্নার, প্যাট কামিন্স, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, জাই রিচার্ডসন, কেন রিচার্ডসন ও মার্কাস স্টয়নিস। তারা সবাই অনুরোধ করেছেন দলে তাদের বিবেচনা না করতে। স্মিথ থাকছেন না কনুইয়ের চোটের কারণে।

প্রথমবারের মতো দলে ডাক পেয়েছেন ২৪ বছর বয়সী পেসার ওয়েস অ্যাগার। তার বড় ভাই স্পিনিং অলরাউন্ডার অ্যাশটন অ্যাগারও আছেন দলে।

১৮ সদস্যের এই দলে ফিরেছেন অলরাউন্ডার ড্যান ক্রিস্টিয়ান ও ব্যাটসম্যান বেন ম্যাকডারমট। ৩৮ বছর বয়সী ক্রিস্টিয়ান সবশেষ অস্ট্রেলিয়ার হয়ে খেলেছেন ২০১৭ সালের অক্টোবরে। ম্যাকডারমট সবশেষ খেলেছেন ২০১৯ সালের নভেম্বরে।

২৯ জনের প্রাথমিক দল থেকে চূড়ান্ত দলে জায়গা পাননি ডার্সি শর্ট ও ক্যামেরন গ্রিন। পেসার ন্যাথান এলিস ও লেগ স্পিনার তানভির স্যাঙ্ঘা দুই সফরেই থাকবেন ‘রিজার্ভ’ হিসেবে।

ওয়ার্নার-কামিন্সদের না থাকার মূল কারণ জৈব-সুরক্ষা বলয়ের মানসিক ধকল। আইপিএল থেকে ফিরে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিনে থাকতে হয়েছে তাদের। এই দুই সফরের আগেও থাকতে হবে কোয়ারেন্টিনে, সিরিজ হবে জৈব সুরক্ষা-বলয়ে। সফর থেকে দেশে ফিরে আবার ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। অক্টোবর-নভেম্বরে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সময়ও অনুসরণ করতে হবে একই রুটিন। সেপ্টেম্বরে হতে পারে আইপিএল। কামিন্সদের আইপিএল অংশগ্রহণ অবশ্য নিশ্চিত নয় এখনও।

আইপিএল খেলে আসা জেসন বেহরেনডর্ফ, মোইজেস হেনরিকেস, রাইলি মেরেডিথ, অ্যান্ড্রু টাই ও অ্যাডাম জ্যাম্পা অবশ্য থাকছেন এই দুই সফরে।

বড় তারকাদের  অনেককে না পেয়ে অস্ট্রেলিয়ার প্রধান নির্বাচক ট্রেভর হন্স কোভিডকালীন বাস্তবতার পাশাপাশি তুলে ধরলেন অন্যদের জন্য বড় সুযোগের কথাও।

“দল নির্বাচনের জন্য সবাইকে না পেয়ে আমরা অবশ্যই হতাশ। তবে সফর থেকে নিজেদের প্রত্যাহার করে নেওয়াদের সিদ্ধান্তের প্রতি আমাদের শ্রদ্ধা আছে। কোভিডের এই সময় আন্তর্জাতিক সফর সব অ্যাথলেটের জন্য বাড়তি অনেক চ্যালেঞ্জ নিয়ে আসে। তবে এটি অন্যদের জন্য সুযোগও, যারা এই বছর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য নিজেদের দাবি জানাতে চায়।”

“সেই ধরনের ক্রিকেটারদের জন্য এটি বড় সুযোগ এবং এই সফরগুলোতে ভালো করলে তাদের বিশ্বকাপে খেলার দারুণ সম্ভাবনা তৈরি হবে।”

আগামী ২৮ জুন ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের জন্য দেশ ছাড়বে অস্ট্রেলিয়ানরা। ক্যারিবিয়ায় তারা খেলবে পাঁচ টি-টোয়েন্টি ও তিন ওয়ানডের সিরিজ। এরপর বাংলাদেশে পাঁচ টি-টোয়েন্টির সিরিজ। এই সিরিজের সূচি এখনও চূড়ান্ত হয়নি।

অস্ট্রেলিয়া দল: অ্যারন ফিঞ্চ (অধিনায়ক), অ্যাশটন অ্যাগার, ওয়েস অ্যাগার, জেসন বেহরেনডর্ফ, অ্যালেক্স কেয়ারি, ড্যান ক্রিস্টিয়ান, জশ হেইজেলউড, মোইজেস হেনরিকেস, মিচেল মার্শ, বেন ম্যাকডারমট, রাইলি মেরেডিথ, জশ ফিলিপি, মিচেল স্টার্ক, মিচেল সোয়েপসন, অ্যাশটন টার্নার, অ্যান্ড্রু টাই, ম্যাথু ওয়েড, অ্যাডাম জ্যাম্পা।

সফরকালীন রিজার্ভ: ন্যাথান এলিস, তানভির স্যাঙ্ঘা।