বেসরকারি পর্যায়েও ব্লক ইটের ব্যবহার চায় টিআইবি

  • নিজস্ব প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2019-12-19 20:10:27 BdST

bdnews24
ফাইল ছবি

পোড়ামাটির ইটের ব্যবহার থেকে সরে এসে বেসরকারি নির্মাণ কাজেও পরিবেশবান্ধব ব্লক ইটের ব্যবহার বাধ্যতামূলক করার দাবি জানিয়েছে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি)।

বৃহস্পতিবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে সংস্থাটির নির্বাহী পরিচালক ইফতেখারুজ্জামান ব্লক ইট ব্যবহার আংশিক বাধ্যতামূলক করে সরকারের ঘোষণাকে সাধুবাদ জানিয়ে বলেন, “বাংলাদেশে বায়ু দূষণ যে মাত্রায় পৌঁছেছে তা থেকে দেশের পরিবেশ ও নাগরিকদের সুরক্ষা প্রদানে পরিবেশবান্ধব ব্লক ব্যবহারের এ সিদ্ধান্ত উৎসাহব্যঞ্জক।

“তবে এর সুফল কতটুকু পাওয়া যাবে তা নির্ভর করে এই সিদ্ধান্তের কার্যকর প্রয়োগের ওপর।”

এখনই সব ধরনের সরকারি-বেসরকারি কাজে পোড়ামাটির ইটের ব্যবহার নিষিদ্ধ করে বায়ুমান উন্নয়নে পরিবেশবান্ধব সব ধরনের ইট ও নবায়নযোগ্য জ্বালানির ব্যবহার নিশ্চিতে দ্রুত পদক্ষেপের বিকল্প নেই বলে মনে করেন তিনি।

অবৈধ ইটভাটা উচ্ছেদের পাশাপাশি সম্প্রতি নির্মাণ কাজে ধাপে ধাপে পরিবেশবান্ধব ইটের শতভাগ ব্যবহার নিশ্চিত করার পরিকল্পনা ঘোষণা করেছে সরকার।

চলতি অর্থবছরে ব্লক ইট ব্যবহারের লক্ষ্যমাত্রা ১০ শতাংশ দিয়ে শুরু করে পাঁচ বছরে এই লক্ষ্যমাত্রা তা শতভাগে নিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে সরকারের।

ইফতেখারুজ্জামান বলেন, “প্রচলিত ইট ভাটার বায়ুদূষণ ও পরিবেশগত বিপর্যয়ের ক্ষতি মোকাবেলার পাশাপাশি ইট উৎপাদনে কর্মরত শ্রমিকদের অমানবিক জীবন রক্ষায় ভাটাগুলো বন্ধে অনতিবিলম্বে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ এবং দ্রুততম সময়ে তা বাস্তবায়নে সমন্বিত উদ্যোগ গ্রহণ করতে হবে।”

নতুন সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সরকারি প্রকল্পে ইটের ব্যবহার মাত্র ৩০ শতাংশ কমবে যার মাধ্যমে দূষণ নিয়ন্ত্রণ কাঙিক্ষত পর্যায়ে অর্জিত হবে না মন্তব্য করে তিনি বলেন, “বেসরকারি নির্মাণ খাতে পরিবেশবান্ধব ব্লক ব্যবহার আইন করে বাধ্যতামূলক করা না হলে এবং ভাটায় পোড়ানো ইটের তুলনায় পরিবেশবান্ধব ব্লক উৎপাদন, সরবরাহ এবং ব্যবহারে প্রণোদনা প্রদানে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ না করলে বায়ুদূষণ মোকাবেলায় সরকারি এই সিদ্ধান্ত প্রত্যাশিত ফল প্রদান নাও করতে পারে।“

দেশের ৬৪ জেলায় বর্তমানে আট হাজার ৩৩টি ইটভাটা রয়েছে। এর মধ্যে পরিবেশগত ছাড়পত্র রয়েছে পাঁচ হাজার ২২৫টির।

ইটের বদলে ‘ব্লক’ ব্যবহার উৎসাহিত করতে ইট প্রস্তুত ও ভাটা স্থাপন (নিয়ন্ত্রণ) (সংশোধন) আইন-২০১৯ এ বছর সংসদে পাস হয়।