পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

বিমানবন্দরে জিজ্ঞাসাবাদ জ্যাকুলিনকে

  • নিউজ ডেস্ক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-12-05 23:18:39 BdST

bdnews24

২০০ কোটি টাকা প্রতারণার মামলায় জড়িত থাকার অভিযোগে মুম্বাই বিমানবন্দরে জিজ্ঞাসাবাদের মুখোমুখি হলেন জ্যাকুলিন ফার্নান্ডেজ।

রোববার একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিতে দুবাই যাচ্ছিলেন বলিউডের এ নায়িকা।

এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের (ইডি) লুক আউট নোটিসের পর মুম্বাই বিমানবন্দরের ইমিগ্রেশন বিভাগ তাকে আটকে দেয় বলে খবর দেয় এনডিটিভি। তবে জিজ্ঞাসাবাদের পর তাকে ছেড়ে দেওয়া হয় বলে জানিয়েছে ইন্ডিয়া টুডে। 

প্রতারণায় অভিযুক্ত সুকেশ চন্দ্রশেখরের মামলায় ইডি এ লুক আউট নোটিস জারি করে। এর আগে গত অক্টোবরেও একই প্রতারণার মামলায় ইডি একাধিকবার জেরা করেছিল জ্যাকুলিনকে।

তদন্তকারী সংস্থা ইডি সুকেশসহ অন্যদের বিরুদ্ধে ২০০ কোটি টাকা পাচারের মামলায় দিল্লি আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেয়। এ মামলায় অভিযোগ করা হয়, তিহার জেলে থাকার সময় তিনি এক ব্যবসায়ীর স্ত্রীর কাছ থেকে ২০০ কোটি টাকা চাঁদা নেয়।

কেন্দ্রীয় এ সংস্থা জ্যাকুলিনের সঙ্গে সুকেশ চন্দ্রশেখরের আর্থিক লেনদেনের তথ্য খুঁজে পেয়েছে।

এনডিটিভি সূত্রের বরাত দিয়ে জানায়, অভিযোগপত্রে উল্লেখ করা হয়, বলিউড অভিনেত্রীকে ১০ কোটি টাকা মূল্যমানের উপহার দেন সুকেশ, যার মধ্যে ৫২ লাখ টাকার ঘোড়া ও ৯ লাখ টাকার পার্সিয়ান বিড়াল রয়েছে।

ভারতীয় গণমাধ্যমের খবর প্রতারণায় অভিযুক্ত সুকেশের সঙ্গে জ্যাকুলিনের সম্পর্ক নিয়ে বিভিন্ন প্রশ্ন উঠেছে সম্প্রতি। তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক থাকার কথাও চাওর হয়েছে।

এ অভিনেত্রী ছাড়াও ইডির অভিযোগপত্রে সুকেশের কাছ থেকে নোরা ফাতেহির দামি গাড়ি উপহার নেওয়ার খবরও এসেছে।

জেলে থাকা অবস্থাতেই সুকেশ জ্যাকুলিনের সঙ্গে ফোনে কথা বলত বলে তদন্তে উঠে এসেছে। সুকেশের সংশ্লিষ্টতায় এ অভিনেত্রীর অপরাধের বিষয়েও তদ্ন্ত করছে ইডি। এ জন্য তাকে আবার জিজ্ঞাসাবাদ করা হতে পারে বলে জানিয়েছে এনডিটিভি।

সুকেশ এর আগে গণমাধ্যমে জানিয়েছিলেন, তিনি নোরা ফাতেহিকে গাড়ি উপহার দিয়েছিলেন। তবে এ অভিনেত্রীর মুখপাত্র জানান, তিনি ষড়যন্ত্রের শিকার হয়েছিলেন।

ভারতীয় গণমাধ্যমের খবর, এক ওষুধ কোম্পানির সাবেক কর্ণধার মালিক শিবেন্দ্র সিংহ ও মালবেন্দ্র সিংহের পরিবারের সঙ্গে ২০০ কোটি টাকার প্রতারণা করেছিলেন সুকেশ ও তার স্ত্রী লিনা পল। এ মামলায় গ্রেপ্তার হন এ দম্পতি।

অভিযোগপত্রে উল্লেখ করা হয়েছে, সুকেশের সঙ্গে জ্যাকুলিনের কথাবার্তা শুরু হয় চলতি বছরের শুরুর দিকে। এরপর থেকেই দামি উপহার পাঠানো শুরু করেন সুকেশ। এরমধ্যে পার্সি বিড়াল ও ঘোড়া ছাড়াও অলঙ্কার, চিনামাটির তৈরি বাসনপত্র ছিল।