২৪ আগস্ট ২০১৯, ৯ ভাদ্র ১৪২৬

সায়েদাবাদ পানি শোধানাগার প্রকল্পের তদারকিতে কেএফডাব্লিউ

  • জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2019-08-08 00:01:16 BdST

bdnews24

জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে দুর্যোগ হলেও ঢাকাবাসীকে নিরাপদ পানি সরবরাহ নিশ্চিত করতে একটি ত্রিপক্ষীয় চুক্তি করেছে জার্মান ভিত্তিক উন্নয়ন ব্যাংক-কেএফডাব্লিউ।

চুক্তির আওতায় ঢাকার বিপুল সংখ্যক মানুষকে নিরাপদ পানি সরবরাহে সায়েদাবাদ পানি শোধানাগার প্রকল্পের তৃতীয় পর্য়ায় কার্য়ক্রমের সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনার তদারকি করবে কেএফডাব্লিউ।

বুধবার এ বিষয়ে ঢাকা ওয়াসা, অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগ (ইআরডি) এবং কেএফডাব্লিউ‘র মধ্যে একটি ত্রিপক্ষীয় চুক্তি সই হয়েছে।

শেরে বাংলা নগরে ইআরডি সম্মেলন কক্ষে এ চুক্তি সই হয়।

চুক্তিতে ইআরডি সচিব মনোয়ার আহমেদ, ঢাকা ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক তাকসিম এ খান এবং কেএফডাব্লিউ ঢাকা কার্য়ালয়ের পরিচালক অনির্বান কুন্ডু সই করেন।

অনুষ্ঠানে ইআরডি, স্থানীয় সরকার বিভাগ, ঢাকা ওয়াসা এবং কেএফডাব্লিউ‘র কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে ঢাকাবাসীর যেন বিশুদ্ধ পানির সংকট না হয় সেজন্য সায়েদাবাদ পানি শোধানাগার প্রকল্পের তৃতীয় পর্য়ায় প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। মেঘনা নদী থেকে অপরিশোধিত পানি এনে বিশুদ্ধ করে ঢাকাবাসীকে সরবরাহ করা এ প্রকল্পের উদ্দেশ্য।

এই চুক্তির মাধ্যমে কেএফডাব্লিউ ওই প্রকল্পে অর্থায়ন ছাড়াও পানির উৎস্থল মেঘনা নদীর পরিবেশ তথা নদীতে যেন শিল্পবর্জ্য না পড়তে পারে তা তদারকি করবে। এছাড়াও মেঘনা থেকে সায়েদাবাদ পর্য়ন্ত পাইপলাইন, সায়েদাবাদের পানি শোধানাগার ব্যবস্থায় স্বাস্থ্যকর পরিবেশ নিশ্চিতের বিষয়টিও নজরদারি করবে সংস্থাটি।

গত বছরের ১৭ অক্টোবর সায়েদাবাদ পানি শোধানাগার (তৃতীয় পর্য়ায়) প্রকল্পে ৯ কোটি ইউরো অর্থায়ন চুক্তি হয়। বর্তমান বিনিময় হার অনুযায়ী বাংলাদেশী মুদ্রায় এর পরিমাণ ৮ হাজার ৫৫০ কোটি টাকা।

সায়েদাবাদ পানি শোধানাগার প্রকল্পের তৃতীয় পর্য়ায়ের মাধ্যমে মেঘনা নদী থেকে অপরিশোধিত পানি ঢাকায় নিয়ে আসার পাইপলাইন স্থাপন এবং পানি সঞ্চালন ব্যবস্থা সম্প্রসারণ এবং আধুনিকায়ন করা হবে।

সায়েদাবাদ পানি শোধানাগার তৃতীয় পর্য়ায় প্রকল্পের মোট ব্যয় ধরা হয়ছে ৫৬ কোটি ৯০ লাখ ইউরো (প্রায় ৫৪ হাজার কোটি টাকা)।

এরমধ্যে ৯ কোটি ইউরো যোগান দিচ্ছে কেএফডাব্লিউ। এছাড়া ফ্রান্স ভিত্তিক দাতা সংস্থা এএফডি, ইউরোপীয় ইনভেস্টমেন্ট ব্যাংক এবং ডানিডা বিজনেস ফাইন্যান্স অর্থায়ন করছে এই প্রকল্পে।