পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

বিনিয়োগ করুন, বাধা থাকলে দূর করব: প্রবাসীদের সংবর্ধনায় প্রধানমন্ত্রী

  • নিজস্ব প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-11-02 15:01:30 BdST

bdnews24
ছবি: পিআইডি

প্রবাসী বাংলাদেশিদের দেশে আরো বিনিয়োগ করার আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, নানা উদ্যোগের পরও কোথাও কোনো বাধা থেকে থাকলে, সরকার তা দূর করবে।

স্কটল্যান্ডের গ্লাসগোতে সোমবার রাতে প্রবাসী বাংলাদেশিদের এক নাগরিক সংবর্ধনায় ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে এ প্রতিশ্রুতি দেন সরকারপ্রধান।

তিনি বলেছেন, “প্রবাসীদের জন্য কিন্তু বিশেষ ব্যবস্থা করা আছে। তারপরও আপনারা যখন বলছেন, আপনারা যদি আমাকে একটু জানান যে কে কে কোথায় কোন ক্ষেত্রে বিনিয়োগ করতে গিয়ে সমস্যায় পড়েছেন। অবশ্যই আমি তদন্ত করে দেখব যে কী সমস্যাটা হয়েছিল, কেন হলে, কেন পারলেন না। এটাতো না পারার কথা না।”

বিনিয়োগ করার ক্ষেত্রে সমস্যা থাকলে তা দূর করতে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেওয়া হবে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, “বিদেশি বিনিয়োগের জন্য সব রকম সুযোগ সুবিধা আমরা দিচ্ছি। এমনকি আমরা রোড শোও করছি।”

কীভাবে বিনিয়োগ করতে হবে সেসব নির্দেশনা অনলাইনেই পাওয়া যায় জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, “ইতোমধ্যে বিডাতে (বাংলাদেশ বিনিয়োগ ও উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ) সব ধরনের নির্দেশনা দেওয়া আছে। যা আপনারা বিডাতে অনলাইনে গেলে সব পেয়ে যাবেন।”

প্রধানমন্ত্রী দেশের ১০০টি অর্থনৈতিক অঞ্চলে প্রবাসীদের বিনিয়োগ করার সুযোগের কথা তুলে ধরেন। তিনি বলেন, বিনিয়োগ বন্ড ও প্রিমিয়াম বন্ডেও প্রবাসীরা বিনিয়োগ করতে পারেন।

দেশে ‘প্রচুর’ বিদেশি বিনিয়োগ আসছে জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, “আমি এইটুকু বলব যে বাংলাদেশকে আমরা সার্বিকভাবে উন্নতি করে দিচ্ছি।”

রেমিট্যান্স পাঠালে তার ওপর নগদ প্রণোদনা দেওয়ার বিষয়টি তুলে ধরে তিনি বলেন, “২ শতাংশ প্রণোদনার দাবি কেউ ওঠাননি। এটা কোনোদিন কারো মাথায়ও আসেনি। স্বেচ্ছায় আমি নিজে থেকে দিয়েছিলাম।”

দারিদ্র্য দূর করতে সরকারের নেওয়া বিভিন্ন পদক্ষেপের কথা তুরে ধরে সরকারপ্রধান বলেন, “আপনারা জেনে খুশি হবেন, আমাদের প্রায় ৪৯৫টা উপজেলা, প্রত্যেকটা ইউনিয়ন আমরা কিন্তু সার্ভে করি… এই সার্ভে করে পেলাম যে মাত্র ১০টা উপজেলায় এখনও কিছু দরিদ্র মানুষ আছে। মাত্র ১০টা উপজেলায়… সেই কুড়িগ্রামের ২/৩টা, দিনাজপুরের একটা এ রকম কয়েকটা।

“আমি ইতোমধ্যে নির্দেশ দিয়েছি যে এই ১০ জায়গায় কী কারণে এখনো মানুষ বেশি দরিদ্র আছে, এটা দেখাতে হবে। এই দারিদ্র্য কীভাবে দূর করব, তার প্ল্যান প্রোগাম করতে ইতোমধ্যে আমি নির্দেশ দিয়ে দিয়েছি। ইনশাল্লাহ কয়েক মাসের মধ্যেই আমরা এই অবস্থার পরিবর্তন করে ফেলব। কাজেই বাংলাদেশে আর হতদরিদ্র থাকবে না।”

বিশ্ব জলবায়ু সম্মেলনের ২৬ তম আসরে যোগ দিতে ৩১ অক্টোবর গ্লাসগোতে পৌঁছান প্রধানমন্ত্রী। আগামী ৩ নভেম্বর তিনি লন্ডনে যাবেন। এরপর ৯ নভেম্বর যাবেন প্যারিস সফরে। দুই সপ্তাহের সফর শেষে আগামী ১৪ নভেম্বর তার দেশে ফেরার কথা রয়েছে।