পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

‘হিন্দুদের সামনে নামাজ’ মন্তব্যের জন্য ক্ষমা চাইলেন ওয়াকার

  • স্পোর্টস ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-10-27 13:46:25 BdST

bdnews24

ক্রিকেট খেলার বিশ্লেষণে ধর্মকে টেনে এনে তুমুল সমালোচিত হওয়ার পর ক্ষমা প্রার্থনা করলেন ওয়াকার ইউনিস। পাকিস্তানের কিংবদন্তি ফাস্ট বোলার বললেন, মুহূর্তের উত্তেজনায় ভুল করে অমনটি বলে ফেলেছিলেন তিনি।

গত রোববার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ম্যাচে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারতকে ১০ উইকেটে হারায় পাকিস্তান। সেই ম্যাচে পাকিস্তানের রান তাড়ায় এক পর্যায়ে বিরতির সময় ওপেনার মোহাম্মদ রিজওয়ানকে দেখা যায় মাঠেই নামাজ আদায় করতে। ভারতীয় ক্রিকেটাররা তখন ছিলেন তার আশেপাশেই।

রিজওয়ান ও বাবর আজমের রেকর্ড গড়া জুটিতে ম্যাচে কোনো উইকেট না হারিয়েই ভারতের ১৫১ রান টপকে যায় পাকিস্তান। ৫৫ বলে ৭৯ রানে অপরাজিত থাকেন রিজওয়ান, ৫২ বলে ৬৮ রানে বাবর।

ম্যাচের পর পাকিস্তানের এআরওয়াই নিউজ চ্যানেলে আরেক সাবেক ফাস্ট বোলার শোয়েব আখতারের সঙ্গে বিশ্লেষণ করেন ওয়াকার। সেখানে রিজওয়ানের ব্যাটিং নিয়ে বলতে গিয়ে ওয়াকার এক পর্যায়ে বলেন, “সবচেয়ে ভালো ব্যাপার যা রিজওয়ান করেছে, সে মাঠে নামাজ পড়েছে, হিন্দুদের সামনে দাঁড়িয়ে, সেটা ছিল সত্যিই খুব খুব স্পেশাল কিছু।”

তার এই মন্তব্য আলোচনা-সমালোচনার ঝড় তোলে ক্রিকেট বিশ্বে। ওয়াকারের মতো একজনের এমন মন্তব্যে বিস্ময়ও প্রকাশ করেন ক্রিকেট জগতের অনেকের। ধারাভাষ্যকার হার্শা ভোগলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিজের হতাশার কথা জানিয়ে শেষে লেখেন, “খেলাটির দূত হিসেবে ক্রিকেটাররা আরেকটু দায়িত্বশীল আচরণ করবে বলেই ধারণা করি। আমি নিশ্চিত, ওয়াকার ক্ষমা চাইবে। ধর্মের ভিত্তিতে আলাদা করা নয়, ক্রিকেটবিশ্বকে একতাবদ্ধ করতে হবে আমাদের।”

অবশেষে বুধবার টুইটারে নিজের ভুল স্বীকার করে ওই মন্তব্যের জন্য ক্ষমা চান ওয়াকার।

“মুহূর্তের উত্তেজনায় আমি এমন কিছু একটা বলেছিলাম, যা অনেকের অনুভূতিকে আহত করেছে। আমার উদ্দেশ্য তা ছিল না। এটির জন্য আমি ক্ষমা চাইছি। মোটেও এটি ইচ্ছাকৃত ছিল না, সত্যিকারের ভুল ছিল। জাতি, বর্ণ, ধর্ম নির্বিশেষে সবাইকে একতাবদ্ধ করে খেলাধুলা।”