অভিযোগ ছিল অপহরণের; তদন্তে মিলল পালিয়েছিলেন

  • চট্টগ্রাম ব্যুরো বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2019-11-19 15:54:23 BdST

bdnews24

দুই সন্তানসহ এক নারী নিখোঁজ হওয়ার পর তার পরিবার অপহরণের সন্দেহ করলেও পুলিশের তদন্তে বেরিয়ে এসেছে, প্রেমিকের সঙ্গে পালিয়েছিলেন তিনি।

গত ১২ নভেম্বর চট্টগ্রাম নগরীর আমান বাজার থেকে সিএনজি অটো রিকশা করে বোয়ালখালী উপজেলার শাকপুরায় নিজ বাড়িতে যাওয়ার পথে কাপ্তাই রাস্তার মাথা এলাকায় চার ও দুই বছর বয়েসী দুই সন্তানসহ উধাও হয়ে যান ওই নারী (২৫)।

তার মা তখন চান্দগাঁও থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন। তাতে তিনি বলেন, কাপ্তাই রাস্তার মাথায় অটো রিকশা দাঁড় করিয়ে কাপড় কিনতে নেমেছিলেন তিনি। মিনিট দশেক পর ফিরে এসে দেখেন, অটোরিকশাটিও নেই, তার মেয়ে ও নাতনিরাও নেই।

স্থানীয় সংবাদপত্র ও ইন্টারনেটে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ঘটনাটি আলোচনায় এলে তা দেখে এর তদন্ত শুরু করে চট্টগ্রাম নগর পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট।

কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার মঈনুল ইসলাম বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “আমরা জিডিটির তদন্তভার গ্রহণ করার পর পরিবারের সদস্যদের সাথে কথা বলি। তাদের ধারণা ছিল, সিএনজি অটোরিকশা চালক তাদের মেয়ে ও নাতনিদের অপহরণ করেছে।

“এরপর আমরা বিভিন্ন স্থানের সিসি ক্যামেরা ফুটেজ সংগ্রহ শুরু করে কাজ করে নিশ্চিত হয়েছি ওই গৃহবধূ অপহৃত হয়নি। সাবেক প্রেমিকের সাথে তিনি ঢাকায় পালিয়ে গেছেন।”

ঢাকায় যার কাছে ওই নারী গিয়েছিলেন, তার বিষয়ে পুলিশের অনুসন্ধানের মধ্যেই দুই সন্তানসহ ওই নারী মঙ্গলবার ফিরে আসেন চট্টগ্রামে।

পুলিশ কর্মকর্তা মঈনুল বলেন, “আমরা ওই ব্যক্তির সন্ধান শুরু করলে সে বিষয়টি জানতে পেরে আজ তাকে তার দুই সন্তানসহ চট্টগ্রামে পাঠিয়ে দেয়। পরে তাকে আমরা হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে চান্দগাঁও থানায় হস্তান্তর করেছি।”

পুলিশ জানায়, সাত বছর আগে বিয়ে হওয়ার আগে ওই ব্যক্তির সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল ওই নারীর।