পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

বাংলাদেশকে হারিয়ে ইতিহাস গড়তে চায় পিএনজি

  • মাসকাট থেকে ক্রীড়া প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-10-20 18:15:25 BdST

bdnews24

পাপুয়া নিউ গিনি দলটাকে মাঠে দেখা একটি আনন্দময় অভিজ্ঞতা। তাদের পোশাক রঙচঙে। অনেকেরই কানে-নাকে দুল, সঙ্গে বিচিত্র চুল। সব মিলিয়ে নান্দনিক সাজ। অনুশীলন বা ম্যাচে হাসি-মজায় তারা উপভোগও করে দারুণ। এবার কেবল মাঠের ক্রিকেট রঙিন করার পালা। সেটি করতে চায় তারা বাংলাদেশকে হারিয়ে।

বাংলাদেশের জন্য হুমকি হয়ে ওঠার মতো কিছু অবশ্য তারা আসরের প্রথম দুই ম্যাচে দেখাতে পারেনি। প্রথম ম্যাচে ওমানের কাছে উড়ে যায় তারা ১০ উইকেটে, পরের ম্যাচে স্কটল্যান্ডের সঙ্গে খানিকটা লড়াই জমাতে পারে কেবল শেষ দিকে।

তার পরও বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভ-এ খেলার সম্ভাবনা তাদের এখনও টিকে আছে গাণিতিকভাবে। বাংলাদেশকে বড় ব্যবধানে হারাতে পারলে এবং স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে ওমান বড় ব্যবধানে হারলে পরের ধাপে যাবে পাপুয়া নিউ গিনি।

ক্রিকেটীয় অনিশ্চয়তা মাথায় রেখেও এই সমীকরণ মেলানোর বাস্তব সম্ভাবনা তাদের সামান্য। তবে বড় জয় না হলেও, বাংলাদেশকে হারানোর বিশ্বাস তাদের আছে বলেই জানালেন দলের অলরাউন্ডার চার্লস আমিনি।

ওমান ক্রিকেট একাডেমি মাঠে বুধবার সংবাদ সম্মেলনে আমিনি বললেন, বাংলাদেশের বিপক্ষে স্কটল্যান্ডের জয় তাদের জন্য প্রেরণার।

“প্রথম দুই ম্যাচ যদিও হেরেছি, তার পরও এখনও আমাদের সুযোগ আছে। স্কটল্যান্ড প্রথম ম্যাচে অঘটন ঘটিয়েছে। আমাদের বিশ্বাস আছে, আমরা একইরকম কিছু করতে পারি।”

“প্রথম কাজ হবে জয়ের চেষ্টা করা। বিশ্বকাপে একটি ম্যাচ জিততে পারলে তা হবে ইতিহাস। এটিই আমাদের মাথায় আছে আপাতত। এরপর যা হওয়ার, তা আমাদের নিয়ন্ত্রণে নেই। তবে আমরা সর্বোচ্চ চেষ্টা করব। যদি এমন পরিস্থিতি আসে যে নিজেদের রান রেট নিয়ে কিছু করার সুযোগ আছে, তাহলে চেষ্টা করব সেভাবে জিততে।”

এমনিতে এই ম্যাচ বা এই আসরে খেলতে পারাই আমিনিদের জন্য অনেক বড় কিছু। ২০১৮ সালে ওয়ানডে বিশ্বকাপের বাছাইপর্বে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে একটি ম্যাচ ছাড়া আর কখনও টেস্ট দলের বিপক্ষে খেলার সুযোগ তারা পায়নি। বিশ্ব আসরে খেলছে এই প্রথম।

বাংলাদেশের বিপক্ষে খেলার সুযোগ পেয়েই তাই রোমাঞ্চিত তারা। আমিনি এটিকে বললেন তাদের জন্য সবচেয়ে বড় ম্যাচ।

“আমরা যত ম্যাচ খেলেছি, সম্ভবত আমাদের জন্য এটি সবচেয়ে বড় সুযোগ। বিশ্বের সেরা টি-টোয়েন্টি দলগুলির একটির বিপক্ষে আমাদের প্রথম লড়াই। বিশ্বকাপের আগে অস্ট্রেলিয়া ও নিউ জিল্যান্ডকে হারিয়ে ওরা খুব ভালো ফর্মে ছিল। এখানে যদিও প্রথম ম্যাচে হেরেছে, তারপরও ওরা ভালো দল।”

“বিশ্বকাপে খেলতে পেরে আমরা গর্বিত। আমাদের এটি প্রথম বিশ্বকাপ। কালকের ম্যাচটি খেলতে আমরা মুখিয়ে আছি।”