ইউনেস্কোর স্বীকৃতি পেলেন পূজা ও তুরঙ্গমী

  • গ্লিটজ প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2019-08-06 18:09:24 BdST

ইউনেস্কো’র আন্তর্জাতিক ড্যান্স কাউন্সিলের সদস্য হয়েছেন বাংলাদেশি নৃত্যশিল্পী ও নির্দেশক পূজা সেনগুপ্ত এবং তুরঙ্গমী স্কুল অব ড্যান্স।

মঙ্গলবার গ্লিটজকে তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন পূজা নিজেই। তিনি জানান, এখন থেকে ইউনেস্কোর বিভিন্ন অনুষ্ঠানে অংশ নিতে পারবেন তিনি ও তার দল। শুধু তাই নয়, দেশে আন্তর্জাতিকমানের যে কোন নৃত্যানুষ্ঠান আয়োজনেও পরিপূর্ণ সহায়তা করবে ইউনেস্কো।

বাংলাদেশে পেশাদারি ভিত্তিতে নৃত্যচর্চা এবং বাংলা সাহিত্যকে অবলম্বন করে বাংলাদেশের নিজস্ব সমসাময়িক নৃত্যধারা তৈরির লক্ষ্য নিয়ে ২০১৪ সালের ৩১ জানুয়ারিতে তুরঙ্গমী রেপার্টরী ড্যান্স থিয়েটার প্রতিষ্ঠা করেন পূজা সেনগুপ্ত। এটিই বাংলাদেশের প্রথম ড্যান্স থিয়েটার ও নৃত্যভিত্তিক রেপার্টরি। এই নৃত্যদলের প্রতিষ্ঠার চার বছর পূর্তিতে ২০১৮ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় তুরঙ্গমী স্কুল অব ড্যান্স। পদ্ধতিগত নৃত্যশিক্ষার পাশাপাশি নৃত্য নিয়ে গবেষণা ও নৃত্যের নতুন আঙ্গিক নির্মাণ নিয়ে কাজ করছে তুরঙ্গমী স্কুল অব ড্যান্স।

তুরঙ্গমীর এই কর্মধারার আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি দিলো জাতিসংঘের শিক্ষা, বিজ্ঞান ও সংস্কৃতি বিষয়ক সংস্থা ইউনেস্কো। প্রতিষ্ঠার মাত্র চার বছরেই এমন অর্জন প্রসঙ্গে পূজা বলেন, “আমরা অত্যন্ত আনন্দিত। এমন স্বীকৃতি আমাদের সামনে পথ চলতে অনেক সহযোগিতা করবে। আমি যে কাজগুলো করে এসেছি তা আমার একান্ত নিজের সৃষ্টি। যে স্বীকৃতি পেলাম তা নিঃসন্দেহে বাংলাদেশে নৃত্য গবেষণা ও উন্নয়নে অনুপ্রেরণা জোগাবে এবং আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বাংলাদেশের সংস্কৃতি ও নৃত্যকে সুপ্রতিষ্ঠিত করতে তুরঙ্গমীর চলমান প্রয়াস আরও গতিশীল হবে।”

বর্তমানে পূজা ও তার দল ভিয়েতনামের প্রেসিডেন্ট হো চি মিনের উপর একটি আত্মজৈবনিক নৃত্য পরিবেশনা নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছে। আসছে সেপ্টেম্বরেই তারা তাদের পরিবেশনাটি মঞ্চে নিয়ে আসবে।