পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

আইপিএল আর মিরপুরের মুস্তাফিজের পার্থক্য বুঝছে অস্ট্রেলিয়া

  • ক্রীড়া প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-08-05 12:14:37 BdST

bdnews24
মুস্তাফিজের কাটারে আউট হয়ে হতভম্ব অ্যাশটন অ্যাগার।

আইপিএলে মুস্তাফিজুর রহমানের স্মরণীয় অভিষেক মৌসুমে এক দলেই খেলেছেন মোইজেস হেনরিকেস। অস্ট্রেলিয়ান এই ক্রিকেটার পরেও আইপিএলে দেখেছেন বাংলাদেশের বাঁহাতি পেসারকে। কিন্তু সেই মুস্তাফিজ আর এবারের সিরিজের মুস্তাফিজকে মেলাতেই পারছেন না হেনরিকেস। মুস্তাফিজের স্লোয়ার-কাটারে মুগ্ধ আরেক অস্ট্রেলিয়ান অ্যাশটন অ্যাগার বলছেন, এমন স্কিল অবিশ্বাস্য।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে চলতি টি-টোয়েন্টি সিরিজে বাংলাদেশের জয়ে প্রথম ম্যাচে ম্যান অব দা ম্যাচ নাসুম আহমেদ, পরের ম্যাচে আফিফ হোসেন। তবে দুই ম্যাচে দুর্দান্ত বোলিংয়ে পার্শ্বনায়ক মুস্তাফিজ। প্রথম ম্যাচে ৪ ওভারে মাত্র ১৬ রান দিয়ে তার শিকার ২ উইকেট, পরের ম্যাচে ২৩ রানে ৩টি।

মিরপুরের উইকেট মুস্তাফিজের বোলিংয়ের জন্য সহায়ক। তিনি তা কাজে লাগাচ্ছেন দারুণভাবে। স্লোয়ার-কাটার মিশিয়ে নাভিশ্বাস তুলে ছাড়ছেন অস্ট্রেলিয়ানদের। বিশেষ করে স্লগ ওভারে মুস্তাফিজের কোনো জবাবই তারা খুঁজে পাচ্ছেন না।

২০১৬ আইপিএলে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের শিরোপা জয়ে মুস্তাফিজের সতীর্থ হেনরিকেস পরিস্কার বুঝতে পারছেন, আইপিএলে আর মিরপুরে এই বাঁহাতি পেসারের বোলিংয়ের পরিকল্পনা থাকে ভিন্ন।

“মুস্তাফিজ দেখিয়েছে, কতটা দ্রুত সে মানিয়ে নিতে পারে। আমার মনে হয়, সে ২৩টি বা ২৪টিই স্লোয়ার বল করেছে, গতি দিয়ে একটি বলও করেনি (দ্বিতীয় ম্যাচে)। আইপিএল খেলার সময় সে এটা করে না… সম্ভবত (স্পেলের) অর্ধেক বল স্লোয়ার করে, অর্ধেক গতি দিয়ে।”

“কন্ডিশন খুব ভালো বুঝতে পেরেছে সে, কৃতিত্ব তারই। ভালো উইকেটেও তার স্লোয়ার বল খেলা কঠিন, এরকম উইকেটে তো বলাই বাহুল্য।”

হেনরিকেসের মতে, মিরপুরের উইকেট বুঝেই নিজের আক্রমণের ছক সাজাচ্ছেন মুস্তাফিজ।

“শরীরকে এমন কাজে লাগাতে পারা এক ব্যাপার, কিন্তু সে যেভাবে সঠিক লেংথে বল করে যায় (তাকে খেলা কঠিন)…। খুবই স্মার্ট বোলিং এটা, কারণ প্রয়োজনে সে গতিময় বোলিংও করতে পারে। কিন্তু কন্ডিশনকে কাজে লাগিয়ে সে নিজের পরিকল্পনায় অটল ছিল।”

হেনরিকেসের মতো আইপিএলে মুস্তাফিজকে দেখেননি অ্যাগার। এই সিরিজে দেখছেন এবং বিশ্বাসই করতে পারছেন না। দ্বিতীয় ম্যাচে মুস্তাফিজের একটি কাটার লাফিয়ে ছোবল দেয় অ্যাগারের গ্লাভসে, আউট হয়ে তিনি তাকিয়ে থাকেন হতভম্ব হয়ে। বৃহস্পতিবার ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে অ্যাগার বললেন, মুস্তাফিজকে সামলানো সহজ কাজ নয়।

“সে খুবই কঠিন এক বোলার, সত্যিই দারুণ। তার স্লোয়ার বল যদি কাছ থেকে দেখেন, কবজি আর আঙুলের ব্যবহারে… অবিশ্বাস্য স্কিল… অবিশ্বাস্য স্কিল। এই স্লোয়ার অসাধারণ, কারণ এটা খুব ধীরগতির নয় এবং অনেক কিছু হয়।”

“কালকে যেমন আমি একটা ডেলিভারি পেয়েছি, যেটা লাফিয়ে উঠেছে। তো এরকম লাফাতে পারে, নিচু হতে পারে, অনেক স্পিন করতে পারে, নাও করতে পারে। এটা সত্যিই বৈচিত্রময়। এবং বোলিংয়ে যতটা দেওয়া সম্ভব, সবটাই দেওয়ার চেষ্টা করে সে। বেশির ভাগ ডেলিভারিই সে করে স্লোয়ার। সেভাবেই তাকে খেলতে হবে।”