ঢাকা কেন্দ্রিক ছবিতে ক্রিস হেম্সওর্থ

  • গ্লিটজ ডেস্ক বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-02-19 13:12:36 BdST

বাংলাদেশে না এসেও ঢাকাকে কেন্দ্র করে গড়ে ওঠা কাহিনি নিয়ে চলচ্চিত্রে অভিনয় করলেন ‘থর’ খ্যাত অভিনেতা ক্রিস হেম্সওর্থ। ছবির নাম ‘এক্সট্র্যাকশন’।

যদিও ছবিটার নাম হওয়ার কথা ছিল ‘ঢাকা’। পরে সেই নাম পরিবর্তন করা হয়।

আর এই ছবির ‘ফাস্ট লুক’ বা প্রথম দর্শনের কয়েকটি ছবি প্রকাশ করেছে যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম ‘ইউএসএ টুডে’।

ঢাকার মতো পরিবেশ তৈরি করে ছবির শুটিং সারা হয় ভারত এবং থাইল্যান্ডে। আর ছবিতে হেম্সওর্থকে দেখা যাবে টেইলর রেইক চরিত্রে। যে একজন ভাড়াটে সৈনিক হিসেবে ঢাকায় আসেন আন্তর্জাতিক অপরাধ জগতের এক নেতার ছেলেকে অপহরণকারীদের কাছ থেকে উদ্ধার করতে।

এই ছবি তৈরির মাধ্যমে পরিচালক হিসেবে প্রথমবারের মতো নাম লেখালেন স্যাম হারগ্রেইভ। মজার বিষয় হলে হারগ্রেইভ হলিউডের একজন নামকরা ‘স্টান্ট ম্যান’। আর তিনি হেম্সওর্থের সঙ্গে ‘অ্যাভেঞ্জারস: ইনফিনিটি ওয়ার’ এবং ‘এন্ডগেইম’ ছবিতে স্টান্ট সমন্বকারী এবং ‘সেকেন্ড ইউনিট ডিরেক্টর’ হিসেবে কাজ করেছেন। এছাড়া মার্ভেলের বিভিন্ন ছবিতে ক্যাপ্টেন আমেরিকা খ্যাত ক্রিস ইভান্সের ‘স্টান্ট ডাবল’ হিসেবেও মারামারি চালিয়ে গেছেন।

ছবি: নেটফ্লিক্স

ছবি: নেটফ্লিক্স

‘ইউএসএ টুডে’কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে হারগ্রেইভ বলেন, “হেম্সওর্থকে যতই রক্তাত্ব আর ময়লাযুক্ত দেখানোর চেষ্টা করি না কেনো, তাকে কোনোভাবেই মলিন দেখায় না। বলতে গেলে এখানেই আমার ব্যর্থতা।”

তিনি আরও বলেন, “এই ছবিতে হেম্সওর্থ একজন সাধারণ ভাড়াটে সৈনিক হিসেবে কাজ করেছেন। যার রয়েছে কালো একটা অতীত; নিজের ছেলেকে হারানোর পর তার কোনো পিছুটান নেই। ছবিতে যতটা শারীরিক সাহসের বিষয় দেখানো হয়েছে তারচেয়ে বেশি ফুটে উঠেছে মানসিক ভীরুতা।”

“আর অপহৃত ছেলেকে উদ্ধার করতে গিয়ে উপলব্ধি হয় এই পৃথিবীতে তার ভালো কিছুও দেওয়ার রয়েছে।”

পরিচালক ছবিটা সম্পর্কে এভাবে বললেও হেম্সওর্থের অনুভূতি একটু অন্যরকম। কারণ নিজে তিন সন্তানের জনক হিসেবে তিনি মনে করেন, এই ধরনের পরিস্থিতি একজন বাবার জন্য কতটা কঠিন হতে পারে।

ছবি: নেটফ্লিক্স

ছবি: নেটফ্লিক্স

সাক্ষাৎকারে হেম্সওর্থ বলেন, “প্রায় তিন মাস থাইল্যান্ড এবং ভারতে থাকতে হয়েছে ছবির কাজের জন্য। এসময়ের মধ্যে আমার সন্তানদের যেভাবে ‘মিস’ করেছি, সেই অনুভূতির অনেকটাই প্রকাশ পেয়ে গেছে ছবিতে অভিনয় করতে গিয়ে।” 

এদিকে ‘এক্সট্র্যাকশ’ হয়েছে মার্ভেলের কলাকুশলীদের এক মিলনমেলা। কারণ ছবির চিত্রনাট্য লিখেছেন অ্যাভেঞ্জারস খ্যাত জো রুসো; পাশপাশি সহ-পরিচালক হিসেবে কাজ করেছেন তার ভাই অ্যান্থোনি রুসো। অভিনয়ে আরও আছেন ডেভিড হার্বার এবং ডেরেক ল্যুক, যারা অভিনয় করেছেন মুক্তি পেতে যাওয়া ‘ব্ল্যাক উইডো’ ছবিতে।

নেটফ্লিক্স প্রযোজিত ছবিটির ‘স্ট্রিমিং’য়ের সম্ভাব্য তারিখ ধরা হয়েছে ২৪ এপ্রিল।