ঢাকার বায়ু দূষণ বড় চ্যালেঞ্জ: কৃষিমন্ত্রী

  • ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2019-11-27 18:00:58 BdST

bdnews24

রাজধানীর বায়ু দূষণকে বড় ধরনের চ্যালেঞ্জ হিসেবে দেখছেন কৃষিমন্ত্রী আব্দুর রাজ্জাক।

তবে এ বিষয়ে সরকার সচেতন আছে এবং আন্তরিকতার সাথেই তা মোকাবিলা করা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

 বুধবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘টেকসই ভবিষ্যতের জন্য সবুজ পরিবেশ’ বিষয়ক আন্তর্জাতিক সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দিচ্ছিলেন মন্ত্রী।

আব্দুর রাজ্জাক বলেন, “আজকে ঢাকা নাকি বিশ্বের এক নম্বর বায়ু দূষণের শহর। হয়তো হয়েছে, আমি জানিনা কিভাবে গবেষণা করেছে। এটি আমাদের জন্য খুবই বড় চ্যালেঞ্জ। তবে সরকার এ ব্যাপারে সচেতন আছে।

সম্প্রতি একটি রিট মামলার সম্পূরক আবেদনের শুনানিতে হাই কোর্ট ঢাকার বায়ু দূষণ কমাতে অভিন্ন নীতিমালা প্রণয়নের জন্য পরিবেশ সচিবের নেতৃত্বে উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন কমিটি গঠনের নির্দেশ দিয়েছে।

কৃষিমন্ত্রী বলেন, “যে বায়ু দূষণের কথা উঠেছে. আমাদের আগামী প্রজন্মকে এটা নিশ্চিত করতে চাই, আমরা পরম আন্তরিকতা দিয়ে এবং সীমিত সম্পদ দিয়ে তা মোকাবেলা করব।”

তিনি বলেন, সরকার জলবায়ুর বিরূপ প্রভাবের বিষয়টি বিবেচনায় নিয়েই একটি জাতীয় সমন্বয় কমিটি গঠন করেছে।

“প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে একজন জাতীয় সমন্বয়ক নিয়োগ করা হয়েছে। একটি সেল প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে, তারা সার্বক্ষণিকভাবে টেকসই উন্নয়ন লক্ষমাত্রার (এসডিজি) ওপর কাজ করে। আমি আপনাদের নিশ্চয়তা দিতে চাই যে, সরকারের যথেষ্ট পরিকল্পনা আছে এই বিষয়ে।”

নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবন মিলনায়তনে আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক উপ-কমিটি দুইদিনব্যাপী এই সম্মেলনের আয়োজন করে।

আব্দুর রাজ্জাক বলেন, “খাদ্য নিরাপত্তার তিনটি পিলার। তার একটি হল খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা। আজকে ধানে আমরা স্বয়ংসম্পূর্ণ। আমাদের দেশে আলুর চাহিদা ৬০-৭০ লাখ টন, আমরা সেখানে এক কোটি ১০ লাখ টন আলু উৎপাদন করি। প্রায় ৪০ লাখ টন আলু আমাদের উদ্বৃত্ত হয়। ডিম, মাছ, মাংস উৎপাদনেও আমাদের উদ্বৃত্ত আছে। আসলে উদ্বৃত্ত না, মানুষের যে পরিমাণ পুষ্টিজাতীয় খাবার দরকার, সে খাবার তারা কিনে খেতে পারে না। তাদের আয় কম। কাজেই বাংলাদেশ সরকারের চ্যালেঞ্জ হল মানুষের আয় বাড়ানো।”

এর আগে সম্মেলনের উদ্বোধন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য মো. আখতারুজ্জামান।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ, সম্মেলনের চেয়ার আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক উপ-কমিটির চেয়ারম্যান খন্দকার বজলুল হক, সম্মেলনের আয়োজক সভাপতি মোহাম্মদ আফতাব আলী শেখ, আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন প্রমুখ।

আয়োজকরা জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার সিরডাপ মিলনায়তনসহ ঢাকা বিশ্বদ্যিালয়ের ভূতত্ত্ব বিভাগ, উদ্ভিদ বিজ্ঞান, সেন্টার ফর এক্সিলেন্স ইন সায়েন্সেস এ দ্বিতীয় দিনের আনুষ্ঠানিকতা হবে।