সুইং বোলিংয়ের দিনের পর শেষের রোমাঞ্চের অপেক্ষা

  • স্পোর্টস ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-06-23 00:47:06 BdST

বৃষ্টি আর আলোকস্বল্পতা মিলিয়ে হতাশাময় অপেক্ষার অনেক প্রহর পেরিয়ে অবশেষে এলো ক্রিকেটানন্দের ক্ষণ। জমে উঠল ব্যাট-বলের লড়াই। সহায়ক উইকেট ও কন্ডিশনে দেখা গেল দুই দলের পেসারদের সুইং বোলিংয়ের দারুণ প্রদর্শনী। ভারতের মোহাম্মদ শামির সুইং জাদুর জবাব দিলেন নিউ জিল্যান্ডের টিম সাউদি। ম্যাচে ফিরল প্রাণ।

দুটি পুরো দিন বৃষ্টিতে ভেসে যাওয়ার পরও টিকে রইল আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালের উত্তেজনা। আবহাওয়ার কথা ভেবেই ষষ্ঠ দিনের যে নিয়ম রাখা হয়েছিল, সেই দিনটিতেই এখন তাকিয়ে সবাই। এখনও হতে পারে যে কোনো ফল।

পঞ্চম দিনে মঙ্গলবার প্রথম ইনিংসে ২৪৯ রানে অলআউট হয়ে নিউ জিল্যান্ড নেয় ৩২ রানের লিড। দ্বিতীয় ইনিংসে ২ উইকেটে ৬৪ রান তুলে দিনশেষে ভারত এগিয়ে ৩২ রানেই।

সাউথ্যাম্পটনে মঙ্গলবার ২ উইকেটে ১০১ রান নিয়ে দিন শুরু করা নিউ জিল্যান্ডকে ভোগান্তি ফেলে শামির সুইং বোলিং। দাঁতে দাঁত চেপে লড়াই করে কেন উইলিয়ামসন আউট হন ফিফটির দুয়ারে গিয়ে। শেষ দিকে সাউদির ক্যামিও ইনিংস কিউইদের লিড বাড়ায় কিছুটা। সেই সাউদিই পরে ফিরিয়ে দেন ভারতের দুই ওপেনারকে।

বৃষ্টি অবশ্য বাগড়া দেয় এ দিনও। সকালে খেলা শুরু হয় দেরিতে। শুরু থেকেই দারুণ বোলিং করতে থামা শামিকে কিছুটা সময় সামাল দিতে পারলেও শেষ পর্যন্ত বিদায় নেন রস টেইলর (১১)।

এরপর ইশান্ত শর্মার শিকার হেনরি নিকোলস। অসাধারণ এক ডেলিভারিতে শামি বোল্ড করেন বিজে ওয়াটলিংকে। ১৩৫ রানে নিউ জিল্যান্ড হারায় ৫ উইকেট। লিড তখনও দূরের পথ। শামি পরে জমে উঠতে দেননি কলিন ডি গ্র্যান্ডহোমকেও।

এসবের মধ্যেই এক প্রান্ত আগলে রাখেন উইলিয়ামসন। উইকেটে পড়ে থাকেন যেন ধ্যানমগ্ন ঋষি হয়ে। বল খেলার সেঞ্চুরি যখন হয়ে যায় তার, রান তখনও কেবল ১৫! 

উইলিয়ামসনকে লোয়ার মিডল অর্ডারে সঙ্গ দেন কাইল জেমিসন ও সাউদি। কিন্তু লিড পাওয়ার পরপরই থামে উইলিয়ামসনের লড়াই। প্রায় ৫ ঘণ্টা উইকেটে কাটিয়ে ১৭৭ বলে ৪৯ রানের ইনিংস শেষ হয় আলগা শটে স্লিপে ক্যাচ দিয়ে।

দুটি ইনসুইঙ্গারে ভারতের দুই ওপেনারকে ফেরান টিম সাউদি।

দুটি ইনসুইঙ্গারে ভারতের দুই ওপেনারকে ফেরান টিম সাউদি।

দুই ছক্কায় সাউদির ৩০ রানের ইনিংস কিউইদের নিয়ে যায় আড়াইশর কাছে।

চ্যালেঞ্জিং কন্ডিশনে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে প্রথম ১০ ওভার নিরাপদেই কাটায় ভারতের দুই ওপেনার। তবে সাউদির ছোবল থেকে শেষ রক্ষা হয়নি তাদের। দুটি বিষাক্ত ইনসুইঙ্গার বিদায় করে দেয় দুজনকেই।

শুবমান গিল ফেরেন ৮ রানে। রোহিত শর্মা অনেক্ষণ লড়াই করলেও ৮১ বলে ৩০ করে আউট হন ভেতরে ঢোকা বল ছেড়ে দিয়ে।

শেষ সময়ে নাইটওয়াচম্যান না নামিয়ে উইকেটে যান ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি। চেতেশ্বর পুজারাকে নিয়ে দিনটি পার করে দেন তিনি।

চা-বিরতির পর ৪০ ওভার খেলা হওয়ার কথা থাকলেও হতে পারে ৩০ ওভার। অপেক্ষা এবার শেষ দিনের রোমাঞ্চের।

সংক্ষিপ্ত স্কোর :

ভারত ১ম ইনিংস: ২১৭

নিউ জিল্যান্ড ১ম ইনিংস: (আগের দিন ১০১/২) ৯৯.২ ওভারে ২৪৯ (উইলিয়ামসন ৪৯, টেইলর ১১, নিকোলস ৭, ওয়াটলিং ১, ডি গ্র্যান্ডহোম ১৩, জেমিসন ২১, সাউদি ৩০, ওয়্যাগনার ০, বোল্ট ৭*; ইশান্ত ২৫-৯-৪৮-৩, বুমরাহ ২৬-৯-৫৭-০, শামি ২৬-৮-৭৬-৪, অশ্বিন ১৫-৫-২৮-২, জাদেজা ৭.২-২-২০-১)।

ভারত ২য় ইনিংস: ৩০ ওভারে ৬৪/২ (রোহিত ৩০, গিল ৮, পুজারা ১২*, কোহলি ৮*; সাউদি ৯-৩-১৭-২, বোল্ট ৮-১-২০-০, জেমিসন ১০-০-১৫-০, ওয়্যাগনার ৩-০-৮-০)।