নাট্যাঙ্গনের প্রতিনিধিদের সঙ্গে আলোচনায় তথ্যমন্ত্রী

  • নিজস্ব প্রতিবেদক বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2020-03-19 20:49:32 BdST

bdnews24

‘করোনা ভাইরাস’ নিয়ে কোনো ধরনের গুজব না ছড়ানোর অনুরোধ জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ।

বৃহস্পতিবার বিকেলে রাজধানীর সচিবালয়ে তথ্য মন্ত্রণালয় সভাকক্ষে দেশের নাট্যাঙ্গনের প্রতিনিধিদের সাথে ‘করোনা পরিস্থিতিগত’ মতবিনিময় শেষে দেয়া বক্তব্যে তিনি এ আহ্বান জানান। নাট্যকার মামুনুর রশীদের নেতৃত্বে ডিরেক্টরস গিল্ড, নাট্যকার সংঘ, প্রযোজক সমিতি ও অভিনয় শিল্পী সংঘের প্রতিনিধিবৃন্দ এসময় উপস্থিত ছিলেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আমি দেশবাসীকে অনুরোধ জানাবো, কেউ দয়া করে গুজব ছড়াবেন না। যেমন একটি গুজব ছড়ানো হয়েছে যে, ইউনাইটেড হাসপাতালে চারজন ডাক্তার করোনায় আক্রান্ত, যেটি পুরোপুরি গুজব। এধরণের গুজব ছড়িয়ে জনগণের মধ্যে আতঙ্ক তৈরি করলে সরকার আইন অনুযায়ী কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করতে বদ্ধপরিকর। সাংবাদিক ভাইদের অনুরোধ জানাবো কেউ এধরণের গুজব ছড়ানোর চেষ্টা করলে আপনারাও তা প্রতিহত করবেন।’

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আপনারা জানেন, বোম্বে ও কালকাতায় সব শুটিং বন্ধ করে দেয়া হয়েছে, সমস্ত ব্যবস্থা নেয়া সত্ত্বেও পৃথিবীর বিভিন্ন দেশ করোনা ভাইরাস থেকে নিজেদেরকে মুক্ত রাখতে পারেনি। পৃথিবীর উন্নত দেশগুলোও এ বৈশ্বিক দুর্যোগ থেকে মুক্ত থাকতে পারেনি। ইটালি এবং স্পেন পৃথিবীর উন্নত দেশ, সেখানের পরিস্থিতি ভয়াবহ। আশার কথা একটি- সেটি হচ্ছে চীনে, যেখান থেকে করোনা ভাইরাসের সূত্রপাত, সেখানে তারা এটিকে নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসতে সক্ষম হয়েছে। চীনের তথ্য অনুযায়ী গত ২৪ ঘন্টায় সেখানে একজনও নতুনভাবে আক্রান্ত হয়নি। এটি আশার দিক।’  

নাট্যকার মামুনুর রশীদ জানান, দেশের নাট্যাঙ্গনের সকল সমিতির প্রতিনিধিরা এদিন সন্ধ্যায় বৈঠকে আগামী ২২ থেকে ৩১ মার্চ সকল নাটকের স্যুটিং স্থগিত রাখা হবে কি না, সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত জানাবেন। 

‘করোনাভাইরাস থেকে দেশকে মুক্ত রাখার জন্য সরকারের পক্ষ থেকে নানা পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে, সে মোতাবেক অনেক নির্দেশনাও দেয়া হয়েছে, কিন্তু অনেক প্রবাসী ভাই সেটি অনেকক্ষেত্রে মানেননি, যে কারণে অনেকের বিরুদ্ধে আইনগত পদক্ষেপও নিতে সরকার বাধ্য হয়েছে’, বলেন তথ্যমন্ত্রী।

নাট্যকার মামুনুর রশীদের নেতৃত্বে এস এ হক অলীক, ইরেশ জাকের, শহীদুজ্জামান সেলিম, সাজু মুন্তাসির, এজাজ মুন্না প্রমুখ সভায় অংশ নেন।