ENG
২৫ নভেম্বর ২০১৭, ১১ অগ্রহায়ণ ১৪২৪

অবৈধ সম্পদ অর্জনে চট্টগ্রামে রাজস্ব কর্মকর্তা গ্রেপ্তার

  • চট্টগ্রাম ব্যুরো, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2017-05-19 17:44:57 BdST

bdnews24

অবৈধ সম্পদ অর্জন ও সম্পদের তথ্য গোপনের অভিযোগে করা মামলায় চট্টগ্রাম থেকে কাস্টমসের এক রাজস্ব কর্মকর্তাকে গ্রেপ্তার করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন-দুদক।

গ্রেপ্তার আব্দুল মমিন মজুমদার (৫৫) বর্তমানে ঢাকার গুলশান সার্কেল-৪ এর রাজস্ব কর্মকর্তা পদে কর্মরত আছেন। এর আগে তিনি চট্টগ্রাম কাস্টমস হাউজের সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা পদে কর্মরত ছিলেন।

বৃহস্পতিবার চট্টগ্রাম নগরীর ডবলমুরিং থানার আগ্রবাদ এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান দুদক সমন্বিত জেলা কার্যালয় চট্টগ্রাম-১ এর উপ-সহকারী পরিচালক সাধন চন্দ্র সূত্রধর।

মমিন কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম থানার নেতরা গ্রামের মৃত আব্দুল গণি মজুমদারের ছেলে জানিয়ে সাধন বলেন, সম্পদের তথ্য গোপন ও অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে দুদক আইন ২০০৪ এর ২৬(২), ২৭ (১) ধারা এবং দণ্ডবিধির ১০৯ ধারায় কুমিল্লা কোতোয়ালি থানায় করা মামলায় মমিন মজুমদারকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

“মামলায় তার স্ত্রী সেলিনা জামানও আসামি। এক কোটি ২৬ লাখ টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জন এবং ৪০ লাখ ২৩ হাজার ৮৫৮ টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জনের প্রমাণ পাওয়ায় বৃহস্পতিবার মামলাটি করা হয়।”

এজাহারে বলা হয়, সেলিনা জামানের নামে আয়কর নথি থাকলেও তিনি প্রকৃতপক্ষে কোনো বৈধ উপার্জন করেন না। তার স্বামী আব্দুল মমিন মজুমদার অবৈধ উপার্জনের দ্বারা সেলিনা জামানকে সম্পদ অর্জনে সহায়তা করেছেন।

২০১২ সালে সেসময়ের সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা আব্দুল মমিন মজুমদারের সম্পদের তদন্ত শুরু করে দুদক।

তখন সেলিনা জামানকে তার স্থাবর-অস্থাবর সম্পদের বিবরণ দাখিল করতে নোটিশ দেয় দুনীতি রোধে কাজ করা সংস্থাটি।

জমা দেওয়া সম্পদ বিবরণীতে সেলিনা জামান জানান, চট্টগ্রামের হালিশহর এল ব্লকে তার তিন কাঠা জমিতে ছয়তলা একটি বাড়ি এবং ঢাকার গোপীবাগে একটি ফ্ল্যাট রয়েছে। এই বাড়ি ও ফ্ল্যাটের মূল্য ৮৯ লাখ ১২ হাজার ৯৮০ টাকা।

এসব তথ্য যাচাইয়ে হালিশহরের এল ব্লকে ছয়তলা ভবনের অনুমতি নিয়ে আটতলা ভবন নির্মাণ করা হয়, যার মোট মূল্য এক কোটি পাঁচ লাখ ৬৬ হাজার ৮৩৮ টাকা বলে দুদক কর্মকর্তারা জানতে পারে।

এছাড়া আয়কর বিবরণীতে সেলিনা জামানের দেওয়া তথ্যের সঙ্গে মিলিয়ে বাস্তবে তার স্থাবর-অস্থাবর সম্পদের পরিমাণ বেশি পায় দুদক।

এরপর অবৈধ সম্পদ অর্জন ও সম্পদের তথ্য গোপনের অভিযোগে দুদক প্রধান কার্যালয়ের অনুমোদন নিয়ে বৃহস্পতিবার কুমিল্লা কোতোয়ালি থানায় মামলাটি করা হয়।

এ মামলায় আসামি সেলিনা জামানকে গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে বলে জানান দুদক কর্মকর্তা সাধন চন্দ্র সূত্রধর।