পরিচ্ছন্ন টয়লেট চান অভিনেত্রী নাবিলা

  • নিজস্ব প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2019-11-18 20:20:06 BdST

bdnews24

ঢাকা শহরে অর্ধেক নারী মূত্রনালীর সংক্রমণ বা ইউটিআই রোগে ভোগেন, পরিচ্ছন্ন টয়লেটের অভাবে প্রস্রাব চেপে রাখাকে যার প্রধান কারণ হিসাবে দায়ী করা হয়।

এমন সংক্রমণ থেকে মুক্তি পেতে উচ্চকণ্ঠ হয়েছেন অভিনেত্রী মাসুমা রহমান নাবিলা; নগরের নানা প্রান্তে পরিচ্ছন্ন টয়লেট নির্মাণের দাবি জানিয়েছেন তিনি।

হারপিকের একটি ক্যাম্পেইনে একাত্মতা প্রকাশ করে ’আয়নাবাজি’ চলচ্চিত্রের এই অভিনেত্রী বলেন, ”কর্মজীবী নারীরা অনেক সময় ঘরের বাইরে থাকে। তখন টয়লেট ব্যবহারের প্রয়োজন হলেও তারা ব্যবহার করে না। সে ক্ষেত্রে সবচেয়ে বড় সমস্যা হতে পারে ইউটিআই। যা থেকে হতে পারে ক্যান্সার।

”তাই আসুন, ইউটিআই সম্পর্কে সচেতন হই এবং ঘরের বাইরে পরিষ্কার ও পরিচ্ছন্ন টয়লেটের দাবি জানাই। কারণ ঘরের বাইরে পরিচ্ছন্ন টয়লেট আমাদের সকলের অধিকার।”

বর্তমানে জীবনযাত্রার মানের সঙ্গে সমানতালে এগিয়ে গেলেও চলার পথে নারীরা বহুবিধ ‘চ্যালেঞ্জের’ সম্মুখীন হচ্ছে বলেও মন্তব্য করেন নাবিলা।

তিনি বলেন, ”এই চলার পথে আমরা নারীরা প্রায়ই অনেক রকমের চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হই, কিন্তু সেই চ্যালেঞ্জ অতিক্রম করেই আমরা খুব সুন্দরভাবে ঘরে ও বাইরে সমান তালে কাজ করে যাচ্ছি। আমাদের চলার পথে সবচেয়ে বেশি যে সমস্যার সম্মুখীন হই, সেটা হচ্ছে সচরাচর পরিচ্ছন্ন ও জীবাণুমুক্ত টয়লেট পাই না।”

২০১৬-২০১৭ সালে ২০০ জন নারীর ওপর চালানো এক গবেষণা জরিপে দেখা যায়, ঢাকা শহরে ৮০ শতাংশ নারী ঘর থেকে বের হওয়ার সময় পানি খান না।

 

টয়লেটে যাতে না যেতে হয় সেজন্য নারীদের এমন অনীহা বলে উঠে আসে সেই গবেষণায়।

এসব কারণে নারীদের ইউরিনারি ট্র্যাক্ট ইনফেকশন (ইউটিআই), কিডনির সমস্যাসহ নানাবিধ স্বাস্থ্যগত ঝুঁকি দেখা দেয়।

গবেষণায় দেখা যায়, ঘরের বাইরে নারীদের ব্যবহার উপযোগী টয়লেট না থাকায় একদিকে যেমন অর্থনীতিতে তার প্রভাব পড়ে, অন্যদিকে স্বাস্থ্য ঝুঁকির মধ্যে পড়ে। স্বাস্থ্যগত ঝুঁকির কারণে নারী কর্মক্ষমতা হারায়।

নাগরিক জীবনে অভ্যস্ত নারীরা এ ধরনের সমস্যা মোকাবেলা করে বেশি। অফিস-আদালত, হাসপাতাল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়, মার্কেট, শপিং মল, বাস বা রেল স্টেশনের মতো সাধারণ জায়গায়, যেখানে নারী-পুরুষ উভয়েরই যাতায়াত ও বিচরণ, সেখানে নারীরাই সবচেয়ে বেশি ভোগান্তির শিকার হয়ে থাকেন।

এমন পরিস্থিতিতে #HarpicAgainstUTI নামে ক্যাম্পেইন শুরু করেছে হারপিক, যার সঙ্গে একাত্ম হয়েছেন অভিনেত্রী নাবিলা।

হারপিকের ফেইসবুক পাতা থেকে https://www.facebook.com/harpicbd/ ক্যাম্পেইন সর্ম্পকে বিস্তারিত জানা যাবে।