পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

তামিমের সেঞ্চুরিতে যত রেকর্ড

  • ক্রীড়া প্রতিবেদক বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2022-01-28 23:51:46 BdST

bdnews24

একটি সেঞ্চুরি ও রেকর্ড বইয়ে খানিকটা তোলপাড়! বিপিএলের ব্যাটিং রেকর্ডের নানা পাতায় আগে থেকেই ছিল তামিম ইকবালের নাম। মিনিস্টার ঢাকার হয়ে শুক্রবার সিলেট সানরাইজার্সের বিপক্ষে ১১১ রানের অপরাজিত ইনিংসে অভিজ্ঞ ওপেনার গড়লেন নতুন কিছু কীর্তি, ছুঁলেন কিছু রেকর্ড, কোথাও আবার ছাড়িয়ে গেলেন নিজেকে।

এবারের আসরে বাংলাদেশের প্রথম সেঞ্চুরিয়ান তামিম।

বিপিএলে একাধিক সেঞ্চুরি করা বাংলাদেশের একমাত্র ব্যাটসম্যান তামিম।

একটি করে সেঞ্চুরি করেছেন শাহরিয়ার নাফীস, মোহাম্মদ আশরাফুল, সাব্বির রহমান ও নাজমুল হোসেন শান্ত।

টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি সেঞ্চুরি তামিমের। এবারের আগে ২০১৯ বিপিএলের ফাইনালে খেলেছিলেন ১৪১ রানের অসাধারণ ইনিংস। ২০১৩ সালে বিজয় দিবস টি-টোয়েন্টিতে ইউসিবি-বিসিবি একাদশের হয়ে করেছিলেন ৬৪ বলে ১৩০। জাতীয় দলের হয়ে ২০১৬ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ওমানের বিপক্ষে করেছিলেন অপরাজিত ১০৩, আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে যা দেশের একমাত্র সেঞ্চুরি।

মোহাম্মদ শাহজাদের সঙ্গে শতরানের জুটি গড়েছেন তামিম ইকবাল। বিপিএলে এই নিয়ে চারটি শতরানের জুটির অংশ হলেন তিনি।

বিপিএলে চারটি শতরানের জুটিতে নাম আছে আর কেবল ক্রিস গেইল, শাহরিয়ার নাফিস ও এনামুল হকের।

১৭

১১১ রানের ইনিংসে ১৭টি চার মেরেছেন তামিম, বিপিএলে এক ইনিংসে যা রেকর্ড।

আগের সর্বোচ্চ রেকর্ড যৌথভাবে ছিল মোহাম্মদ আশরাফুল ও লেন্ডল সিমন্সের। ২০১৩ আসরে ১০৩ রানের ইনিংসের পথে ১৪ চার মেরেছিলেন আশরাফুল। তামিমের সেঞ্চুরির ম্যাচেই প্রথম ইনিংসে ১১৬ রানের ইনিংসের পথে সিমন্স মারেন সমান ১৪টি চার।

২৩

এই ইনিংসের পর বিপিএলে তামিমের ফিফটি ছোঁয়া ইনিংস এখন ২৩টি। নিজের রেকর্ড আরও সমৃদ্ধ করলেন তিনি।

১৫টি পঞ্চাশ ছোঁয়া ইনিংস নিয়ে দুইয়ে মুশফিকুর রহিম।

৩৭.৪৯

এই ইনিংসের পর বিপিএলে তামিমের ব্যাটিং গড় এখন ৩৭.৪৯। অন্তত ১০ ইনিংস খেলা বাংলাদেশি ব্যাটসম্যানদের মধ্যে এটিই সর্বোচ্চ। তামিম এই ম্যাচে ছাড়িয়ে গেছেন মুশফিকুর রহিমের ৩৭.০৬ গড়।

৭৭

এই ইনিংসের ৪টি ছক্কায় বিপিএলে তামিমের ছক্কা হলো ৭৭টি, বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের মধ্যে যা সর্বোচ্চ। ছাড়িয়ে গেলেন তিনি ইমরুল কায়েসের ৭৪ ছক্কা।

তামিমের ৭৭ ছক্কা ৭৪ ইনিংসে, ইমরুলের ৭৪টি ৮২ ইনিংসে।

বিপিএলে এই দুজনের চেয়ে বেশি ছক্কা কেবল ক্রিস গেইলের, ৪৪ ইনিংসে ১৩৪টি।

৯২

তামিমের ইনিংসে ছিল ১৭ চার ও ৪ ছক্কা, বাউন্ডারি থেকে মোট রান ৯২। বিপিএলে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের মধ্যে এক ইনিংসে বাউন্ডারি থেকে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান এটি।

সর্বোচ্চ রানের রেকর্ডও তামিমের। ২০১৯ সালে ১৪১ রানের ইনিংসের পথে তিনি চার মেরেছিলেন ১০টি, ছক্কা ১১টি। বাউন্ডারি থেকে এসেছিল ১০৬ রান।

১৭৩

তামিম ও মোহাম্মদ শাহজাদের উদ্বোধনী জুটিতে রান এসেছে ১৭৩। এবারের বিপিএলের প্রথম শতরানের জুটি এটি।

সব আসর মিলিয়ে উদ্বোধনী জুটিতে রান তাড়ায় উদ্বোধনী জুটির রেকর্ডও এটি।

আগের রেকর্ড ছিল ক্রিস গেইল ও আহমেদ শেহজাদের। প্রথম বিপিএলের প্রথম ম্যাচে সিলেট রয়্যালসের ১৬৫ রান তাড়ায় বরিশাল বার্নাস ম্যাচ জিতেছিল এই দুজনের অবিচ্ছিন্ন ১৬৭ রানের জুটিতে।

এবং আরও একটি

সিলেট সানরাইজার্সের হয়ে লেন্ডল সিমন্স, মিনিস্টার ঢাকার হয়ে তামিম ইকবাল। বিপিএলে এক ম্যাচে দুই সেঞ্চুরি আগেও হয়েছে। তবে তা করেছিলেন একই দলের দুজন। ২০১৯ আসরে এই চট্টগ্রামেই রংপুর রাইডার্সের হয়ে তিন অঙ্ক ছুঁয়েছিলেন অ্যালেক্স হেলস ও রাইলি রুশো। তবে এক ম্যাচে দুই দলের দুই ব্যাটসম্যানের সেঞ্চুরি এবারই প্রথম দেখল বিপিএল।