২৪ আগস্ট ২০১৯, ৯ ভাদ্র ১৪২৬

আমন্ত্রণপত্রে ওসি-কাউন্সিলের নাম ছাপিয়ে ‘চাঁদাবাজি’, গ্রেপ্তার দুই

  • চট্টগ্রাম ব্যুরো, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2019-08-10 18:38:34 BdST

প্রীতি ফুটবল ম্যাচ আয়োজনে থানার ওসি এবং ওয়ার্ড কাউন্সিলরের নাম ছাপিয়ে চাঁদাবাজির অভিযোগে চট্টগ্রামে দুইজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

শনিবার নগরীর এনায়েত বাজার বাটালি রোড থেকে হেদায়েত উল্লাহ টুটুল (৩৮) ও মো. জাবেদকে (২৫)। গ্রেপ্তার করা হয়। তারা বাটালি রোড এলাকার বাসিন্দা।

কোতোয়ালী থানার ওসি মো. মহসিন বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান, ঈদুল আজহা উপলক্ষ্যে প্রীতি ফুটবল ম্যাচের আয়োজন করে এলাকার মানুষ ও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে চাঁদা আদায় করছিলেন গ্রেপ্তারা।

“দুপুরে বাটালি রোডের এক ব্যবসায়ীর কাছে ৩০ হাজার টাকা দাবি করে তারা। টাকার জন্য চাপ প্রয়োগ করলে তিনি বিষয়টি পুলিশকে জানান। পরে ঘটনাস্থল থেকে দুইজনকে গ্রেপ্তার করে থানায় নিয়ে আসি।”

রেলওয়ে স্কুল মাঠে আগামী ১৩ অগাস্ট রাতে এ প্রীতি ফুটবল ম্যাচ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এজন্য কার্ডও ছাপানো হয়েছে।

কার্ডে লেখা হয়, তৃতীয়বারের মতো ইসমাইল স্মৃতি সংসদের এ প্রীতি ফুটবল ম্যাচ ও পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। যেখানে প্রধান অতিথি হিসেবে কোতোয়ালী থানার ওসি মো. মহসিন, বিশেষ অতিথি স্থানীয় ২২ নম্বর এনায়েত বাজার ওয়ার্ড কাউন্সিলর সলিম উল্লাহ বাচ্চু, কোতোয়ালী থানার বিট অফিসার এসআই শরীফুজ্জামান, কেন্দ্রীয় যুবলীগের সদস্য রিটু দাশ বাবলুর নাম লেখা আছে। 

ওসি মহসিন বলেন, “আমাকে প্রধান অতিথি করে কার্ড ছাপানো হলেও আমি কিছুই জানতাম না। চাঁদাবাজির কৌশল হিসেবে তার আমার নামটি ছাপিয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদে জানতে পেরেছি তারা পাঁচটি কার্ড তৈরি করেছে ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে টাকা তোলার জন্য। এই গ্রুপটিতে আরও কয়েকজন আছে। তাদেরও ধরতে অভিযান করছি।”

ওসি’র মতো ওয়ার্ড কাউন্সিলর সলিম উল্লাহ বাচ্চুও বিষয়টি সম্পর্কে অবগত নন বলে জানিয়েছেন।

“এলাকায় এ ধরনের একটি আয়োজন করলেও বিষয়টি আমাকে কেউ জানায়নি। তারা বিভিন্ন জায়গায় চাঁদা তুললেও আমাকে কেউ কোনো অভিযোগ করেনি। কোতোয়ালী থানার ওসির কাছ থেকে আমি বিষয়টি শুনেছি।”

এ ঘটনায় বাটালি রোডের ব্যবসায়ী মতুর্জা জাকির হোসেন কোতোয়ালী থানায় একটি মামলা করেছেন।