করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব- তবুও সুন্দরবনে শুটিংয়ে পরীমনি

  • গ্লিটজ প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-03-19 16:38:18 BdST

bdnews24
ছবি: ফেইসবুক থেকে নেওয়া

বৈশ্বিক মহামারী রূপে ছড়িয়ে পড়া নতুন করোনাভাইরাসের মধ্যে ঢালিউডের একাধিক চলচ্চিত্রের শুটিং স্থগিত করা হলেও ‘অ্যাডভেঞ্চার অব সুন্দরবন’ চলচ্চিত্রের শুটিং চলছে; এতে অংশ নিয়েছেন চিত্রনায়িকা পরীমনি।

সাহিত্যিক মুহম্মদ জাফর ইকবালের ‘রাতুলের রাত রাতুলের দিন’ অবলম্বনে সরকারি অনুদানে চলচ্চিত্রটি নির্মাণ করছেন নির্মাতা আবু রায়হান জুয়েল।

শনিবার সদরঘাট থেকে পরীমনিসহ অন্যান্য অভিনয়শিল্পী ও ইউনিটের সদস্যদের নিয়ে ছেড়ে যাওয়া একটি লঞ্চে শুটিং শুরু হয়।

ষষ্ঠদিনের মতো বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা থেকে সুন্দরবনের ভেতরে বিভিন্ন লোকেশনে ছবির দৃশ্যধারণে পরীমনিসহ অন্যান্য অভিনয়শিল্পীরা অংশ নিয়েছেন বলে গ্লিটজকে নিশ্চিত করেছেন ছবির নির্মাতা।

এর আগে শুটিং সেট থেকে বুধবার রাতে পরীমনির এক ফেইসবুক স্ট্যাটাস নিয়ে গুঞ্জন চলছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে; ছবিটি থেকে তিনি সরে আসছেন কি না-তা নিয়েও প্রশ্ন তৈরি হয়।

বিষয়টি নিয়ে পরিচালক রায়হান জুয়েল বললেন, “আমি স্ট্যাটাসটি এখনও দেখিনি। সকাল ১০টা থেকে তো তিনি শুটিং করছেন। আমি তার সঙ্গে এটি নিয়ে বসতে পারিনি। এমনি দিয়েছে নাকি ইমোশনাল হয়ে দিয়েছে-সেটাও আমি জানি না।“

বিষয়টি নিয়ে পরীমনির কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

পরিচালক জানান, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় মধ্যেই পুরো শুটিং ইউনিট কটকা এলাকায় যাবে। করোনা পরিস্থিতির উপর বিবেচনা করে ৩০ মার্চের মধ্যে পুরো চলচ্চিত্রের শুটিং শেষ করে ঢাকায় ফিরবেন তারা।

করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় এর আগে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বায়োপিক ‘বঙ্গবন্ধু’, জি-ফাইজের ওয়েব ফিল্ম ‘যদি…কিন্তু…তবু’র শুটিং স্থগিত করা হয়েছে।

নির্মাতা মাসুদ হাসান উজ্জ্বলের ‘ঊনপঞ্চাশ বাতাস’ ও কামার আহমাদ সাইমনের ‘নীল মুকুট’ ও নির্মাতা চয়নিকা চৌধুরীর ‘বিশ্বসুন্দরী’ চলচ্চিত্রের মুক্তি স্থগিত রাখা হয়েছে।

১৮ মার্চ থেকে ২ এপ্রিল দেশের সব প্রেক্ষাগৃহ বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় রেখে শুটিং ইউনিটে পর্যাপ্ত সতকর্তামূলক ব্যবস্থা রাখা হয়েছে বলে জানালেন রায়হান জুয়েল।

“যারা খাবার পরিবেশন করছেন তাদের মাস্ক, গ্লাভসের ব্যবস্থা করা হয়েছে। বাইরে থেকে ফিরে গরম পানি দিয়ে কাপড় ধোয়া হচ্ছে। সবসময়ের জন্য তিনজন চিকিৎসকের পরামর্শ নিচ্ছি আমরা।”

তারপরও করোনার মধ্যে শুটিং এগিয়ে নেওয়া হবে কি না-তা নিয়ে বুধবার রাতে এক বৈঠক করেন বলে জানান পরিচালক।

“বৈঠকে কেউ একজন যদি বলত, আমরা চলে যেতে চাই তাহলে সরাসরি চলে যেতাম। কিন্তু সবাই এখানে নিরাপদবোধ করছেন।”

পরীমনি ছাড়াও এতে তরুণ অভিনেতা সিয়াম আহমেদসহ একঝাঁক শিশুশিল্পী অভিনয় করছেন।

২০১৮-২০১৯ অর্থবছরে ‘নসু ডাকাত কুপোকাত’ নামে অনুদান পাওয়ার পর ছবির নাম বদলে ‘অ্যাডভেঞ্চার অব সুন্দরবন’ করা হয়। এর চিত্রনাট্য করেছেন জাকারিয়া সৌখিন।