পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

একদিনে বছরের সর্বোচ্চ ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে ভর্তি

  • জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-07-27 20:38:11 BdST

bdnews24
ফাইল ছবি

করোনাভাইরাস সংক্রমণের অতি বিস্তারের মধ্যে নতুন উদ্বেগের জন্ম দিয়ে একদিনে বছরের সর্বোচ্চ ১৪৩ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

মঙ্গলবার সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তের এই সংখ্যা নিয়ে এ বছর ডেঙ্গু রোগী প্রায় দুই হাজার ছুঁয়েছে। আগের দিন সোমবার ভর্তি হয়েছিলেন ১২৩ জন।

বর্ষা মৌসুমের শুরু থেকে এ বছর এইডিস মশাবাহিত এই ভাইরাস জ্বরের প্রাদুর্ভাব বেড়েছে। এ বছর জুলাই মাসের আরও চারদিন বাকি থাকতেই ইতিমধ্যে গত বছর হাসপাতালে ভর্তি মোট ১ হাজার ৪০৫ জন ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা পেরিয়ে গেছে।

করোনাভাইরাস মহামারীর মধ্যে এই রোগে আক্রান্তদের আলাদা চিকিৎসার জন্য ঢাকার কয়েকটি হাসপাতালকে নির্ধারণ করেছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

অন্যদিকে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় ডেঙ্গুর ভাইরাসবাহী এইডিস মশা ধ্বংসে হাসপাতালে ভর্তি রোগীর ঠিকানা নিয়ে আক্রান্ত ব্যক্তির এলাকার আশেপাশে অভিযান চালানোর ঘোষণা দিয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানিয়েছে, সোমবার সকাল আটটা থেকে মঙ্গলবার সকাল আটটা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় ১৪৩ জন নতুন রোগী ভর্তি হয়েছেন। এ নিয়ে এ বছর এখন পর্যন্ত ১ হাজার ৯৪৫ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়েছেন।

বর্তমানে সারাদেশে ৫০৯ জন রোগী হাসপাতালে ভর্তি আছেন, যারমধ্যে ঢাকার বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন ৫০০ জন রোগী।

এ বছর এই ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ১ হাজার ৫৭৩ জন শনাক্ত হয়েছেন জুলাই মাসেই।

এছাড়া জানুয়ারিতে ৩২ জন, ফেব্রুয়ারিতে ৯ জন, মার্চে ১৩ জন, এপ্রিলে ৩ জন, মে মাসে ৪৩ জন এবং জুনে ২৭২ জন রোগী ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন।

গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে শনাক্ত ১৪৩ জন রোগীর মধ্যে ১৪২ জনই ঢাকার।

যেখানে ডেঙ্গু রোগী, সেখানেই অভিযান: তাজুল  

ডেঙ্গু আক্রান্তদের জন্য আলাদা হাসপাতাল:স্বাস্থ্যমন্ত্রী  

কোভিড মহামারীতে নতুন আতঙ্ক ডেঙ্গু  

ডেঙ্গুর ঝুঁকি বেশি লালমাটিয়া-সায়েদাবাদে: জরিপ

ঢাকায় এইডিস মশা বেশি যেখানে

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানিয়েছে এখন পর্যন্ত ৩ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। তবে এসব মৃত্যু ডেঙ্গুর কারণে কিনা তা এখনও নিশ্চিত করেনি আইইডিসিআর।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের গত এক সপ্তাহের তথ্যে দেখা গেছে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে রোগী ভর্তির পরিমাণ ক্রমেই বাড়ছে।

পরিসংখ্যান থেকে দেখা গেছে, গত কয়েক দিনে হাসপাতালে রোগী ভর্তির পরিমাণ বেড়েছে। ২৬ জুলাই ভর্তি হয়েছেন ১২৩ জন, ২৪ জুলাই ১০৪ জন, ২৫ জুলাই ১০৫ জন, ২৩ জুলাই ৮৫ জন, ২২ জুলাই ২৫ জন এবং ঈদের দিন ২১ জুলাইতেও ১৩ জন ডেঙ্গু নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন।

বাংলাদেশে ২০১৯ সালে সারাদেশে ডেঙ্গুর প্রকোপ ছিল অতীতের যে কোনো সময়ের চেয়ে বেশি। ওই বছর প্রথমবারের মতো ডেঙ্গু বিস্তৃত হয়েছে ৬৪ জেলায়।

সে সময় ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা এক লাখ ছাড়ায়, এ রোগে আক্রান্ত হয়ে ১৪৮ জনের মৃত্যু নিশ্চিত করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের রোগ নিয়ন্ত্রণ শাখা।

যদিও ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন জেলার হাসপাতাল ও চিকিৎসকদের কাছ থেকে আড়াইশ’র বেশি মানুষের এই রোগে মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

২০২০ সালে ডেঙ্গুর প্রকোপ কিছুটা কম ছিল। সে বছর ১ হাজার ৪০৫ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে ভর্তি হন। এদের মধ্যে ১২ জনের মৃত্যু ডেঙ্গু সন্দেহে নমুনা আইইডিসিআরে পাঠানো হলে সাত জনের মৃত্যু এই রোগে হয়েছে বলে নিশ্চিত করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।