পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

হাউজ বিল্ডিং ফাইনান্স ও বহি সাক্ষ্য বিলের প্রতিবেদন চূড়ান্ত

  • নিজস্ব প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-11-03 23:01:13 BdST

bdnews24

সংসদে উত্থাপিত দুটি বিল পরীক্ষা করে প্রতিবেদন চূড়ান্ত করেছে অর্থ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি।

বুধবার সংসদ ভবনে কমিটির বৈঠকে ‘বাংলাদেশ হাউজ বিল্ডিং ফাইনান্স কর্পোরেশন (অ্যামেন্ডমেন্ট) বিল- ২০২১’ এবং ‘ব্যাংকার বহি সাক্ষ্য বিল- ২০২১’ নিয়ে আলোচনা হয়।

সংসদ সচিবালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, বিল দুটি পরীক্ষা করে কমিটি বৈঠকে প্রতিবেদন চূড়ান্ত করেছে। আগামী সংসদ অধিবেশনে প্রতিবেদন সংসদে উপস্থাপন করা হবে। 

গত ১৪ জুন বিদ্যমান হাউজ বিল্ডিং ফাইনান্স কর্পোরেশন আইন সংশোধনের প্রস্তাব সংসদে ওঠে।

বর্তমান আইনে বলা আছে, কর্পোরেশনের কাছ থেকে কেউ যদি ঋণ গ্রহণে ইচ্ছাকৃতভাবে মিথ্যা বিবরণী দেন বা জেনে শুনে মিথ্যা বিবরণী ব্যবহার করেন বা কর্পোরেশনে যে কোনো ধরনের জামানত গ্রহণে প্রবৃত্ত হন তাহলে দুই বছর কারাদণ্ড, দুই হাজার টাকা পর্যন্ত জরিমানা বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবেন।

বিলে সেটাকে বাড়িয়ে পাঁচ বছর কারাদণ্ড এবং পাঁচ লাখ টাকা পর্যন্ত জরিমানার প্রস্তাব করা হয়েছে।

লিখিত সম্মতি ছাড়া প্রসপেক্টাসে বা বিজ্ঞাপনে বিএইচবিএফসির নাম ব্যবহারের সাজা হিসেবে আগে ছয় মাসের কারাদণ্ড ও একহাজার টাকা জরিমানা ছিল। জরিমানা বাড়িয়ে ৫০ হাজার টাকা প্রস্তাব করা হয়েছে খসড়ায়।

১৪ জুন অর্থমন্ত্রী আহম মুস্তফা কামাল ডিজিটাল লেনদেনের নথি ও দলিল ‘সাক্ষ্য বহি’ হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করতে এ সম্পর্কিত ঔপনিবেশিক আমলের আইন বাতিল করতে ‘ব্যাংকার সাক্ষ্য বহি বিল-২০২১’ সংসদে তোলেন।

ব্যাংকের লেজার বুক, ক্যাশ বুক এগুলোকে সাক্ষ্য বই বলা হয়। ১৮৯১ সালের এ সংক্রান্ত আইন বাতিল করে নতুন আইন করতে বিলটি আনা হয়েছে।

প্রস্তাবিত আইনে ডিজিটাল পদ্ধতিতে যে সব রেকর্ড হবে সেগুলোও ‘সাক্ষ্য বহি’ হিসেবে আইনে বিবেচিত হবে। ব্যাংকগুলোর লেজার বুক, ক্যাশ বুক, লোন ডেসপাস বুক যা আছে- সবই এর অন্তর্ভুক্ত হবে।

বিল দুটি সংসদে তোলার পর সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে পাঠানো হয়।

কমিটির সভাপতি আবুল হাসান মাহমুদ আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে কমিটির সদস্য অর্থমন্ত্রী আহম মুস্তফা কামাল,মো.আব্দুস শহীদ, কাজী নাবিল আহমেদ এবং রুমানা আলী অংশ নেন।