কোভিড-১৯: চট্টগ্রামে একদিনে শনাক্ত ২৮২, মোট ৯৪০৫

  • জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-07-03 15:19:48 BdST

bdnews24

চট্টগ্রামে আরও ২৮২ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে, যার ফলে জেলায় কোভিড-১৯ রোগীর মোট সংখ্যা বেড়ে ৯৪০৫ জনে উন্নীত হয়েছে।

শুক্রবার জেলার সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি জানান, মোট সাতটি ল্যাবে বৃহস্পতিবার একহাজার ৩২৩টি নমুনা পরীক্ষা করে এ ফল এসেছে।

এই ২৮২ জনের মধ্যে এক তৃতীয়াংশই নগরীর পাঁচলাইশ থানায় অবস্থিত বেসরকারি শেভরন হাসপাতালের ল্যাবে শনাক্ত হয়েছে।

সে হিসেবে এই ল্যাবে পরীক্ষা করা নমুনার মধ্যে শনাক্তের হার প্রায় ৬০ শতাংশ, যেখানে সাতটি ল্যাব মিলে জেলায় মোট শনাক্তের হার মাত্র ২১ শতাংশ।

নতুন শনাক্ত ২৮২ জনের মধ্যে নগরীর বাসিন্দা ১৮২ জন ও বিভিন্ন উপজেলার মোট ১০০ জন। এর মধ্যে হাটহাজারী উপজেলায় সর্বোচ্চ ১৫ জন শনাক্ত হয়েছে।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ল্যাবে সবচেয়ে বেশি ৪০৩টি নমুনা পরীক্ষা করে ৭০ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের অস্তিত্ব শনাক্ত হয়, যাদের মধ্যে ৬২ জন নগরীর এবং আটজন উপজেলার বাসিন্দা।

চট্টগ্রামের ফৌজদারহাট বিআইটিআইডি ল্যাবে নমুনা পরীক্ষা করা হয় ৩৬০টি। এদের মধ্যে পজেটিভ আসে ৩৭ জনের যাতে নগরীর বাসিন্দা ১১ জন ও উপজেলার ২৬ জন।

চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি এন্ড এনিমেল সাইন্সেস বিশ্ববিদ্যালয়ের (সিভাসু) ল্যাবে ১৪০টি নমুনা পরীক্ষা করে ১৯ জনের পজেটিভ আসে। এদের মধ্যে নগরীর সাতজন এবং বিভিন্ন উপজেলার ১২ জন।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ল্যাবে ১০৯টি নমুনা পরীক্ষা করে ৩৪ জনের কোভিড-১৯ শনাক্ত হয়। এর মধ্যে নগরীর ১০ জন ও বিভিন্ন উপজেলার ২৪ জন।

নগরীর বেসরকারি ইম্পেরিয়াল হাসপাতালে ১৪৬টি নমুনা পরীক্ষা করে ২৫ জনের কোভিড-১৯ শনাক্ত হয়েছে। তাদের মধ্যে ২০ জন নগরীর এবং পাঁচজন বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা।

কক্সবাজার মেডিকেল কলেজে চট্টগ্রামের আটটি নমুনা পরীক্ষা করে চট্টগ্রাম জেলার তিনজন বাসিন্দার করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে।

এছাড়া বেসরকারি শেভরন হাসপাতালে ১৫৭টি নমুনা পরীক্ষা করে ৯৪ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে ৭২ জন নগরীর এবং ২২ জন উপজেলার বাসিন্দা।

গত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন আরও তিন জন, সে হিসেবে এ পর্যন্ত মোট মৃতের সংখ্যা ১৮৭ জন।

শেষ ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়ে ফিরেছেন ৪৭ জন। সরকারি হিসেবে এখন পর্যন্ত হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হলেন ১১৩১ জন।