পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

মানসিক স্বাস্থ্যসেবার কৌশল চালু ব্র্যাকের

  • জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-08-25 23:46:45 BdST

bdnews24

দেশে মানসিক স্বাস্থ্য সমস্যা মোকাবেলার বিষয়টিতে গুরুত্ব দিয়ে ‘মানসিক স্বাস্থ্যসেবার কৌশল’ উদ্বোধন করেছে ব্র্যাক।

বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থাটি বলছে, এই কৌশল বাস্তবায়নের জন্য ২০৩০ সালের মধ্যে চারটি কৌশলগত লক্ষ্য ও এদের আনুষঙ্গিক রূপরেখা প্রণয়ন করা হয়েছে।

নীতিকৌশলটি মানসিক স্বাস্থ্য সমস্যা বিষয়ে জনসচেতনতা বৃদ্ধি ও লোকশিক্ষা, কুসংস্কার দূর এবং বিভিন্ন জনগোষ্ঠীর সংস্কৃতির সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণভাবে ও চাহিদাভিত্তিক মানসিক স্বাস্থ্যসেবা দিতে কাজ করবে।

বুধবার একটি ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানে ব্র্যাক তার মানসিক স্বাস্থ্যসেবার কৌশল উদ্বোধন করে।

এতে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগ দেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (পরিকল্পনা) অধ্যাপক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা।

এনসিডিসির লাইন ডিরেক্টর অধ্যাপক ডা. রোবেদ আমিন এবং বাংলাদেশে জাতিসংঘের আবাসিক সমন্বয়কারী মিয়া সেপ্পোও এতে অংশ নেন।

ব্র্যাকের নির্বাহী পরিচালক আসিফ সালেহর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এই অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন ব্র্যাকের ঊর্ধ্বতন পরিচালক কেএএম মোর্শেদ।

এতে মানসিক স্বাস্থ্যসেবার কৌশলটির বিবরণ উপস্থাপন করেন ব্র্যাক ইনস্টিটিউট অব এডুকেশনাল ডেভেলপমেন্ট (ব্র্যাক আইইডি)-এর পরামর্শক এবং অক্সফোর্ডের কনসাল্টিং ক্লিনিক্যাল সাইকোলজিস্ট ডা. নার্গিস ইসলাম।

কৌশলটির ভিত্তিতে প্রণীত ব্র্যাকের মানসিক স্বাস্থ্য মডেলটির পাইলট বাস্তবায়নের পরিকল্পনা তুলে ধরেন স্বাস্থ্য, পুষ্টি ও জনসংখ্যা কর্মসূচির পরিচালক ডাঃ মোর্শেদা চৌধুরী।

ভার্চুয়াল এ অনুষ্ঠানে অধ্যাপক মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা বলেন, সরকারের স্বাস্থ্য সংক্রান্ত এজেন্ডার মধ্যে মানসিক স্বাস্থ্যসেবায় উন্নতি সাধন অন্যতম। মানসিকভাবে সুস্থ জাতি, মানসিকভাবে সুস্থ বাংলাদেশ গড়তে একই লক্ষ্য সাধনে হাতে হাত মিলিয়ে কাজ করতে হবে।

বাংলাদেশে শতকরা ১৭ জন প্রাপ্তবয়স্ক মানসিক স্বাস্থ্য সমস্যায় ভুগছেন জানিয়ে মিয়া সেপ্পো বলেন, সাধারণ মানুষের মধ্যে মানসিক সেবার চাহিদা ক্রমশ বাড়ছে।

ব্র্যাকের প্রতিষ্ঠাতা স্যার ফজলে হাসান আবেদ মানসিক স্বাস্থ্যকে জনস্বাস্থ্যের একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান বলে বিশ্বাস করতেন বলে জানান আসিফ সালেহ।

তিনি বলেন, “কোভিড-১৯ পরিস্থিতি আমাদের ওপর যে মানসিক প্রভাব সৃষ্টি করেছে , তাতে সবার জন্য এই সেবা উন্নত করতে সবাইকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে।

“দেশের সবার কাছে মানসিক স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছানোর জন্য ব্র্যাক এই কৌশলটি প্রণয়ন করেছে। একে এগিয়ে নিতে সরকার, বেসরকারি সংস্থা, ব্যক্তিমালিকানা প্রতিষ্ঠান এবং উন্নয়ন সহযোগী সবাইকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে।”