পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

চট্টগ্রামে স্কুল গেইটে অভিভাবকদের জটলা না করার আহ্বান

  • চট্টগ্রাম ব্যুরো, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-09-15 20:35:02 BdST

bdnews24
ফাইল ছবি

চট্টগ্রাম শহরের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর সামনে অভিভাবকদের জটলা না করার আহ্বান জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক।

বুধবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ মমিনুর রহমান এ আহ্বান জানান।

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়- “কোভিড-১৯ সংক্রমণ প্রতিরোধে পরবর্তী ঘোষণা না দেওয়া পর্যন্ত চট্টগ্রাম মহানগরীসহ জেলার প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহের সামনে শিক্ষার্থীদের সম্মানিত অভিভাবকসহ সর্বসাধারণকে অযথা ভিড় বা জটলা সৃষ্টি থেকে বিরত থাকতে বলা হল।”

প্রায় দেড় বছর বন্ধ থাকার পর রোববার সারাদেশের মত চট্টগ্রামেও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের দরজা খোলে। আপাতত শ্রেণিকক্ষে স্বাস্থ্যবিধি মেনে একেক দিন একেক শ্রেণির ক্লাস নেওয়া হচ্ছে।

প্রথমদিন স্বাস্থ্যবিধি মেনে শিক্ষার্থীদের শ্রেণিকক্ষে আসন বিন্যাস ও অন্যান্য স্বাস্থ্য সুরক্ষা ব্যবস্থা সন্তোষজনক বলে জানিয়েছিল শিক্ষা সংশ্লিষ্টরা। তবে স্কুল-কলেজের গেইটে অভিভাবকদের ভিড় নিয়ে উদ্বেগ ছিল।

পাশাপাশি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বাইরে ছাত্র ছাত্রীদের দলবদ্ধ আড্ডা ও স্কুল-কলেজের সামনের ভ্রাম্যমাণ দোকান থেকে খাবার খাওয়া গত তিন দিনের নিয়মিত দৃশ্য।

চট্টগ্রামে শিক্ষার্থীরা স্বাস্থ্যবিধি মানছে, জটলা করছেন অভিভাবকরা  

জেলা প্রশাসকের প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধানদের নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানে প্রবেশমুখে ভিড় এড়ানোর ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে। যেসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের একটিই প্রবেশ পথ, তাদের একাধিক প্রবেশপথের ব্যবস্থা করতে বলা হয়েছে।

পাশাপাশি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সামনে ভ্রাম্যমাণ দোকান বসানো থেকে বিরত থাকতে সবাইকে নির্দেশ দিয়েছেন ডিসি মমিনুর রহমান।

শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদেরও এ ধরনের ভ্রাম্যমাণ দোকান থেকে খাবার বা অন্য কোন সামগ্রী কেনা থেকে বিরত থাকতে বলা হয়েছে বিজ্ঞপ্তিতে।

এছাড়া সবাইকে মাস্ক পরা এবং শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখাসহ স্বাস্থ্যবিধি কঠোরভাবে মেনে চলার নির্দেশ দিয়ে বলা হয়েছে, “আদেশ ভঙ্গকারী সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির বিরুদ্ধে যথাযথ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।”

সরকারি নির্দেশনা অনুসারে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রবেশপথে সকল শিক্ষক-কর্মচারী, শিক্ষার্থী, অভিভাবকদের নিয়মিত দেহের তাপমাত্রা পরিমাপ, প্রতিষ্ঠানের সকল ভবনের কক্ষ, ওয়াশরুম, বারান্দা, সিঁড়ি, ছাদ এবং আঙ্গিনা যথাযথভাবে পরিচ্ছন্ন রাখা, সাবান দিয়ে হাত ধোয়া, কোন শিক্ষার্থী হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়লে তাৎক্ষণিক আইসোলেশন ও উপযুক্ত চিকিৎসা নিশ্চিতে ব্যবস্থা নিতে নির্দেশনা দিয়েছেন জেলা প্রশাসক।