২৪ মার্চ ২০১৯, ১০ চৈত্র ১৪২৫

বাংলাদেশে মৃণাল সেনের পৈত্রিক বাড়ি সংরক্ষণের দাবি

  • গ্লিটজ প্রতিবেদক বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2019-01-13 01:08:42 BdST

bdnews24

বাংলাদেশে মৃণাল সেনের স্মৃতি রক্ষায় তার জন্মস্থান ফরিদপুরে এই চলচ্চিত্র নির্মাতার পৈত্রিক বাড়ি সংরক্ষণের দাবি করেছেন সংস্কৃতিকর্মীরা।

শুক্রবার বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় সংগীত ও নৃত্যকলা কেন্দ্র মিলনায়তনে নির্মাতা  মৃণাল সেনের স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি, ফেডারেশন অব ফিল্ম সোসাইটিজ অব বাংলাদেশ ও বাংলাদেশ শর্ট ফিল্ম ফোরামের উদ্যোগে আয়োজিত সভায় মৃণাল সেনের স্মৃতি ও তার নির্মিত চলচ্চিত্রের মূল্যায়নধর্মী আলোচনা করেন বক্তারা।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকী, ফেডারেশন অব ফিল্ম সোসাইটিজ অব ইন্ডিয়ার সহ-সভাপতি প্রেমেন্দ্র মজুমদার, বাংলাদেশের চলচ্চিত্র সমালোচক ও লেখক মাহমুদুল হোসেন, বাংলাদেশ শর্ট ফিল্ম ফোরামের সভাপতি জাহিদুর রহিম অঞ্জন, ফেডারেশন অব ফিল্ম সোসাইটিজ অব বাংলাদেশের সাধারণ সম্পাদক বেলায়াত হোসেন মামুন, চলচ্চিত্র নির্মাতা আকরাম খান, কবি ও চলচ্চিত্রকার টোকন ঠাকুর, শব্দগ্রাহক নাহিদ মাসুদ, চলচ্চিত্র সংসদ আন্দোলনের জেষ্ঠ্য সদস্য সিরাজুল ইসলাম খান, এফএফএসবি-এর সহ-সভাপতি সুশীল সূত্রধর প্রমুখ। 

সভার শুরুতে মৃণাল সেন স্মরণে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। এরপর প্রদীপ প্রজ্বালনের মধ্য দিয়ে মৃণাল সেন স্মরণসভা শুরু হয়।

কিশোরগঞ্জে সত্যজিৎ রায়ের পৈত্রিক বাড়ি এবং রাজশাহীতে ঋত্বিক কুমার ঘটকদের বাড়িটি সংরক্ষণ করা হয়েছে, তেমনি ফরিদপুরে মৃণাল সেনের পৈত্রিক বাড়িটি সংরক্ষণের দাবি করেন বক্তারা।

সেখানে ‘মৃণাল সেন স্মৃতি জাদুঘর’ গড়ে তোলারও প্রস্তাব করেন তারা।

উপমহাদেশের খ্যাতনামা চলচ্চিত্রকার মৃণাল সেন গত ৩০ ডিসেম্বর ৯৬ বছর বয়সে মারা গেছেন। ১৯২৩ সালের ১৪ মে বাংলাদেশের ফরিদপুর জেলায় জন্মগ্রহণ করেন তিনি।

বাংলা ভাষার চলচ্চিত্রের বিকাশে সত্যজিৎ রায়, ঋত্বিক কুমার ঘটকের পাশাপাশি মৃণাল সেনের নাম উচ্চারিত হয়।