পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

চিকিৎসকদের গবেষণা ও প্রশিক্ষণ: বিসিপিএস আধুনিকায়নে ২১৫ কোটি টাকার প্রকল্প হচ্ছে

  • জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-06-07 23:21:51 BdST

bdnews24

গবেষণা ও প্রশিক্ষণের মাধ্যমে চিকিৎসকদের উচ্চতর ডিগ্রির পড়াশোনার সুযোগ সুবিধা বাড়াতে ২১৫ কোটি টাকার একটি প্রকল্প হাতে নিয়েছে সরকার।

প্রকল্পের আওতায় বাংলাদেশ কলেজ অব ফিজিশিয়ানস অ্যান্ড সার্জনস (বিসিপিএস) এর আধুনিকায়ন ও সম্প্রসারণ করা হবে।

এটি বাস্তবায়ন হলে স্নাতকোত্তর মেডিকেল শিক্ষার্থীদের উচ্চতর পড়াশোনায় গবেষণা ও প্রশিক্ষণের অবকাঠামো আরও বাড়বে, যা দেশে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক তৈরিতে ভূমিকা রাখবে বলে প্রকল্প প্রস্তাবে আশা প্রকাশ করা হয়েছে।

জানতে চাইলে পরিকল্পনা কমিশনের আর্থ-সামাজিক অবকাঠামো বিভাগের সদস্য মোসাম্মৎ নাসিমা বেগম বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “প্রকল্পটি মূলত উন্নত চিকিৎসক তৈরি ও গবেষণা অবকাঠামো সম্প্রসারণ করার জন্য নেওয়া হয়েছে।

“বিসিপিএস এর নামে এখনও কলেজ থাকলেও এটি মূলত স্নাতকোত্তর চিকিৎসা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। এটি এফসিপিএস ও এমসিপিএস ডিগ্রি দেয়।“

যুক্তরাজ্যের রয়েল কলেজগুলোর আদলে পরিচালিত প্রতিষ্ঠানটি মেডিকেল শিক্ষার্থীদের বৃহত্তর গবেষণা কার্যক্রম পরিচালনা করে উল্লেখ করে তিনি বলেন, “প্রতিষ্ঠানটি চিকিৎসা বিজ্ঞানের বিভিন্ন শাখায় ব্যবহারিক জ্ঞান ও দক্ষতা বিকাশের জন্য নিয়মিত কর্মশালা ও সেমিনার পরিচালনা করে।”

কলেজের গবেষণা ও শিক্ষা কার্যক্রমের অবকাঠামো বৃদ্ধি করে এর সক্ষমতা বাড়ানোর পাশাপাশি ভবিষ্যতে এটিকে মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবেও গড়ে তোলার সুযোগ রয়েছে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

প্রকল্পটি সরকারের চূড়ান্ত অনুমোদনের জন্য মঙ্গলবার জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় উপস্থাপন করা হতে পারে বলে যোগ করেন তিনি।

রাজধানীর মহাখালীতে অবস্থিত বিসিপিএস কলেজে চিকিৎসা বিজ্ঞানের স্নাতকোত্তর শিক্ষার্থীদের এফসিপিএস ও এমসিপিএস ডিগ্রি দিয়ে থাকে।

এই কলেজের গবেষণা, প্রশিক্ষণ এবং পরীবিক্ষণ বিভাগের সম্প্রসারণ করে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক তৈরিতে সুযোগ সুবিধা বাড়াতে “বাংলাদেশ কলেজ অব ফিজিশিয়ানস অ্যান্ড সার্জনস (বিসিপিএস) এর আধুনিকায়ন ও সম্প্রসারণ” শীর্ষক এই প্রকল্প গ্রহণ করেছে বলে প্রকল্প প্রস্তাবে বলা হয়েছে।

প্রকল্পটি বাস্তবায়নে মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ২১৫ কোটি ৪৩ লাখ টাকা। সম্পূর্ণ সরকারি অর্থায়নে এটি বাস্তবায়নের জন্য প্রস্তাব করা হয়েছে।

পরিকল্পনা কমিশনের সংশ্লিষ্ট একজন ঊর্ধতন কর্মকর্তা জানান, বিসিপিএস দেশে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক তৈরির অন্যতম প্রতিষ্ঠান হলেও এর বর্তমান অবকাঠামো এবং অন্যান্য সুবিধা খবুই অপ্রতুল।

এই কারণে জাতীয় প্রতিষ্ঠানটির সুযোগ সুবিধা বাড়িয়ে দেশে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক তৈরিতে প্রকল্পটি গ্রহণ করা হয়েছে।

প্রকল্পের আওতায় বিসিপিএস কলেজ ক্যাম্পাসে তিনটি বেইজমেন্টসহ ১২তলার একটি মাল্টি পারপাস ভবনও তৈরি করা হবে। এর মোট আয়তন হবে ২ লাখ ৫৯ হাজার ৮৭৫ বর্গফুট।

এই ভবনের পাশে এক হাজার ৫০০ আসনের একটি মিলনায়তন ভবনও নির্মাণ করা হবে।