পছন্দের খবর জেনে নিন সঙ্গে সঙ্গে

সেপ্টেম্বর শেষে ডেঙ্গুর প্রকোপ কমার আশা স্থানীয় সরকার মন্ত্রীর

  • জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
    Published: 2021-09-03 17:03:29 BdST

bdnews24
ডিবেট ফর ডেমোক্রেসির ছায়া সংসদে স্থানীয় সরকার মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম।

চলতি সেপ্টেম্বর মাসের শেষ দিকে দেশে ডেঙ্গুর প্রকোপ কমে আসতে পারে বলে আশা করছেন স্থানীয় সরকার মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম।

শুক্রবার তেজগাঁওয়ের এফডিসিতে ডিবেট ফর ডেমোক্রেসি আয়োজিত ‘ডেঙ্গুর প্রকোপ রোধে নগরবাসীর সক্রিয় অংশগ্রহণ’ শীর্ষক ছায়া সংসদে তিনি এ কথা বলেন।

তাজুল ইসলাম বলেন, ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে সরকার নানামুখী উদ্যোগ নিয়েছে। এছাড়া আবহাওয়া পরিবর্তন হচ্ছে। এসব কারণে এ মাসের পর থেকে আমাদের দেশে এইডিস মশার উপদ্রব এবং ডেঙ্গু রোগের প্রাদুর্ভাব কমবে বলে আমরা আশা করছি।”

ডেঙ্গুর মৌসুম এলে সরকার মশার নিয়ন্ত্রণে কাজ করে- এমন অভিযোগের বিষয়ে স্থানীয় সরকার মন্ত্রী বলেন, মশার প্রকোপ বাড়লে নিধন শুরু হয়- এটি ‘ঠিক নয়’।

“জানুয়ারি থেকে ডিসেম্বর, মশা নিধন বছর ভর- এই নীতি অনুসরণ করে মশার প্রাদুর্ভাব নিয়ন্ত্রণে কাজ চলছে। প্রতি মাসেই সিটি করপোরেশনসহ সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানকে নিয়ে সভা করে সবার দায়িত্ব ভাগ করে দেওয়া হয়। সবাই অর্পিত দায়িত্ব পালন করেন, কারো অবহেলা করার সুযোগ নেই।”

ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে মৃত ব্যক্তির পরিবারকে সরকার আর্থিক সহায়তা দেবে কি-না এমন প্রশ্নে তাজুল ইসলাম বলেন, ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার থেকে কেউ যদি আবেদন করেন তাহলে তা ‘অবশ্যই’ বিবেচনায় নেওয়া হবে। 

“প্রতিটি মৃত্যুই অত্যন্ত বেদনাদায়ক, এটি আমাদের মর্মাহত করে। আমরা কেউ এ ধরনের মৃত্যু চাই না। দুঃখজনক ভাবে যারা মারা গেছেন, তাদের কোনো পরিবার সহযোগিতা চাইলে সেটা আমলে নেওয়া হবে।”

বর্ষা মৌসুম শুরুর পর থেকেই দেশে ডেঙ্গুর প্রকোপ বেড়ে গেছে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হিসাবে, বৃহস্পতিবার পর্যন্ত এইডিস মশাবাহিত এ রোগে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন ১০ হাজার ৯৮১ জন। এ পর্যন্ত মারা গেছেন ৪৮ জন।

আরও পড়ুন:

ডেঙ্গু: ঢাকায় সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিপূর্ণ গোড়ান-বাসাবো  

ডেঙ্গুর প্রকোপ বেশি ঢাকার ‘নিচু এলাকায়’  

ডেঙ্গুর চিকিৎসায় ৬ হাসপাতাল নির্ধারণ  

এখন চলছে ডেঙ্গুর ‘ডেনভি-৩’ ধরনের দাপট: বিসিএসআইআর