পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

সাবেক জেলার সোহেল রানার বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদের মামলা

  • চট্টগ্রাম ব্যুরো, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-11-29 18:01:10 BdST

bdnews24
২০১৮ সালের ২৬ অক্টোবর সোহেল রানা বিশ্বাসকে গ্রেপ্তার করে রেল পুলিশ।

চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগারের সাবেক জেলার মো. সোহেল রানা বিশ্বাসের বিরুদ্ধে সম্পদের তথ্য গোপন ও অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

সোমবার দুদক সমন্বিত জেলা কার্যালয় চট্টগ্রাম-১ এর উপ পরিচালক মো. আবু সাঈদ বাদী হয়ে মামলাটি করেন।

আবু সাঈদ বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “দুদক আইন ২০০৪ এর ২৬(২) ও ২৭ (১) ধারা মতে এবং মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ আইন ২০১২ এর ৪(২) ও ৪ (৩) ধারায় মামলাটি করা হয়েছে।”

চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগারের সাবেক জেলার মো. সোহেল রানা বিশ্বাস ২০১৯ সালের ১৮ সেপ্টেম্বর দুদকে সম্পদ বিবরণী দাখিল করেন।

সেই সম্পদ বিবরণীতে ৪০ লাখ ২৭ হাজার ২৩৩ টাকার সম্পদের তথ্য গোপন এবং ঘুষ ও দুর্নীতির মাধ্যমে ২ কোটি ৩৩ লাখ ৩৩ হাজার ২৩৫ টাকার জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জন করে ভোগ দখলে রাখার অভিযোগে মামলাটি করা হয়।

২০১৮ সালের ২৬ অক্টোবর চট্টগ্রাম থেকে ছেড়ে যাওয়া ময়মনসিংহগামী বিজয় এক্সপ্রেস থেকে নগদ ৪৪ লাখ ৪৩ হাজার ‘অবৈধ’ টাকা ও ফেনসিডিল’সহ সোহেল রানাকে আটক করে রেলওয়ে পুলিশ। সেসময় তিনি চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগারের জেলার ছিলেন।

সোহেল রানা ময়মনসিংহ জেলার ধোবাউড়া উপজেলার পোড়াকান্দুলিয়া গ্রামের জিন্নাত আলী বিশ্বাসের ছেলে।

সোহেল রানার কাছ থেকে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে নেওয়া ১ কোটি ৩০ লাখ টাকার চেক ও তার স্ত্রীর নামে ২ কোটি ৫০ লাখ টাকার এফডিআর সংক্রান্ত নথিও উদ্ধারের কথাও জানানো হয়।

তখন সোহেল রানার বিরুদ্ধে ভৈরব রেলওয়ে থানার এসআই মো. আশ্রাফ উদ্দিন ভূঁইয়া বাদী হয়ে মাদক ও অর্থপাচার আইনে দুটি মামলা করেন। এ ঘটনার পর কারা কর্তৃপক্ষ তাকে বরখাস্ত করে।